বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

পচে যাওয়া পেঁয়াজের এই ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয়, প্রায় দুই বছর পূর্বের

সম্প্রতি, ‘মজুদ করা পেঁয়াজে পচন ধরেছে, গজিয়েছে গাছ’ শীর্ষক শিরোনামে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনের প্রতিবেদনের একটি স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

যা দাবি করা হচ্ছে

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্টগুলোতে বলা হয়েছে, মজুদ করার ফলে পচন ধরা এই পেঁয়াজগুলো সাম্প্রতিক সময়ের।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, মজুদ করার ফলে পচন ধরা এই পেঁয়াজের ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং ছবিটি প্রায় ২ বছর পূর্বে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনের ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১৬ মে ‘গুদামে পচছে পেঁয়াজ’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Bangla Tribune

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ক্রেতা সংকটে পেঁয়াজ বিক্রি করতে না পারায় সে সময় হিলি স্থলবন্দরে গুদামে মজুদ করা পেঁয়াজে পচন ধরেছিল।

উক্ত প্রতিবেদনে ব্যবহৃত একটি ছবির সাথে আলোচিত পোস্টগুলোতে ব্যবহৃত পেঁয়াজের ছবিটির হুবহু মিল পাওয়া যায়।

Image Comparison by Rumor Scanner

অর্থাৎ, আলোচিত পোস্টগুলোতে ব্যবহৃত পেঁয়াজ পচে যাওয়ার এই ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি প্রায় ২ বছর পূর্বের ছবি।

পাশাপাশি, গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে এখন পর্যন্ত সাম্প্রতিক সময়ে পেঁয়াজ পচে যাওয়ার কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাছাড়া বাংলা ট্রিবিউনও উক্ত ছবি ব্যবহার করে সাম্প্রতিক সময়ে কোনো সংবাদ প্রকাশ করেনি।

মূলত, সাম্প্রতিক সময়ে নিত্য পণ্যের দাম বৃদ্ধি নিয়ে ক্রেতা অসন্তোষের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনায় আসে। এরই প্রেক্ষিতে দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদস্বরূপ পণ্য ক্রয় করা থেকে বিভিন্ন পর্যায়ের ক্রেতাদের বিরত থাকার কথা জানিয়ে সামাজিক আন্দোলনের ডাক দেয় নেটিজেনরা। এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পচে যাওয়া পেঁয়াজের একটি ছবি প্রচার করে দাবি করা হয়েছে, মজুদ করার ফলে পচন ধরা এই পেঁয়াজগুলো সাম্প্রতিক সময়ের। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, মজুদ করার ফলে পচন ধরা এই পেঁয়াজের ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয়। প্রকৃতপক্ষে, আলোচিত ছবিটি ২০২২ সালে মজুদ করা পেঁয়াজে পচন ধরা নিয়ে মূলধারার অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে তরমুজ পচে যাওয়ার পুরোনো ছবি সাম্প্রতিক দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হলে বিষয়টি নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, প্রায় দুই বছর পূর্বের পচে যাওয়া পেঁয়াজের একটি ছবিকে সাম্প্রতিক দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img