সোমবার, জুলাই 22, 2024
spot_img

সাকিব আল হাসান ও মাহিয়া মাহিকে হত্যার গুজব

সম্প্রতি, শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে Sumon Hosen নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে বাংলাদেশের ক্রিকেটার ও মাগুরা-১ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সাকিব আল হাসান এবং চিত্রনায়িকা ও রাজশাহী-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহিয়া মাহিকে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের কারণে হত্যা করা হয়েছে শীর্ষক তথ্য প্রচার করা হয়েছে।

হত্যার

উক্ত টিকটক অ্যাকাউন্টটি (আর্কাইভ) থেকে এই দুই তারকার হত্যার দাবিতে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সাকিব আল হাসান ও মাহিয়া মাহি হত্যাকাণ্ডের শিকার হননি বরং অধিক ভিউ পাবার আশায় নির্ভরযোগ্য কোনো তথ্যসূত্র ছাড়াই ভিত্তিহীনভাবে উক্ত টিকটক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এই তারকাদের হত্যার ভুয়া দাবি প্রচার করা হয়েছে।

সাকিব আল হাসান ও মাহিয়া মাহিকে হত্যার দাবির বিষয়ে সত্যতা যাচাইয়ের শুরুতে দেশীয় মূলধারার গণমাধ্যমগুলো পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। অনুসন্ধানে উক্ত দাবির সত্যতা পাওয়া যায়নি।

অনুসন্ধানের এ পর্যায়ে উক্ত তারকাদের মৃত্যুর বিষয়ে প্রচারিত ভিডিওগুলো পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। সাকিব আল হাসানকে হত্যার দাবিতে প্রচারিত পোস্টে উল্লেখ করা হয়েছে, তিনি এমপি পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার কারণে রাতে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

Screenshot: TikTok

তবে অনুসন্ধানে গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে উক্ত দাবিটির সত্যতা পাওয়া যায়নি। তাছাড়া টিকটকে সাকিব আল হাসান হত্যার তথ্য প্রচারের পরবর্তী সময়ে সাকিবের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে তার নির্বাচনী প্রচারণা কার্যক্রমের ভিডিও প্রচার হতে দেখা যায়।

Screenshot: Shakib Al Hasan Facebook

অর্থাৎ, সাকিব আল হাসান হত্যাকাণ্ডের শিকার হননি বরং তিনি সুস্থ ও স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়মিত নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন।

পরবর্তীতে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে হত্যা দাবিতে প্রচারিত পোস্টটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, সেখানেও তিনি এমপি পদে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার কারণে রাতে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে শীর্ষক তথ্য উল্লেখ করা হয়।

Screenshot: TikTok

তবে অনুসন্ধানে গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে উক্ত দাবিটির সত্যতা পাওয়া যায়নি। তাছাড়া টিকটকে মাহিয়া মাহির হত্যার তথ্য প্রচারের পরবর্তী সময়ে মাহির ফেসবুক অ্যাকাউন্টে তার নির্বাচনী প্রচারণা কার্যক্রমের ছবি প্রচার হতে দেখা যায়।

Screenshot: Mahiya Mahi Facebook

অর্থাৎ, মাহিয়া মাহি হত্যাকাণ্ডের শিকার হননি বরং তিনি সুস্থ ও স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়মিত নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন।

মূলত, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান মাগুরা-১ আসন থেকে নৌকা প্রতীকে এবং চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি রাজশাহী-১ আসন থেকে ট্রাক প্রতীকে ভোটের যুদ্ধে অংশ নিচ্ছেন। নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন তারকাদের বিষয়ে ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরনের তথ্য প্রচারিত হচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে সাম্প্রতিক সময়ে শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকে Sumon Hosen নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে সাকিব আল হাসান ও মাহিয়া মাহিকে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের কারণে হত্যা করা হয়েছে শীর্ষক তথ্য প্রচার করা হয়। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, উক্ত তারকাদের কেউই হত্যাকাণ্ডের শিকার হননি বরং তারা সুস্থ ও স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়মিত নির্বাচনী প্রচারণাসহ অন্যান্য কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, পূর্বেও একই টিকটক অ্যাকাউন্ট থেকে ৯ তারকার মৃত্যুর গুজব প্রচার করা হলে তা নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন দাবিতে টিকটকে প্রচারিত তথ্যগুলো ভুয়া এবং বানোয়াট।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img