শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

সিলেটের তাপমাত্রা ৬ দশকেও ৩৮ ডিগ্রি না ছোঁয়ার ভুল তথ্য গণমাধ্যমে

সম্প্রতি, মূলধারার ইলেকট্রনিক গণমাধ্যম চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে “সিলেটে ৬ দশকেও তাপমাত্রা ছোঁয়নি ৩৮ ডিগ্রীর ঘর” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও প্রতিবেদন প্রচার করা হয়।

সিলেটের তাপমাত্রা

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্টটি দেখুন এখানে(আর্কাইভ)।

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে(আর্কাইভ)।

পরবর্তীতে চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের প্রচারিত ভিডিও প্রতিবেদনটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ)।

এছাড়াও একই দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত আরও কিছু পোস্ট দেখুন এখানে(আর্কাইভ), এখানে(আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ৬ দশকে সিলেটের তাপমাত্রা কখনোই ৩৮ ডিগ্রি না পেরোনোর তথ্যটি সঠিক নয় বরং ২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল সিলেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল। পাশাপাশি, ২০২২ সালে ১৪ জুলাই সিলেটের ইতিহাসে জুলাই মাসের সর্বোচ্চ ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, সময় টিভি’র ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১৫ জুলাই “৬৬ বছরের মধ্যে জুলাইয়ে সিলেটে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা!” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Source: সময় নিউজ

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০২২ সালের ১৪ জুলাই সিলেটে ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। যা গত ৬৬ বছরের মধ্যে জুলাই মাসের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। অর্থাৎ, ২০২২ সালের ১৪ জুলাই ছিল সিলেটে ৬৬ বছরের ইতিহাসে জুলাই মাসের উষ্ণতম দিন।

পাশাপাশি, সংবাদ সংস্থা ইউনাইটেড নিউজ অব বাংলাদেশের ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১৫ জুলাই “৬৬ বছরের মধ্যে জুলাইয়ে সিলেটে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা!” শীর্ষক শিরোনামের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০২২ সালের ১৪ জুলাই বৃহস্পতিবার সিলেটে ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যা সিলেট জেলায় গত ৬৬ বছরের মধ্যে জুলাই মাসের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এছাড়াও প্রতিবেদনটিতে সিলেট আবহাওয়া অফিসের জ্যৈষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরীর বরাত দিয়ে জানানো হয়, ‘এ ধরনের উচ্চ তাপমাত্রা জেলায় সর্বশেষ ১৯৫৬ সালের জুলাই মাসে রেকর্ড করা হয়েছিল।’

অর্থাৎ, ২০২২ সালে সিলেটে ৬৬ বছরের ইতিহাসে জুলাই মাসের সর্বোচ্চ ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল। 

পরবর্তীতে, সংবাদমাধ্যম সিলেট ভিউ ২৪ এর ওয়েবসাইটে ২০২২ সালের ১৪ জুলাই “সিলেটে তাপমাত্রা প্রায় ৩৯ ডিগ্রি” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

Source: সিলেট ভিউ ২৪

উক্ত প্রতিবেদনে সিলেটের আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরীর বরাত দিয়ে জানানো হয়, ২০২২ সালের ১৪ এপ্রিল বিকালে সিলেটে তাপমাত্রা ৩৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে ২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল ৩৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল- যা সিলেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ছিল।

অর্থাৎ, গত এক দশকেই সিলেটের তাপমাত্রা অন্তত দু’বার ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস অতিক্রম করেছে। যার মধ্যে ২০১৪ সালের ২৪ এপ্রিল সিলেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

মূলত, পাহাড় ও হাওরবেষ্টিত সিলেট অঞ্চলের তাপমাত্রা গত ৬ দশকে কখনোই ৩৮ ডিগ্রি ছোঁয়নি দাবিতে মূলধারার গণমাধ্যম চ্যানেল টুয়েন্টিফোরে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। তবে, রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা গেছে গণমাধ্যমে প্রচারিত তথ্যটি সঠিক নয়। গত এক দশকেই সিলেটের ইতিহাসে অন্তত দু’বার ৩৮ ডিগ্রির বেশি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এরমধ্যে ২০১৪ সালে সিলেটের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৩৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

সুতরাং, গত ৬ দশকে সিলেটের তাপমাত্রা কখনোই ৩৮ ডিগ্রি পেরোয়নি দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচারিত সংবাদটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img