সাকিব আল হাসান ব্যাঙ্গার নামে কোনো মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নেননি

সম্প্রতি, বাংলাদেশের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে, তিনি ব্যাঙ্গার (Banger) নামে একটি মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন।  

Alpine Ascent নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে ৩৯ সেকেন্ডের প্রচারিত ভিডিওটিতে সাকিবকে পুরোটা সময়ই দেখা যায়। তার সদৃশ কন্ঠে বলতে শোনা যায়, “হ্যালো ভাই, আমি সাকিব আল হাসান, আমার কাছে আপনার জন্য উপহার আছে। বাংলাদেশে একটি নতুন সরকারি লাইসেন্স প্রাপ্ত মোবাইল ক্যাসিনো খোলা হয়েছে। Banger, এখন তারা নতুন খেলোয়াড় খুঁজছে এবং সে কারণেই তারা সবাইকে একটি বড় বোনাস দেয়। এটা খুব সহজ। অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করুন। এক মিনিটের মধ্যে নিবন্ধন করুন। একটি আমানতও করুন এবং আপনার ব্যালেন্সে ৩২ হাজার ৫০০ টাকা বোনাস পান। ভাই, আপনি গেম খেলতে পারেন এবং বড় উইন করতে পারেন। এখানে এক হাজারটিরও বেশি গেম রয়েছে। অথবা শুধু আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টে বোনাস তুলে নিন, এটা আপনার ব্যাপার৷ অ্যাপটি ডাউনলোড করুন এবং আমার সাথে খেলুন।”

সাকিব আল হাসান

উক্ত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই ভিডিওটি ফেসবুকে এডের মাধ্যমে প্রচার করছে পেজটি৷ মেটার এড লাইব্রেরির তথ্য বলছে, গত ১৯ ডিসেম্বর থেকে এ সংক্রান্ত অন্তত তিনটি পোস্ট এডের মাধ্যমে প্রচার করা হয়েছে। 

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সাকিব আল হাসান কর্তৃক ব্যাঙ্গার নামে কোনো মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নেওয়ার দাবিটি সঠিক নয় বরং নগদের একটি বিজ্ঞাপনে সাকিবের অংশ নেওয়ার ভিডিও ব্যবহার করে আর্থিক প্রতারণার উদ্দেশ্যে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে ভিডিওটির কিছু কি-ফ্রেম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে সাকিব আল হাসানের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে গত ০৮ জুন ‘নগদ’ কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে এখন থেকে শিক্ষাগত যোগ্যতার চেয়ে কাজের দক্ষতাকে বেশি গুরুত্ব দেবে। শীর্ষক শিরোনামের একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওতে সাকিবের পোশাক, ব্যাকগ্রাউন্ড এবং আনুষঙ্গিক বিষয়বস্তুর সাথে আলোচিত দাবিতে ছড়িয়ে পড়া  ভিডিওটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

তবে এই ভিডিওতে সাকিব ব্যাঙ্গার  (Banger) নামে কোনো অ্যাপ্লিকেশনের বিষয়ে কথা বলেননি। তাকে ভিডিওতে বাংলাদেশের ডিজিটাল আর্থিক পরিসেবা প্রতিষ্ঠান নগদ এর বিষয়ে কথা বলতে দেখা যায়। 

অর্থাৎ, ভিন্ন একটি ভিডিওতে সাকিবের কন্ঠস্বরে নকল কন্ঠস্বর বসিয়ে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। 

তাছাড়া, আলোচিত ভিডিওতে সাকিবের কথিত যে কন্ঠস্বর শোনা যাচ্ছে তার সাথে সাকিবের মূল কন্ঠস্বরের দৃশ্যমান মিল পাওয়া যায়নি। কথিত এই কন্ঠস্বরটি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা এআই প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। 

পরবর্তী অনুসন্ধানে Banger নামে কোনো মোবাইল ক্যাসিনোর সাথে সাকিবের সম্পৃক্ততার তথ্য গণমাধ্যম সূত্রে পাওয়া যায়নি। এই নাম ছাড়া সাকিবের সাথে অন্য কোনো ক্যাসিনো সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সম্পর্ক রয়েছে কিনা সে বিষয়টি অনুসন্ধানে গত নভেম্বরে প্রকাশিত গণমাধ্যম খবর থেকে জানা যায়, বাবু৮৮ (BABU88) নামে একটি অনলাইন ক্যাসিনো ও ক্রিকেট এক্সচেঞ্জ সাইটের বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে দেশ সেরা অলরাউন্ডারকে। এর আগে ২০২২ সালে অনলাইন জুয়া প্রতিষ্ঠান বেটউইনারের অঙ্গ সংগঠন বেটউইনার নিউজের সঙ্গে চুক্তি করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন সাকিব। পরে অবশ্য বিসিবির মুখে পরে সেই চুক্তি বাতিল করেন।

Alpine Ascent নামের যে পেজে আলোচিত ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছে সেটি ২০২১ সালের ০১ জুলাই খোলা হয় Abyy-Store নামে। পরের বছর নাম বদলে রাখা হয় Thuốc xoang đông y gia truyền। সর্বশেষ চলতি মাসে তৃতীয়বারের মতো নাম বদলে পেজটির নাম রাখা হয় Alpine Ascent। সর্বশেষ নাম পরিবর্তনের পর পেজের আগের কার্যক্রমও সরিয়ে ফেলা হয়েছে পেজ থেকে। 

পেজটি তিনটি দেশ (ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন এবং একটি দেশের নাম হাইড রাখা হয়েছে) থেকে পরিচালিত হচ্ছে। তবে বাংলাদেশ থেকে কেউ পরিচালনা করছে না৷ 

Screenshot: Facebook 

পেজটির ঠিকানা জার্মানির বার্লিন এবং যোগাযোগের জন্য জার্মানিরই একটি মোবাইল নাম্বার (+49 7684 5784) দেওয়া রয়েছে। আমরা উক্ত নাম্বারে যোগাযোগ করে সংযোগ বন্ধ পেয়েছি। 

মূলত, সম্প্রতি বাংলাদেশের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করে দাবি করা হচ্ছে, তিনি ব্যাঙ্গার (Banger) নামে একটি মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন। ৩৯ সেকেন্ডের ভিডিওতে এডের মাধ্যমে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে যাতে সাকিবের কথিত কন্ঠের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে টাকা উপার্জনে প্রলুব্ধ করা হচ্ছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সাকিব আল হাসান ব্যাঙ্গার নামে কোনো মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নেননি। বাংলাদেশের ডিজিটাল আর্থিক পরিসেবা প্রতিষ্ঠান নগদ এর একটি বিজ্ঞাপনে সাকিবের অংশ নেওয়ার ভিডিও ব্যবহার করে আর্থিক প্রতারণার উদ্দেশ্যে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে।  

প্রসঙ্গত, পূর্বে সাকিব আল হাসান অর্থ উপার্জনের অ্যাপ প্রকাশের ঘোষণা দিয়েছেন শীর্ষক একটি দাবি প্রচার করা হলে সে বিষয়ে ফ্যাক্টচেক প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। 

সুতরাং, সাকিব আল হাসান ব্যাঙ্গার মোবাইল ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপনে অংশ নিয়েছেন শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা৷

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img