সোমবার, জুলাই 22, 2024
spot_img

সেনাবাহিনী কর্তৃক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ এবং দেশে জরুরি অবস্থা জারির ভুয়া তথ্য প্রচার

গত ২৬ ডিসেম্বর Sabaj Shiki নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিলো সেনাকর্মকর্তা, রাতেই জরুরি অবস্থা জারি’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে।

সেনাবাহিনী কর্তৃক

ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি দেখা হয়েছে প্রায় ৫২ হাজার বার। ভিডিওটি প্রায় দেড় হাজার পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সেনাবাহিনীর কোনো কর্মকর্তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেয়নি এবং দেশে জরুরি অবস্থাও জারি করা হয়নি বরং সেনাবাহিনীর সদস্যদের বিভিন্ন কার্যক্রমের পুরোনো ভিডিও ক্লিপের সাথে আলোচিত দাবিটি জুড়ে দিয়ে উক্ত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, এটি ভিন্ন ভিন্ন কয়েকটি পুরোনো ঘটনার ভিডিও ক্লিপ এবং ছবি নিয়ে তৈরি একটি ভিডিও প্রতিবেদন, যেখানে সেনাবাহিনীর সদস্যদের পুরোনো কিছু কার্যক্রমের দৃশ্য দেখানো হয়।

আলোচিত ভিডিওটি’র শিরোনাম এবং থাম্বনেইলে উল্লেখিত দাবিগুলোর সাথে ভিডিওটি’র বিস্তারিত অংশের মিল পাওয়া যায়নি। আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত ভিডিও ক্লিপগুলোর বিষয়ে আলাদা আলাদাভাবে অনুসন্ধান চালায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

ভিডিও যাচাই- ০১

আলোচিত ভিডিওটি থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘সময় টিভি’র ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘অবসান ঘটলো শ্বাসরুদ্ধকর বিমান ছিনতাই নাটকের’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটি’র সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে দেখানো প্রথম ভিডিও ক্লিপের মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner

অর্থাৎ, এই ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় এবং এর সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত দাবির কোনো মিল নেই।

ভিডিও যাচাই- ০২

আলোচিত ভিডিওটি থেকে কিছু স্থিরচিত্র নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে ‘আলোচিত খবর’ নামের একটি গণমাধ্যমের ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর ‘হঠাৎ করে সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে গোটা দেশ নিরাপত্তার চাঁদরে ঢাকা’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। এই ভিডিওটি’র সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে দেখানো দ্বিতীয় ভিডিও ক্লিপের মিল পাওয়া যায়।

Video Comparison by Rumor Scanner

অর্থাৎ, এই ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় এবং এর সাথে আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত দাবির কোনো মিল নেই।

এছাড়াও, মূলধারার গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে এখন পর্যন্ত সেনাবাহিনী কর্তৃক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ এবং দেশে জরুরি অবস্থা জারির দাবির সত্যতা পাওয়া যায়নি।

মূলত, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে নিয়ে বিভিন্ন সময়ে ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরনের তথ্য প্রচারিত হচ্ছে। নির্বাচন উপলক্ষে সেনা মোতায়েনের বিষয়টি সামনে আসার পর থেকে বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মহলে আলোচনা বাড়ছে। এরই প্রেক্ষিতে গত ২৬ ডিসেম্বর Sabaj Shiki নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ‘হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিলো সেনাকর্মকর্তা, রাতেই জরুরি অবস্থা জারি’ শীর্ষক শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার করে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়। তবে অনুসন্ধানে উক্ত দাবিগুলোর সত্যতা পাওয়া যায়নি বরং সেনাবাহিনীর সদস্যদের বিভিন্ন পুরোনো কার্যক্রমের ভিডিও ক্লিপের সাথে আলোচিত দাবিটি জুড়ে দিয়ে উক্ত ভিডিওটি প্রচার করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, সেনাবাহিনীর কোনো কর্মকর্তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেয়নি এবং দেশে জরুরি অবস্থাও জারি করা হয়নি।

প্রসঙ্গত, আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার জন্য সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এরই প্রেক্ষিতে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনের জন্য আগামী ৩ জানুয়ারি থেকে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত ৮ দিন মাঠ পর্যায়ে দায়িত্ব পালন করবে সেনাবাহিনী।

উল্লেখ্য, পূর্বেও সেনাবাহিনীর হাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গ্রেফতারের ভুয়া তথ্য প্রচারের প্রেক্ষিতে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, সেনা কর্মকর্তা কর্তৃক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের নির্দেশ এবং দেশে জরুরি অবস্থা জারি দাবিতে প্রচারিত তথ্যগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img