মঙ্গলবার, জুলাই 23, 2024
spot_img

সৌদি আরবের স্কুলে জাতীয় পাঠ্যক্রমে রামায়ণ-মহাভারত পড়ানোর দাবিটি মিথ্যা

বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে “সৌদির স্কুলে পড়ানো হবে রামায়ণ-মহাভারত” শীর্ষক শিরোনাম সহ সমজাতীয় শিরোনামে একটি দাবি প্রচার হয়ে আসছে। 

সম্প্রতি, গণমাধ্যমের সংবাদের ছবি সংযুক্ত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে উক্ত দাবিটি আবারও প্রচার করা হচ্ছে। 

স্কুলে

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ভিশন ২০৩০ এর অধীনে “সৌদির স্কুলে পড়ানো হবে রামায়ণ-মহাভারত” শীর্ষক দাবিটি সত্য নয় বরং সৌদি আরবের প্রাইভেট বিদেশী স্কুলগুলোতে বিদেশী শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে নিজ নিজ দেশের পাঠ্যক্রম রয়েছে এবং তা সৌদি আরবের জাতীয় পাঠ্যক্রমের অংশ নয়। এছাড়াও, ভিশন ২০৩০ এর আগে থেকেই প্রাইভেট বিদেশী স্কুলগুলোতে এই পাঠ্যক্রম রয়েছে।

মূলত, সৌদিতে বসবাসরত Nouf Almarwaai নামক একজন ব্যবহারকারী টুইটারে তার সন্তানের আন্তর্জাতিক প্রাইভেট স্কুলের প্রশ্নপত্রের ছবি টুইট করেন। সেই প্রশ্নপত্রে “ভারতের দুটি মহাকাব্য: রামায়ন-মহাভারত” শীর্ষক প্রশ্নটি উল্লেখ ছিল। কিন্তু Nouf Almarwaai তার টুইটে ভিশন ২০৩০ উল্লেখ করায় এবং প্রশ্নপত্রটি কিংবা এর সাথে সংশ্লিষ্ট পাঠ্যক্রমটি যে আন্তর্জাতিক প্রাইভেট স্কুলের, সৌদির জাতীয় পাঠ্যক্রমের নয় সেটি এড়িয়ে যাওয়ায় তার টুইটের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমে ভুল তথ্যটি প্রচারিত হয়। পরবর্তীতে ভারতীয় গণমাধ্যম হয়ে দাবিটি বাংলাদেশের গণমাধ্যমেও প্রচারিত হয়।

উল্লেখ্য, পূর্বেও একই দাবি ইন্টারনেটে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img