রবিবার, জুলাই 21, 2024
spot_img

মৃত শিশুর তথ্য ও ছবি ব্যবহার করে আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণা

সম্প্রতি ‘শুধুমাত্র ১টি শেয়ার ভিক্ষা চাইছি। ১টা শেয়ার করুন আপনাদের পায়ে ধরি।‘ শীর্ষক শিরোনামে কিছু ছবি সংযুক্ত করে মুনতাহা তুবা নামের এক শিশুর জন্য মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে। আর্কাইভ দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে।  

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, মুনতাহা তুবা নামে প্রচারিত আর্থিক সহায়তার আবেদনটি সত্য হলেও এতে উল্লিখিত বিকাশ নাম্বারটি মুনতাহা তুবার চিকিৎসার আর্থিক সাহায্য পাঠানোর জন্য প্রকৃত নাম্বার নয় বরং তুবার জন্য সহায়তা পাঠানোর মূল বিকাশ নাম্বারটি পরিবর্তন করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে পোস্টটিতে নতুন বিকাশ নাম্বার সংযুক্ত করা হয়েছে।

মূলত, মারুফ হাসান ও তাসলিমা খাতুন দম্পতির শিশু কন্যা মুনতাহা তুবা। মারুফ ও তাসলিমা দুইজনই ডিপ্লোমা মেডিকেল শিক্ষার্থী। তাদের কন্যা মুনতাহা তুবা বিলিয়ারি এট্রেশিয়া সংক্রান্ত জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে সর্বশেষ সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তুবার লিভার ট্রান্সপ্লান্ট অপারেশনের জন্য ২৫-২৬ লাখ টাকার প্রয়োজন ছিলো। যা মেডিকেল পড়ুয়া বাবা-মায়ের পক্ষে জোগাড় করা সম্ভব ছিল না। তাই তারা ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে তাদের কন্যা তুবার চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তার আবেদন করেছিলেন। কিন্তু সর্বশেষ গত ২১ জানুয়ারি বিকেল ৩ টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তুবা মারা যায়।

২০২১ সালের ০৪ ডিসেম্বরে তুবার বাবা মারুফ হাসান তার ফেসবুক আইডি হতে মুনতাহা তুবার চিকিৎসার জন্য টাকা প্রয়োজন উল্লেখ করে মানবিক সাহায্যের আবেদন জানিয়ে নিজের বিকাশ নাম্বারসহ একটি পোস্ট করেন। এরপরই মুনতাহা তুবার জন্য মানবিক সাহায্যের আবেদনের পোস্টটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। তবে তুবার চিকিৎসার তথ্য ও ছবি দিয়ে কেবল বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করে কিছু ফেসবুক আইডি ও পেজ হতে ভিন্ন ভিন্ন পোস্ট প্রচার করা হয় (আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে।), যা রিউমর স্ক্যানার টিমের নজরে আসে।

বিষয়টি অধিক নিশ্চিতের জন্য রিউমর স্ক্যানার টিম মুনতাহা তুবার বাবা মারুফ হাসানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ‘তার বিকাশ পারসোনাল নাম্বার ব্যতীত তুবার চিকিৎসার আর্থিক সাহায্যের জন্য ছড়িয়ে পড়া বাকি বিকাশ নাম্বারগুলো থেকে অর্থ সংগ্রহের ব্যাপারে তিনি অবগত নন। কেবল তার পারসোনাল বিকাশ নাম্বার দিয়েই তিনি আর্থিক সহায়তা সংগ্রহ করেছেন।’

তবে, সাম্প্রতিক সময়ে মুনতাহা তুবার ছবি ও চিকিৎসার তথ্য ব্যবহার করে তুবার বাবার ব্যক্তিগত বিকাশ নাম্বার পরিবর্তন করে নতুন বিকাশ/রকেট নাম্বার সংযুক্ত করে তুবার চিকিৎসার জন্য মানবিক সাহায্যের প্রয়োজন দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

এছাড়া, আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকৃত ফেসবুক পোস্টগুলোতে উল্লিখিত বিকাশ ও নগদ (01853188462, 01763387395) নাম্বারে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

অর্থ্যাৎ আর্থিক প্রতারণার উদ্দেশ্যে মারা যাওয়া শিশু মুনতাহা তুবার ছবি ও চিকিৎসার ডকুমেন্টসগুলো পুনরায় ব্যবহার করে ভুয়া মানবিক আবেদন প্রচার করা হচ্ছে।
বিষয়টি পূর্বেও মিথ্যা হিসেবে শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img