ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দিয়ে যুবকের মারধরের শিকার হওয়ার ঘটনাটি ভারতের

সম্প্রতি, ‘ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দেওয়ায় যুবককে পিটিয়ে হাসপাতালে’ শীর্ষক একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভাইরাল কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানেএখানেএখানেএখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দিয়ে যুবকের মারধরের শিকার হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঘটনাটি বাংলাদেশের নয় বরং এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ’র উত্তর-চব্বিশ পরগনার কামারহাটির ঘটনা।

মূলত, গত ৯ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) ফেসবুকে প্রতিবেশী জয়ন্ত সিংয়ের ছবিতে Ha Ha রিঅ্যাকশন প্রদান করেছিলেন উত্তর চব্বিশ পরগনার কামারহাটির নাগরিক ওমপ্রকাশ ঠাকুর। মন্তব্য পছন্দ না হওয়ার জেরে রবিবার সন্ধ্যায় কামারহাটির আড়িয়াদহ পাঠবাড়ি লেনে তার ওপর হামলা চালায় জয়ন্ত ও তার অনুসারীরা। এ ঘটনাটিকে ভারতের সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের বরাতে “ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দেওয়ায় যুবককে পিটিয়ে হাসপাতালে” শীর্ষক শিরোনামে এনটিভি, কালেরকন্ঠ, সময় টিভি সহ বেশ কিছু দেশীয় সংবাদ মাধ্যম প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

Screenshot from Kalerkantho website
হাহা
Screenshot from Hindustan Times website

তবে বাংলাদেশের অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারীরা প্রকাশিত এই সংবাদটি যথাযথ যাচাই না করে শুধুমাত্র শিরোনামটি কপি-পেস্ট করে ফেসবুকে প্রচার করছেন ফলে ঘটনাটি ভারতের হলেও ভারত শব্দটি উল্লেখ না করে বাংলাদেশে প্রচার করায় সেসকল পোস্টগুলোর কারণে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পড়ছে।

আরো পড়ুনঃ যুক্তরাষ্ট্রের ফুলব্রাইট স্কলারশিপ থেকে বাংলাদেশীদের বাদ পড়ার খবরটি ভুয়া

উল্লেখ্য, ভারতে মারধরের শিকার হওয়া ওমপ্রকাশকে হামলার পর সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ক্ষুব্ধ ওমপ্রকাশের স্বজনেরা বেলঘড়িয়া থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ‘এজাহার বা First Information Report (FIR)’ দায়ের করেছেন। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি।

সুতরাং, ভারতে ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দিয়ে যুবকের মারধরের শিকার হওয়ার ঘটনাকে বাংলাদেশে ‘ভারত’ শব্দ উল্লেখ না করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে, যা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর।

বিভ্রান্ত হওয়ার নমুনা:

 

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: ফেসবুকে ‘হাহা রিঅ্যাক্ট’ দেওয়ায় যুবককে পিটিয়ে হাসপাতালে
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: Misleading

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Hindustan Time Bangla: https://bangla.hindustantimes.com/bengal/districts/youth-bitten-for-giving-haha-react-on-facebook-31639394848137.html
  2. Kalerkantho: https://www.kalerkantho.com/amp/online/world/2021/12/14/1101239
  3. Somoy TV: https://www.somoynews.tv/news/2021-12-13/%E0%A6%AB%E0%A7%87%E0%A6%B8%E0%A6%AC%E0%A7%81%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%BE-%E0%A6%B9%E0%A6%BE-%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%9F-%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%AF%E0%A7%81%E0%A6%AC%E0%A6%95%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%AD%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%BF
  4. NTV: https://www.ntvbd.com/world/%E0%A6%AB%E0%A7%87%E0%A6%B8%E0%A6%AC%E0%A7%81%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B9%E0%A6%BE-%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%9F-%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%AF%E0%A7%81%E0%A6%AC%E0%A6%95%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-1001641
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img