শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদের দেশে ফেরার গুজব

সম্প্রতি, গ্রেফতারি মাথায় নিয়ে হঠাৎ দেশে ফিরলেন বিএনপি নেতা সালাউদ্দীন আহমেদ– শীর্ষক শিরোনামে এবং হঠাৎ দেশে ফিরলেন বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ ভয়ে হাসিনা– শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ভিডিওটিতে দাবি করা হচ্ছে, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ দেশে ফিরেছেন। 

সালাহউদ্দিন

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ দেশে ফেরেননি বরং তিনি এখনো ভারতেই অবস্থান করছেন৷ বিএনপির নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদকে জড়িয়ে পূর্বে ভিন্ন ভিন্ন ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিও প্রতিবেদন ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনার মাধ্যমে যুক্ত করে চটকদার শিরোনাম ও থাম্বনেইল ব্যবহার আলোচিত দাবির ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতেই আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, সালাহউদ্দিন আহমেদকে নিয়ে পূর্বে ভিন্ন ভিন্ন প্রেক্ষিতে গণমাধ্যমে প্রকাশিত তিনটি ভিডিও প্রতিবেদন এবং একটি সাক্ষাৎকারের ভিডিও রয়েছে। উক্ত ভিডিওগুলোতে সালাহউদ্দিন আহমেদের দেশে এসেছেন সংক্রান্ত কোনো তথ্য প্রমাণ উপস্থাপন করা হয়নি।

এছাড়া, ভিডিওতে প্রচারিত আলোচিত দাবিটি নিয়ে প্রাসঙ্গিক একাধিক কি ওয়ার্ড সার্চ করে গণমাধ্যম কিংবা সংশ্লিষ্ট অন্যকোনো নির্ভরযোগ্য সূত্রে উক্ত দাবির সত্যতা পাওয়া যায়নি। 

আলোচিত ভিডিওটিতে প্রচারিত দাবিটির বিষয়ে আরও অনুসন্ধানে ভিডিওটিতে দেখানো ভিডিও ক্লিপগুলোর বিষয়ে আলাদাভাবে অনুসন্ধান চালায় রিউমর স্ক্যানার টিম।

ভিডিও যাচাই-১

আলোচিত ভিডিওটির শুরুর অংশে একজন সংবাদ পাঠিকাকে সংবাদ পাঠ করতে দেখা যায়। পরবর্তীতে পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে গত বছরের ৮ জুন News24 এর ইউটিউব চ্যানেলে “মেঘালয়ে অবস্থানরত বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন দেশে ফিরবেন কবে?” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও সংবাদ প্রতিবেদন পাওয়া যায়।

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটির একটি অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison: Rumor Scanner 

সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, গত বছরের ৮ জুন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিনের দেশে ফেরার সম্মতি দিয়েছে বলে জানান। সেই প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি। 

ভিডিও যাচাই-২

এই অংশেও একজন সংবাদ পাঠিকাকে সংবাদ পাঠ করতে দেখা যায়। পরবর্তীতে পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে গত বছরের ২ মার্চ Jamuna Television এর ইউটিউব চ্যানেলে “ভারতে আটক বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিনের দেশে ফিরতে বাধা নেই” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন পাওয়া যায়।

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটির একটি অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, গত বছরের মার্চে যমুনা টেলিভিশনকে বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ একটি বক্তব্য দেন। বক্তব্যে তিনি জানান, দেশে ফিরতে তার কোনো বাধা নেই এবং খুব শিগগিরই যাবতীয় আইনী প্রক্রিয়া শেষে দেশে ফিরতে উদগ্রীব। এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি। 

ভিডিও যাচাই-৩

এই অংশেও একজন সংবাদ পাঠিকাকে সংবাদ পাঠ করতে দেখা যায়। পরবর্তীতে পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে গত বছরের ১৩ জুন Desh Tv এর ইউটিউব চ্যানেলে “ট্রাভেল পাস পেলেন বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটির একটি অংশের সাথে আলোচিত ভিডিওটির মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ভারতের শিলংয়ে অবস্থানরত বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ গত বছরের মার্চে দেশে আসার জন্য বাংলাদেশ মিশন থেকে ট্রাভেল পাস সংগ্রহ করেন। সেই প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি।

ভিডিও যাচাই-৪

প্রচারিত ভিডিওর এই অংশে সালাহউদ্দিন আহমেদকে সাক্ষাৎকার দিতে দেখা যায়। পরবর্তীতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে ডয়েচে ভেলে বাংলার ফেসবুক পেজে গত বছরের ৫ জুন “বিশেষ সাক্ষাৎকার: সালাহউদ্দিন আহমেদ” শীর্ষক ক্যাপশনে প্রকাশিত একটি সাক্ষাৎকারের ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত সাক্ষাৎকারের একটি অংশই আলোচিত ভিডিওতে যুক্ত করা হয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত সাক্ষাৎকারটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, গত বছরের জুন মাসে ডয়েচে ভেলের সাংবাদিক আরাফাতুল ইসলামের সঞ্চালনায় একটি সাক্ষাৎকার দেন বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ। সাক্ষাৎকারে সালাহউদ্দিন নিজের অবস্থানের কথা জানিয়ে বলেন, তিনি এখন ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলংয়ে অবস্থান করছেন।

মূলত, ২০১৫ সালের ১০ মার্চ রাজধানীর উত্তরা থেকে নিখোঁজ হন সালাহউদ্দিন আহমেদ। নিখোঁজের ৬৩ দিন পর ১১ মে ভারতের মেঘালয়ের শিলংয়ে স্থানীয় পুলিশ সালাহউদ্দিনকে উদ্ধার করে বলে জানা যায়। বৈধ কাগজপত্র ছাড়া ভারতে প্রবেশের অভিযোগে ফরেনার্স অ্যাক্ট অনুযায়ী তাকে গ্রেপ্তার দেখায় মেঘালয় থানা পুলিশ। একই বছরের ২২ জুলাই ভারতের নিম্ন আদালতে আনুষ্ঠানিকভাবে তার বিরুদ্ধে অনুপ্রবেশের দায়ে অভিযোগ গঠন করা হয়। ২০২৩ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি এ মামলায় তিনি শিলং জজ কোর্ট থেকে খালাস পান। পরবর্তীতে গত বছরের জুন মাসে ৮ বছর পর দেশে ফেরার জন্য তিন মাস মেয়াদের ট্রাভেল পাস পেয়েছিলেন সালাহউদ্দিন। কিন্তু, তিন মাস মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও নানা জটিলতায় প্রয়োজনীয় অনুমতি এবং কাগজপত্র না পাওয়ায় দেশে ফেরা হয়নি। এরইমধ্যে সম্প্রতি গ্রেফতারি মাথায় নিয়ে হঠাৎ দেশে ফিরলেন বিএনপি নেতা সালাউদ্দীন আহমেদ– শীর্ষক শিরোনামে এবং হঠাৎ দেশে ফিরলেন বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ ভয়ে হাসিনা– শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত দাবিটি মিথ্যা। প্রকৃতপক্ষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ দেশে ফেরেননি।  

সুতরাং, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ দেশে এসেছেন- শীর্ষক দাবিটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img