বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
spot_img

বাতাসে সেতু ভেঙে পড়ার ঘটনাটি বাংলাদেশের নয়, ভারতের

সম্প্রতি, “বাতাসেই ভেঙে পড়ল সেতু” শীর্ষক শিরোনামে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি’র একটি ফটোকার্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে এই ঘটনাটি বাংলাদেশের।

আরটিভির ফটোকার্ড যুক্ত করে উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাতাসে সেতু ভেঙে যাওয়ার এই ঘটনাটি বাংলাদেশের নয় বরং ঘটনাটি ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের পেদ্দাপল্লী জেলার।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত পোস্টগুলোতে ব্যবহৃত ফটোকার্ডটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় ফটোকার্ডটিতে বেসরকারি ইলেকট্রনিক টেলিভিশন আরটিভির লোগো রয়েছে এবং প্রচারের তারিখ হিসেবে ২৩ এপ্রিল ২০২৪ এর কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

পরবর্তীতে এসব তথ্যের সূত্র ধরে ফেসবুকে ম্যানুয়ালি অনুসন্ধানের মাধ্যমে আরটিভির ফেসবুক পেজে আলোচিত ফটোকার্ডটি (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত ফটোকার্ড পোস্টের মন্তব্য ঘরে এসম্পর্কিত একটি প্রতিবেদনের (আর্কাইভ) উল্লেখ পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এটি তেলেঙ্গানা রাজ্যের পেদ্দাপল্লী জেলায় ঝড়ো বাতাসে ৮ বছর ধরে নির্মাণাধীন সেতু ধ্বসে পড়ার ঘটনা।

এছাড়া একই বিষয়ের সংবাদে শিরোনামে ভারতের কথা উল্লেখ না করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দেশীয় গণমাধ্যম সময় টিভি (আর্কাইভ), দৈনিক জনকণ্ঠ (আর্কাইভ), দেশরূপান্তর (আর্কাইভ), ভোরের কাগজ (আর্কাইভ), জাগো নিউজ (আর্কাইভ)।

প্রতিবেদনের শিরোনামে ঘটনাটির স্থানের নাম উল্লেখ না করায় বিষয়টি নিয়ে নেটিজেনদের মনে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে। বিস্তারিত প্রতিবেদন না পড়েই তারা বিষয়টিকে বাংলাদেশের মনে করে বিভিন্ন নেতিবাচক মন্তব্য করেছেন। 

Collage: Rumor Scanner

পরবর্তীতে বিষয়টি অধিকতর নিশ্চিতের জন্য কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম NDTV এর ওয়েবসাইটে গত ২৩ এপ্রিল “Telangana Bridge, Under Construction For 8 Years, Gone With The Wind” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকেও একই তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়। 

অর্থাৎ, বাতাসে সেতু ভেঙে পড়ার ঘটনাটি বাংলাদেশের নয়। তবে এসম্পর্কিত খবরের শিরোনামে স্থানের নাম না উল্লেখ করায় ঘটনাটি বাংলাদেশের ভেবে নেটিজেনরা বিভ্রান্ত হয়েছেন।

পাশাপাশি, মূলধারার গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে বাতাসে সেতু ভেঙে পড়া সংক্রান্ত কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

মূলত, ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের পেদ্দাপল্লী জেলায় ঝড়ো বাতাসে ৮ বছর ধরে নির্মাণাধীন সেতু ধ্বসে পড়ার ঘটনা ঘটে। উক্ত বিষয়ে বাংলাদেশের একাধিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত ফটোকার্ড ও গণমাধ্যমের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনের শিরোনামে ঘটনাটির স্থানের নাম উল্লেখ না করে সংবাদ প্রচার করা হয়। পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা বিষয়টিকে বাংলাদেশের ঘটনা মনে করে ফেসবুকে প্রচার করেন।

উল্লেখ্য, পূর্বেও ভারতের একাধিক ঘটনা বাংলাদেশের দাবিতে প্রচারিত হলে তা নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। এমন কয়েকটি প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

সুতরাং, ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের পেদ্দাপল্লী জেলায় ঝড়ো বাতাসে ৮ বছর ধরে নির্মাণাধীন সেতু ধ্বসে পড়ার ঘটনাটি বাংলাদেশে স্থানের নাম উল্লেখ না করে ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img