ভিন্ন ব্যক্তির ছবিতে ড. ইউনূসের মুখমণ্ডল বসিয়ে বিকৃত ছবি প্রচার

সম্প্রতি, “সুদখোর ইউনূসের গোপন জীবনের ছবি” শীর্ষক দাবিতে তিন নারীর সাথে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

ড. ইউনূসের মুখমণ্ডল

ফেসবুকে প্রচারিত এমনকিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, “সুদখোর ইউনূসের গোপন জীবনের ছবি” শীর্ষক দাবিতে তিন নারীর সাথে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের ছবি শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয় বরং ভিন্ন ব্যক্তির ছবিকে এডিট করে ড. ইউনূসের মুখমণ্ডল বসিয়ে বিকৃত করে প্রচার করা হচ্ছে।
 
এ বিষয়ে অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে আন্তজার্তিক গণমাধ্যম Insider এর ওয়েবসাইটে ২০১৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: insider.com

ছবিটির ক্যাপশন থেকে জানা যায়, তিন নারীর সাথে ছবির ব্যক্তিটি প্লেবয় ম্যাগাজিনের প্রকাশক হিউ হেফনার।

আরো অনুসন্ধান করে, যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গণমাধ্যম CBS News এ ২০০৬ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত একটি ফটোস্টোরিতেও আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

ছবিটির ক্যাপশন থেকে জানা যায়, ২০০৬ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি প্লেবয় ম্যাগাজিনের প্রকাশক হিউ হেফনার (ডান থেকে দ্বিতীয়) এবং তার অতিথিরা এলজি মারিয়া কেরি এবং জের্মেইন ডুপ্রি পোস্ট-গ্র্যামি পার্টির জন্য ক্যালিফোর্নিয়ার বেভারলি হিলস-এ একটি ব্যক্তিগত বাসভবনে আসেন৷ 

ড. ইউনূসের ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটির সাথে উক্ত ছবিটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায় এবং সাথে থাকা তিন নারী, পোশাক এবং ছবিটির ব্যাকগ্রাউন্ডেরও মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

 Screenshot collage: Rumor Scanner 

পাশাপাশি, আন্তর্জাতিক ছবি শেয়ারিং এবং স্টোরেজ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান Getty Images এর ওয়েবসাইটে সেই পার্টিতে তোলা Play Boy ম্যাগাজিনের প্রকাশকের সাথে উক্ত তিন নারীর আরও কিছু ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। 
ছবিগুলো দেখুনএখানে, এখানে এবং এখানে। 

মূলত, ২০০৬ সালে প্লেবয় ম্যাগাজিনের প্রকাশক হিউ হেফনার যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি পার্টিতে তিন নারীর সাথে একাধিক ছবি তোলেন। সেসব ছবির একটিতে সম্প্রতি হিউ হেফনারের মুখমণ্ডলের স্থলে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের ছবি বসিয়ে প্রচার করা হচ্ছে। 

উল্লেখ্য, পূর্বেও ড. ইউনূসের ছবি এডিট করে প্রচার করা হলে তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, তিন নারীর সাথে ড. ইউনূসের ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটি এডিটেড।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img