ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় সেনা সদস্য নিহতের সংবাদটি বাংলাদেশের?

সম্প্রতি ‘ভয়াবহ জঙ্গি হামলা ২ সেনা নিহত’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত উক্ত ভিডিওটি দেখুন এখানে(আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশে ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় ২ সেনা নিহতের ঘটনা ঘটেনি বরং পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় ৩ সেনা সদস্য নিহত হয়েছে এবং অধিক ভিউ পাবার আশায় কোন দেশ তা উল্লেখ না করে চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে বিভ্রান্তির উদ্দেশ্যে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হচ্ছে।

গত ০১ মে News Plus নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে ‘ভয়াবহ জঙ্গি হামলা ২ সেনা নিহত’ শীর্ষক শিরোনাম এবং থাম্বনেইল ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়।

Screenshot: Facebook 

ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায়, এটি কয়েকটি প্রতিবেদন নিয়ে তৈরি একটি নিউজ বুলেটিন ভিডিও। ৯ মিনিট ১০ সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে ৮ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডের সময়  পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় ৩ সেনা সদস্য নিহতের বিষয়ে বলা হয়। এবিষয়ে সংবাদ পাঠ ৮ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড থেকে শুরু হয়ে ৯ মিনিট ১০ সেকেন্ড পর্যন্ত চলে।

এবিষয়ে বিস্তারিত সংবাদে বলা হয়, ‘উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানে একটি অস্থায়ী সামরিক ক্যাম্পে জঙ্গিরা রকেট এবং বন্দুক দিয়ে হামলা করার সময় একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে অন্তত তিন সেনা সদস্য নিহত হন। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা শুক্রবার একথা জানান। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ ঘটনার দায় স্বীকার করেনি কেউ। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ঘন ঘন হামলা শুরু হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে, পাকিস্তান জঙ্গিদের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযান শুরু করলে এই সহিংসতার ঘটনা ঘটে। গত ফেব্রুয়ারিতেই মসজিদে এক বোমা হামলায় ১০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়।’

উক্ত প্রতিবেদনের সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ভয়েস অফ আমেরিকার বাংলা সংস্করণে ‘পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় ৩ সেনা সদস্য নিহত; বলছেন কর্মকর্তারা’ শীর্ষক শিরোনামে গত ২৮ এপ্রিল প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন(আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: voabangla.com

প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানে একটি অস্থায়ী সামরিক ক্যাম্পে জঙ্গিরা রকেট এবং বন্দুক দিয়ে হামলা করার সময় একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে অন্তত তিন সেনা সদস্য নিহত হন। নিরাপত্তা কর্মকর্তারা শুক্রবার একথা জানান। তবে তাৎক্ষণিকভাবে এ ঘটনার দায় স্বীকার করেনি কেউ। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ঘন ঘন হামলা শুরু হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে, পাকিস্তান জঙ্গিদের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযান শুরু করলে এই সহিংসতার ঘটনা ঘটে। গত ফেব্রুয়ারিতেই মসজিদে এক বোমা হামলায় ১০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়।’

রিউমর স্ক্যানার যাচাই করে দেখেছে, উক্ত প্রতিবেদনটি দাবিকৃত ভিডিওতে প্রতিবেদনের শেষ অংশ পর্যন্ত হুবহু পাঠ করা হয়েছে। এছাড়াও দাবিকৃত ভিডিওতে এই সংবাদ পাঠের অংশে প্রদর্শিত ছবিটিও উক্ত প্রতিবেদন থেকে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়া দাবিকৃত ভিডিও’র শিরোনাম এবং থাম্বনেইলে শুধুমাত্র দুই সেনা নিহতের বিষয়ে বলা হলেও বিস্তারিত প্রতিবেদনে পাকিস্তানে ৩ সেনা সদস্য নিহতের কথা বলা হয়েছে।

পরবর্তীতে অধিকতর অনুসন্ধানে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম রয়টার্সের অনলাইন সংস্করণে ‘Motorcycle suicide bomber launches Pakistan attack, at least three soldiers killed’ শীর্ষক শিরোনামে গত ২৮ এপ্রিল প্রকাশিত মূল প্রতিবেদনটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot: Reuters 

পাশাপাশি দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম কিংবা অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে জঙ্গি হামলায় বাংলাদেশে কোনো সেনা সদস্য নিহতের সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

অর্থাৎ, প্রচারিত ভিডিও’র বিস্তারিত প্রতিবেদন এবং এবিষয়ে গণমাধ্যমের প্রতিবেদন পর্যালোচনা করলে এটা স্পষ্ট যে, ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় সেনা নিহতের ঘটনাটি বাংলাদেশের নয়।

মূলত, সম্প্রতি পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় ৩ সেনা সদস্য নিহতের ঘটনা ঘটে। তবে দেশটির নাম উল্লেখ না করে ‘ভয়াবহ জঙ্গি হামলা, ২ সেনা নিহত’ শীর্ষক শিরোনাম এবং থাম্বনেইল ব্যবহার করে অধিক ভিউ পাবার আশায় উক্ত দাবিতে ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে। 

উল্লেখ্য, ক্যাপশন এবং থাম্বনেইলে চটকদার শিরোনাম ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। এসব ঘটনা নিয়ে পূর্বেও ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, পাকিস্তানে জঙ্গি হামলায় ৩ সেনা সদস্য নিহতের সংবাদের ভিডিও’র থাম্বনেইলে দেশের নাম উল্লেখ না করে ‘ভয়াবহ জঙ্গি হামলা, ২ সেনা নিহত’ লিখে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img