শনিবার, এপ্রিল 13, 2024
spot_img

গণমাধ্যমের নকল ফটোকার্ডে কাকরাইল মসজিদে আগুন দেওয়া নিয়ে মিথ্যা তথ্য প্রচার 

সম্প্রতি, কাকরাইলে মসজিদে আগুন দিয়েছে বিএনপি কর্মীরা– শীর্ষক তথ্য বা শিরোনামে প্রথম আলো’র প্রথম আলো’র ওয়েব সংস্করণের সংবাদের ডিজাইন সম্বলিত একটি স্ক্রিনশট ও কালবেলা’র ডিজাইন সম্বলিত একটি ফটোকার্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে। 

 আগুন

প্রথম আলো’র লোগো ব্যবহার করে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

কালবেলা’র ডিজাইন সম্বলিত ফটোকার্ড দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপি’র ডাকা মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা কাকরাইল মসজিদে আগুন দেয়নি এবং প্রথম আলো ও কালবেলা এমন কোনো সংবাদ বা ফটোকার্ডও প্রকাশ করেনি বরং ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে উক্ত সংবাদ এবং ফটোকার্ডটি তৈরি করা হয়েছে।

প্রথম আলো কি এমন কোনো সংবাদ প্রকাশ করেছে? 

অনুসন্ধানের শুরুতে প্রথম আলো’র লোগো ব্যবহৃত আলোচিত সংবাদের ছবিটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, সংবাদটি প্রকাশের তারিখ উল্লেখ রয়েছে ২৮ অক্টোবর ২০২৩। 

Screenshot: Facebook Claim Post 

পরবর্তীতে প্রথম আলো’র ওয়েবসাইট পর্যবেক্ষণ করে উক্ত শিরোনামে কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

তবে, ২৮ অক্টোবর প্রথম আলোতে “কাকরাইলে পুলিশ বক্স ও গাড়িতে আগুন, মসজিদের সামনে বিজিবি” শীর্ষক শিরোনামে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কাকরাইল মোড়ে একটি ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বেলা সোয়া একটার দিকে আগুন দেওয়া হয়েছে। সেখানে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে রাখা গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

এছাড়া, উক্ত প্রতিবেদনে ব্যবহৃত ছবি এবং আলোচিত সংবাদে ব্যবহৃত ছবি হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

Photocard Analysis: Rumor Scanner

একই দিনে কাকরাইল মোড়ে পুলিশ বক্সে আগুন দেওয়ার খবর প্রকাশিত হয় দেশের মূলধারার গণমাধ্যমগুলোতেও।

পাশাপাশি, আলোচিত দাবিটির বিষয়ে জানতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে অন্যান্য গণমাধ্যম এবং নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্রেও কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। 

অর্থাৎ, কাকরাইল মসজিদে নয় বরং কাকরাইল মোড়ে একটি পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছিলো বিএনপি’র নেতাকর্মীরা। 

কালবেলা কি এমন কোনো ফটোকার্ড প্রকাশ করেছে? 

অনুসন্ধানের শুরুতে কালবেলা’র ফটোকার্ডের ডিজাইন সম্বলিত ছবিটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। সেখানে এই সংবাদটি প্রচারের তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে ২৮ অক্টোবর ২০২৩।

Screenshot: Facebook Claim Post

দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে ফটোকার্ডটিতে থাকা তারিখ এবং কালবেলা’র লোগোর সূত্র ধরে কালবেলা’র ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে ২৮ অক্টোবর প্রচারিত ফটোকার্ডগুলো পর্যালোচনা করে উক্ত শিরোনাম বা তথ্য সম্বলিত কোনো ফটোকার্ড খুঁজে পাওয়া যায়নি। পাশাপাশি কালবেলা’র ওয়েবসাইটেও এ সংক্রান্ত কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

Photocard Analysis: Rumor Scanner 

এছাড়া, আলোচিত ফটোকার্ডে ব্যবহৃত ছবির বিষয়ে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার টিম। অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দৈনিক ইত্তেফাকে গত ২৮ অক্টোবর “সংঘর্ষে উত্তপ্ত কাকরাইল, বিজিবি মোতায়েন” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot comparison: Rumor Scanner 

ছবির ক্যাপশন এবং প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, শনিবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানীর কাকরাইলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (আইডিইবি) ভবনে রাখা গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়। সেসময় তোলা ছবি এটি। 

মূলত, গত ২৮ অক্টোবর সরকার পতনের এক দফা দাবিতে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি মহাসমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে যোগদানের জন্য আসা বিএনপি’র নেতাকর্মীদের সাথে সংঘর্ষ হয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের। পরবর্তীতে পুলিশ সাথে ত্রিমুখী সংঘর্ষে রূপ নিলে নেতাকর্মীরা কাকরাইল মোড়ে একটি পুলিশ বক্সে আগুন দেয়। এরই মধ্যে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা কাকরাইল মসজিদে আগুন দিয়েছে– শীর্ষক তথ্য বা শিরোনামে প্রথম আলো’র লোগো সম্বলিত একটি সংবাদ এবং কালবেলা’র ডিজাইন সম্বলিত একটি ফটোকার্ডে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, নেতাকর্মীরা কাকরাইল মসজিদে নয় কাকরাইল মোড়ে একটি পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে। এছাড়া, প্রথম আলো ও কালবেলা এমন কোনো সংবাদ বা ফটোকার্ড প্রকাশ করেনি। 

উল্লেখ্য, পূর্বেও বিএনপি’র এই মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়ানো হলে তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, কাকরাইল মসজিদে আগুন দিয়েছে বিএনপি’র নেতাকর্মীরা- শীর্ষক তথ্যটি মিথ্যা এবং প্রথম আলো’র ওয়েব সংস্করণের আদলে প্রচারিত সংবাদের স্ক্রিনশট ও কালবেলা’র নামে প্রচারিত ফটোকার্ডটি ভুয়া ও বানোয়াট।

তথ্যসূত্র

হালনাগাদ/ Update

০৮ নভেম্বর, ২০২৩ : কালবেলা’র ফটোকার্ডে থাকা ছবিটির মূল সূত্রের মাধ্যমে তুলনামূলক পার্থক্য সম্বলিত ছবি যুক্ত করা হলো।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img