শনিবার, জুলাই 13, 2024
spot_img

আর্থিক প্রতারণার উদ্দেশ্যে ভারতীয় রোগাক্রান্ত শিশুকে বাংলাদেশি শিশু দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি, ০৯ বছরের এই ছোট বোনটির নাম ফাতেমা জান্নাত, পিতা- নুরুল আমিন, গ্রাম– জগতপুর, থানা ও ইউনিয়ন- মুরাদনগর, জেলা– কুমিল্লা। বোনটির গালে দুটি টিউমার বহন করছে, জরুরী ভিত্তিতে অপারেশন করা প্রয়োজন।” শীর্ষক শিরোনামে এক শিশুর কয়েকটি ছবি সংযুক্ত করে একটি মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ফাতেমা জান্নাত নামে প্রচারিত ছবিগুলো কোনো বাংলাদেশি শিশুর নয় বরং এগুলো ভারতের নাগরিক অনিতা ও ছোটে লাল দম্পতির কন্যা মমতার ছবি। 

মূলত, ২০২২ সালে ফান্ডরাইজিং ওয়েবসাইট impactguru এ ছবিগুলো পাওয়া যায়। সেখান থেকে জানা যায় ছবিগুলো মমতা নামের ৭ বছর বয়সী ভারতীয় এক শিশুর। মমতার মুখে একটি লাম্প ছিল এবং এটি পরিমাপের চেয়ে বেশি বেড়ে উঠে একদিকে ঝুলে ছিল। মমতার মুখের পুনর্গঠনের জন্য অস্ত্রোপচার প্রয়োজন ছিল। শিশুটি ভারতের দিল্লিতে “Max Super Speciality Hospital” হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল। ফান্ডরাইজিং ঐ ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন থেকে জানা যায় শিশুটির চিকিৎসার জন্য প্রায় ৩৪.৫০ লাখ রুপি প্রয়োজন ছিল। সর্বশেষ, এই প্রতিবেদন প্রকাশের আগ পর্যন্ত শিশুটির জন্য আর্থিক সহায়তা সংগ্রহ বন্ধ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, পূর্বেও একই ছবিগুলোর সাথে ভিন্ন নাম ব্যবহার করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে আর্থিক সাহায্য চেয়ে করা পোস্ট করা হলে তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল রিউমর স্ক্যানার। 

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img