ভিডিওটি ভারতের ফারাক্কা বাঁধ খুলে দেয়ার নয়, এটি মাহি বাজাজ বাঁধের পুরোনো ভিডিও

সম্প্রতি “ইন্ডিয়া ফারাক্কা খুলে দিয়েছে বাংলাদেশকে রক্ষা করো” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যম টিকটকে প্রচার করা হয়েছে।

টিকটকে প্রচারিত এমন একটি পোস্ট দেখুন এখানে। টিকটকে প্রচারিত পোস্টের আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওটি ফারাক্কা বাঁধের নয় বরং এটি ভারতের রাজস্থানে প্রবাহিত মাহি নদীতে অবস্থিত মাহি বাজাজ সাগর বাঁধের ভিডিও ।

ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে, “Jay Doshi” নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৭ সালের ২৭ জুলাইয়ে “Kadana dam overflow july 2017” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

এছাড়াও, TechTravelFunFood নামের ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৮ সালের ১২ আগস্ট “ बांसवाड़ा का माही बांध के गेट खोले गये Mahi Bajaj Sagar Dam Banswara Rajasthan India” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একই ভিডিওর অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে, ইউটিউব ভিডিও গুলোর সূত্র ধরে কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, আমেরিকান ট্রাভেল ওয়েবসাইট “Tripadvisor” এ ব্যবহারকারীদের প্রকাশিত ছবির স্থানের সাথে আলোচিত ভিডিওর স্থানের মিল পাওয়া যায়। যেখানে ছবিগুলোর শিরোনামে লেখা রয়েছে, ‘Photo: Life Line of Banswara- Mahi Dam’.

মাহি

বিষয়টি অধিক নিশ্চিতের জন্য “Google Earth” এর সহায়তায় আলোচিত ভিডিওটির চিত্রের সাথে তুলনা করে নিশ্চিত হওয়া যায় যে এটি ভারতের রাজস্থানে প্রবাহিত মাহি নদীতে অবস্থিত মাহি বাজাজ সাগর বাঁধ।

মূলত, ভারতের রাজস্থানে প্রবাহিত মাহি নদীতে অবস্থিত মাহি বাজাজ সাগর বাঁধের পুরোনো একটি ভিডিওকে সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের ফারাক্কা বাঁধ খুলে দেয়ার ভিডিও দাবিতে সামাজিক মাধ্যম টিকটকে প্রচার করা হচ্ছে।

তাছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের ফারাক্কা বাঁধ খুলে দেওয়া হয়েছে এমন কোনো তথ্য আন্তর্জাতিক বা দেশীয় সংবাদমাধ্যম প্রকাশিত হয় নি।

Also Read: “অচিরেই সমগ্র বিশ্ব হবে ইসলামি বিশ্ব” শীর্ষক মন্তব্যটি রাশিয়ান পুরোহিত পেট্রিয়ার্ক কিরিলের নয়

উল্লেখ্য, ফারাক্কা বাঁধ গঙ্গা নদীর উপর অবস্থিত একটি বাঁধ। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলায় এই বাঁধটি অবস্থিত এবং সর্বশেষ ২০১৯ সালে ফারাক্কা বাঁধ খুলে দেয়া হয়েছিলো।

অর্থাৎ, মাহি বাজাজ সাগর বাঁধের পুরোনো একটি ভিডিও সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের ফারাক্কা বাঁধ খুলে দেয়ার দৃশ্য দাবিতে সামাজিক মাধ্যম টিকটকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img