শনিবার, এপ্রিল 13, 2024
spot_img

শেখ হাসিনা সরকার পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দাবিতে বানোয়াট তথ্য প্রচার

সম্প্রতি ‘পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিলেন হাসিনা সরকার, বিএনপির রূপরেখায় সরকারের পরিণতি’ শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

Screenshot source: Facebook 

ফেসবুকে প্রচারিত এমন একটি পোস্ট দেখুন এখানে। পোস্টটির আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা তার সরকারের কেউ পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেয়নি বরং অধিক ভিউ পাবার আশায় চটকদার ক্যাপশন ব্যবহার করে বিভ্রান্তির উদ্দেশ্যে ভিডিওটি ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

অনুসন্ধ্যানের শুরুতে Trand News Bangla নামের ফেসবুক পেজটিতে গত ৪ এপ্রিল প্রচারিত ভিডিওটি বিশ্লেষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম।

Screenshot Source: Facebook 

৮ মিনিট ২ সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে ক্যাপশনের সাথে ভেতরের তথ্যের কোনো মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি। ভিডিও’র শিরোনামে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা বলা হলেও বিস্তারিত প্রতিবেদনে এমনকিছু বলা হয়নি। সেখানে শ্রীলঙ্কার মাহিন্দা রাজাপাক্ষের পদত্যাগের সাথে তুলনা করে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও এমন পরিণতি হওয়ার সম্ভাবনার কথা বলা হয়। 

এছাড়া দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বা  সরকার সংশ্লিষ্ট সূত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা তার সরকারের পদত্যাগের সিদ্ধান্তের বিষয়ে কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

অর্থাৎ, উপরোক্ত তথ্য উপাত্ত পর্যালোচনা করলে এটা স্পষ্ট যে, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা তার সরকারের পদত্যাগের সিদ্ধান্ত শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং আলোচিত ভিডিওটিতে শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষের পদত্যাগের বিষয়টি সাথে শেখ হাসিনা সরকারের তুলনা করা হয়েছে। 

মূলত, গত ৪ এপ্রিল একটি ভুঁইফোড় পেজ থেকে শেখ হাসিনা পদত্যাগের সিদ্ধান্তের দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, অধিক ভিউ পাবার আশায় ক্লিকবেইট শিরোনামে সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করে সংবাদের বিস্তারিত অংশে শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষের পদত্যাগের বিষয়টির সাথে তুলনা করে শেখ হাসিনা সরকারের এমন পরিণতির সম্ভাবনার কথা বলা হয়। প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা তার সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত পদত্যাগের সিদ্ধান্ত  সম্পর্কিত কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, ক্যাপশন এবং থাম্বনেইলে চটকদার শিরোনাম ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। এসব ঘটনা নিয়ে পূর্বেও ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের পদত্যাগের সিদ্ধান্ত দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

  • Rumor Scanner Own Analysis 

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img