মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী কোকা-কোলা ও পেপসিকে হারাম বলে ফতোয়া দেননি

সম্প্রতি, পাকিস্তানি ইসলামবিদ শাইখুল ইসলাম মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী মুসলিমদের জন্যে কোমল পানীয় কোকা-কোলা এবং পেপসি পান করাকে হারাম বলে ফতোয়া দিয়েছেন দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি তথ্য প্রচার করা হয়েছে।

কোকা-কোলা

ফেসবুকে প্রচারিত এমন পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, পাকিস্তানি ইসলামি চিন্তাবিদ শাইখুল ইসলাম মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী মুসলিমদের জন্যে কোকা-কোলা এবং পেপসি পান করা হারাম বলে কোনো ফতোয়া দেননি। বরং কোনোপ্রকার তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই এই বানোয়াট দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। দাবিটির সত্যতা যাচাইয়ে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে অনুসন্ধান চালিয়েও পাকিস্তানি কিংবা কোনো আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এ বিষয়ে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে শাইখুল ইসলাম মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের ফতোয়া বিভাগ পর্যালোচনা করেও কোকা-কোলা ও পেপসি পান করা মুসলিমদের জন্যে হারাম এমন কোনো ফতোয়া পাওয়া যায়নি।

উক্ত ওয়েবসাইটে যুক্ত মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানীর ভেরিফাইড এক্স (টুইটার) অ্যাকাউন্ট পর্যবেক্ষণ করে  গত ১৩ এপ্রিল তার অ্যাকাউন্ট থেকে করা একটি উর্দু ভাষার পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot: X (Twitter)

গুগল ট্রান্সলেটরের সহায়তায় পোস্টটি অনুবাদ করে  জানা যায় পোস্টে বলা হয়েছে, ‘সোশ্যাল মিডিয়ায় মুফতি ত্বকী উসমানীকে উদ্ধৃত করে বিভিন্ন বিষয় শেয়ার করা হচ্ছে। এগুলো সরাসরি আমার টুইটার অ্যাকাউন্ট অথবা আমার ওয়েবসাইট অথবা দারুল উলুমের ফতোয়া বিভাগ থেকে আমার আনুষ্ঠানিক বিবৃতি থেকে নেওয়া হয়নি। যদি কোনো বিবৃতিতে ত্বকী উসমানীর স্বাক্ষর না থাকে, তাহলে সেটি ‘ভুয়া’ হিসেবে ধরে নিতে হবে। অনেকে পয়সা কামানোর জন্য এগুলো করছে।’ শীর্ষক মন্তব্য করেছেন। 

এছাড়াও কোকা-কোলা বা পেপসি পান করা হারাম কিনা তা জানতে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে দারুল উলুম দেওবন্দের ওয়েবসাইটে প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, যদি এসব পানীয়তে কোনো প্রকার হারাম বস্তু না থাকে তাহলে এগুলো পান করা, ক্রয়-বিক্রয় করা বৈধ।

Screenshot: Darul Uloom Deoband

মূলত, গত বছরের অক্টোবরে ইসরায়েলে ফিলিস্তিনির স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের ক্ষেপনাস্ত্র হামলার মধ্যদিয়ে দুই দেশের দীর্ঘদিনের সংঘাত নতুন রূপ লাভ করে যুদ্ধে মোড় নেয়। ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ যায় হাজারো নারী ও শিশুসহ সাধারণ ফিলিস্তিনি নাগরিকের। যার প্রেক্ষিতে ইসরায়েলকে সমর্থনের অভিযোগে মুসলিম দেশগুলোতে কোকা-কোলা পণ্যে বয়কটের একটি সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি পাকিস্তানি ইসলামবিদ শাইখুল ইসলাম মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানী মুসলিমদের জন্যে কোমল পানীয় কোকা-কোলা এবং পেপসি পান করাকে হারাম বলে ফতোয়া দিয়েছেন দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি তথ্য প্রচার করা হয়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীনভাবে আলোচিত দাবিটি প্রচার করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এবং তার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুসন্ধান করেও দাবিটির কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।

সুতরাং, পাকিস্তানি ইসলামি চিন্তাবিদ শাইখুল ইসলাম মুফতী মুহাম্মাদ তাকী উসমানীর মুসলিমদের জন্যে কোকা-কোলা এবং পেপসি পান করা হারাম বলে ফতোয়া দিয়েছেন দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি বানোয়াট ও মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img