শ্বশুরবাড়ি থেকে ডিসকভার বাইক না দিয়ে ভিন্ন বাইক দেওয়ায় সেই বাইক কবরস্থ করার ঘটনাটি স্ক্রিপ্টেড

সম্প্রতি, “ঘটনাটি ময়মনসিংহের, হালুয়াঘাটের। শ্বশুরবাড়ি থেকে ডিস্কভার বাইক দেওয়ার কথা ছিলো কিন্তু দিয়েছেন মেট্রো বাইক। তাই রাগের বসেই নিজের উঠানে কবরস্থ করেছে সেই বাইক। বিয়ের মাত্র ১ সপ্তাহ যেতেই এই ঘটনা।” শীর্ষক ক্যাপশনে কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, শ্বশুরবাড়ি থেকে ডিসকভার বাইক না দিয়ে টিবিএস মেট্রো বাইক দেওয়ায় সেই বাইক উঠানে কবরস্থ করার ঘটনাটি সত্য নয় বরং উক্ত দাবিতে প্রচারিত ছবিগুলো একটি স্ক্রিপ্টেড ভিডিও থেকে নেওয়া।

গত ১৫ জুন বিনোদন কনটেন্ট ভিত্তিক ফেসবুক পেজ মেজো ভাই’ থেকে মোটরসাইকেল কবর দেওয়ার একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। কিন্তু সেই ভিডিওটি পরবর্তীতে পেজ থেকে পরবর্তীতে সরিয়ে নেওয়া হয়।

Collage: Rumor Scanner

তবে মেঝো ভাই পেজ থেকে ভিডিওটি সরিয়ে নিলেও ইন্টারনেটে ভিডিওটির অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়। ‘সাহসী কণ্ঠ’ নামে একটি ফেসবুক পেজে “শশুর বাড়ি থেকে মেলেনি পছন্দ মত যৌতুকের বাইক। তাই নিজ উঠানে কবরস্থ করলেন মোটর বাইককে!” শীর্ষক শিরোনামে আলোচিত ভিডিওটি পওয়া যায়।

Screenshot from Facebook

ভিডিওতে দাবি করা হয়, যৌতুক হিসেবে শ্বশুরবাড়ি থেকে জামাইয়ের পছন্দ অনুযায়ী ডিসকভার বাইক না দিয়ে টিবিএস মেট্রো বাইক দেওয়ায় সেই বাইক উঠানে কবরস্থ করা হয়েছে।

পরবর্তীতে একই ফেসবুক পেজে(মেঝো ভাই) মোটরসাইকেল কবর দেওয়ার ভিডিওকে সাজানো দাবি করে আরেকটি ভিডিও প্রচার করে। কিন্তু সেটিও পরবর্তীতে পেজ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। পূর্বের ভিডিওর মতো এই ভিডিওটির ইন্টারনেটে অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

‘Gang Emon Official’ নামক ফেসবুক পেজে “শ্বশুর বাড়ির গাড়ি মাটি চাপা দেওয়াই যেন যেন কাল হলো তার” শীর্ষক ক্যাপশনে হুবহু একই ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ভিডিওতে ‘মেজো ভাই’ ফেসবুক পেজের অ্যাডমিন জানান, ভিডিওটি সত্য নয় এবং সেটি তারা কন্টেন্টের জন্য তৈরি করেছেন।

Screenshot from Facebook

এছাড়া মূলধারার গণমাধ্যম ‘আরটিভি’ এর ওয়েবসাইটে গত ১৭ জুন “মোটরসাইকেল কবর দেওয়ার ঘটনা সাজানো নাটক” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। সংবাদ প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায় “আকিকুল বাশার ও ইলিয়াস আহমেদ দুইজন কন্টেন্ট ক্রিয়েটর ভাইরাল হওয়ার জন্য এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন।

Screenshot from RTV

ভিডিওর প্রসঙ্গে আকিকুল বাশার আরটিভিকে বলেন, ‘আমরা বিডি আকিকুল ও মেজো ভাই পেজে নিয়মিত কনটেন্ট আপলোড করি। সেই ধারবাহিকতায় প্রথমে বাইক নিয়ে একটি ভিডিও বানাই। কিন্তু সেটি ভাইরাল হয়নি। পরে যৌতুককে কেন্দ্র করে বাইক কবর দেওয়ার ঘটনা সাজানো হয়। আমি আসলে বিয়েই করিনি।’

ইলিয়াস বলেন, ‘মূলত মজা করেই ভিডিওটি বানানো হয়েছে। এখন সেটি ভাইরাল হয়ে গেছে।’

মূলত, গত ১৫ জুন বিনোদন কনটেন্ট ভিত্তিক ফেসবুক পেজ মেঝো ভাই মোটরসাইকেল কবর দেওয়ার একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়। উক্ত ভিডিওতে দাবি করা হয়, শ্বশুরবাড়ি থেকে ডিসকভার বাইক না দিয়ে টিবিএস মেট্রো বাইক দেওয়ায় সেই বাইক উঠানে কবরস্থ করা হয়েছে। পরবর্তীতে উল্লিখিত দাবিতে উক্ত ভিডিওর বেশকিছু স্থিরচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তবে অনুসন্ধানে জানা যায়, আকিকুল বাশার ও ইলিয়াস আহমেদ নামের দুই কন্টেন্ট নির্মাতা বিনোদনের উদ্দেশ্য কাল্পনিক স্ক্রিপ্টের ওপর ভিত্তি করে উক্ত ভিডিওটি তৈরি করেছিলেন। 

প্রসঙ্গত, এর আগেও  স্ক্রিপ্টেড ভিডিওকে আসল ঘটনার ভিডিও দাবি করেইন্টারনেটে ভুল তথ্য প্রচার করা হলে সেগুলো শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। এমন কিছু প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

সুতরাং, শ্বশুরবাড়ি থেকে ডিসকভার বাইক না দিয়ে টিবিএস মেট্রো বাইক দেওয়ায় সেই বাইক উঠানে কবরস্থ করার স্ক্রিপ্টেড ভিডিওর ঘটনাকে সত্য ঘটনা দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img