ভিডিওটি ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত কোনো শিশুকে তার পালিত বিড়ালের বিদায়ের নয় 

সম্প্রতি, ফিলিস্তিনের ‘গাজায় একটি বিড়াল! ইসরাইলী বিমান হামলায় শহীদ হওয়া খেলার সাথী ছোট্ট ফিলিস্তিনি বন্ধুকে বিদায় জানাচ্ছে’ শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

বিমান হামলা

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি সাম্প্রতিক ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের নয়। বরং ২০২১ সালের রাশিয়ান পুরোনো একটি ভিডিওকে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

ভিডিওটির সত্যতা যাচাইয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে thecatsfervor নামক একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে গত ৪ সেপ্টেম্বর দেওয়া একটি পোস্টে আলোচিত ভিডিওটি (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: Instagram post 

তবে ভিডিওটি সম্পর্কে উক্ত পোস্ট থেকে কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

পরবর্তীতে ভিডিওটি নিয়ে অধিকতর অনুসন্ধানে ফিলিস্তিনি ফ্যাক্টচেকিং প্রতিষ্ঠান Tahaqaq এ গত ১৬ অক্টোবর ‘The video is old and was previously published in 2021 and has nothing to do with the war on Gaza’ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

এই প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, এই ভিডিওটি রাশিয়ান ও সাবেক সোভিয়েতভুক্ত দেশগুলোর একটি সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্ক VK তে ২০২১ সালের ১৪ এপ্রিল ‘Коська নামক অ্যাকাউন্টে প্রচার করা হয়েছিল। 

অনুসন্ধানের এ পর্যায়ে অ্যাকাউন্টটিতে গিয়ে ‘আমরা তাদের (বিড়াল) এবং তাদের প্রকৃত ভালবাসার যোগ্য নই। আমাদের বাচ্চার অসুস্থতার সময় আমাদের বিড়াল তার জন্য খুব চিন্তিত ছিল। বিড়ালটি এক মিনিটের জন্যও আমাদের বাচ্চাকে ছাড়েনি (বাংলায় অনূদিত)।’ শীর্ষক শিরোনামে ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়।  

Video Comparison: Rumor Scanner

অর্থাৎ ভিডিওটি সাম্প্রতিক কোনো ঘটনার নয় এবং এটির সাথে ফিলিস্তিনের কোনো সম্পর্ক নেই। 

মূলত, গত ০৭ অক্টোবর ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলে ‘অপারেশন আল-আকসা ফ্লাড’ নামে হামলা করলে ফিলিস্তিন-ইসরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চলা সংঘাত নতুন মাত্রা পায়৷ এই সংঘাতকে কেন্দ্র করে ইসরাইয়েলি বিমান হামলায় নিহত ফিলিস্তিনি শিশুকে তার পালিত বিড়াল বিদায় জানাচ্ছে দাবিতে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, উক্ত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির সঙ্গে চলমান ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের কোনো সম্পর্ক নেই। বরং ভিডিওটি সর্বপ্রথম রাশিয়ান ও সাবেক সোভিয়েতভুক্ত দেশগুলোর একটি সামাজিক যোগাযোগ নেটওয়ার্কে প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল। 

উল্লেখ্য, চলমান ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের সংঘাত ইস্যুতে একাধিক ভুল তথ্য ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে ইতোমধ্যে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার৷

সুতরাং, ২০২১ সালে ধারণকৃত একটি অসুস্থ বাচ্চার প্রতি একটি বিড়ালের স্নেহ দেখানোর পুরানো একটি ভিডিওকে সাম্প্রতিক ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের সময়ের দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img