অজ্ঞাত রোগাক্রান্ত শিশুর পুরোনো ছবিযুক্ত তথ্যে ভিন্ন নাম্বার যুক্ত করে আর্থিক প্রতারণা

সম্প্রতি “আপনারদের সমান্য সাহায্য মাধ্যমের বেঁচে যেতে পারে একটি এতিম শিশু। অনেক গরিব পরিবার। অনুরোধ করছি সবাই এগিয়ে আসেন” শীর্ষক শিরোনামে এক শিশুর কয়েকটি ছবি সংযুক্ত করে একটি মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানেএখানেএখানে এবং এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানেএখানেএখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আবদুল্লাহ নামে প্রচারিত ছবিগুলো সাম্প্রতিক সময়ে রোগাক্রান্ত কোনো শিশুর নয় বরং ছবিগুলো বিগত দুই বছর ধরে ইন্টারনেটে প্রচার হয়ে আসছে।

রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে, “academic-care” নামের ওয়েবসাইটে ২০২০ সালে ১৮ ফেব্রুয়ারিতে “অর্ণব তঞ্চঙ্গ্যার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত সংবাদে একই ছবিগুলো খুঁজে পাওয়া যায়। যেখানে যোগাযোগ ও সাহায্য পাঠানোর জন্য ০১৫৩২৭৪৬২৬৫, ০১৫৫৬৭৪০৯২৬ নাম্বার দুইটি উল্লেখ করা হয়েছে।

রোগাক্রান্ত
Screenshot academic-care website

এছাড়াও, “Barkal Upazila, Rangamati, Chittagong, Bangladesh” নামের ফেসবুক পেজ হতে একই বছরের ১৪ মার্চ “আপনার আঙ্গুলের চাপের একটি মাত্র পোষ্ট শেয়ারে মাধ্যমের বেঁচে যেতে পারে, একজন দরিদ্র পরিবারে সন্তান” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি পোস্টে একই ছবিগুলো খুঁজে পাওয়া যায় এবং সেখানে ঐ একই নাম্বার দুইটি সংযুক্ত করা হয়েছে।

তবে, ঐ সংবাদে এবং ফেসবুক পোস্টে উল্লিখিত ব্যক্তিগত (০১৫৩২৭৪৬২৬৫) নাম্বার ও বিকাশ(০১৫৫৬৭৪০৯২৬) নাম্বারে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি।

মূলত, ইন্টারনেট থেকে এই রোগাক্রান্ত শিশুর ছবি সংগ্রহ করে এর সাথে দেশীয় নাম, ঠিকানা ও বাবা মায়ের নাম ব্যবহার করে সম্প্রতি ভিন্ন বিকাশ নাম্বার যুক্ত করে সামাজিক মাধ্যমে আর্থিক সাহায্যের আবেদন প্রচার করা হচ্ছে। ছবিগুলোর প্রকৃত ঘটনা এবং প্রেক্ষাপট সম্পর্কে নিশ্চিত তথ্য ইন্টারনেটে খুঁজে না পাওয়া গেলেও এই বিষয়টি নিশ্চিত যে এটি সাম্প্রতিক সময়ের কোন শিশুর ছবি নয়।

এছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে মোঃ আব্দুল্লাহ নামে আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকৃত ফেসবুক পোস্টে উল্লিখিত বিকাশ (01765808698) নাম্বারে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

প্রসঙ্গত, রিউমর স্ক্যানার টিম পূর্বেও বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে আর্থিক সাহায্য চেয়ে করা পোস্টগুলোকে শনাক্ত করে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

অর্থাৎ, আর্থিক প্রতারণার উদ্দেশ্যে ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত পুরোনো ছবির এক রোগাক্রান্ত শিশুকে বর্তমানে মোঃ আব্দুল্লাহ নামের শিশু দাবি করে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং মিথ্যা।
[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: আপনারদের সমান্য সাহায্য মাধ্যমের বেঁচে যেতে পারে একটি এতিম শিশু
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Academic Care Blog: https://academic-care.blogspot.com/2020/02/blog-post_18.html
  2. Barkal Upazila, Rangamati, Chittagong, Bangladesh: https://www.facebook.com/BorholUpazila/posts/193822655369444
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img