বৃহস্পতিবার, মে 30, 2024
spot_img

রাশিয়ার ক্রিমিয়ান সেতুর ছবিকে পদ্মা সেতুর ছবি দাবিতে প্রচার 

সম্প্রতি, “এমন একটি স্থাপনার জন্যে বাংলাদেশ গর্ব করতেই পারে” শীর্ষক শিরোনামে একটি সেতুর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক 

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশের পদ্মা সেতুর ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটি পদ্মা সেতু বা বাংলাদেশের কোনো সেতুর ছবি নয় বরং এটি রাশিয়ার ক্রিমিয়ান সেতুর ছবি। (সংক্ষেপে: কের্চ স্ট্রেট ব্রিজ বা কের্চ ব্রিজ)

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, ‘promoteukraine’ নামের একটি ওয়েবসাইটে ২০২১ সালের ১ জুলাই এ “Putin Allows Russian Military to Block Kerch Strait” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনে একই ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot promoteukraine website

পরবর্তীতে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, আমেরিকান সংবাদমাধ্যম ‘washingtonpost’ এর ওয়েবসাইটে ২০১৮ সালের ১৫ মে “Putin’s bridge to Crimea illustrates his power — and his regime’s weak spot” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদনের বিস্তারিত অংশে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন কর্তৃক নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত ট্রাক চালানোর মাধ্যমে আলোচিত ক্রিমিয়ান সেতু (সংক্ষেপে: কের্চ স্ট্রেট ব্রিজ বা কের্চ ব্রিজ) উদ্বোধন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়। 

তাছাড়াও, আলোচিত ক্রিমিয়ান সেতু নিয়ে সে সময়ে অর্থাৎ ২০১৮ সালের মে মাসে ভিন্ন ভিন্ন শিরোনামে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘CNN’ এবং ‘Al Jazeera English’ এ সংবাদ প্রকাশিত হয়।

আরো পড়ুনঃ উদ্বোধনের আগে পদ্মা সেতুতে ফেরির ধাক্কা লাগার তথ্যটি মিথ্যা

এছাড়াও, বিষয়টি অধিক নিশ্চিতের জন্য গুগল ম্যাপে ‘গুগল স্ট্রিট ভিউ’ এ সার্চ করে রাশিয়ার ক্রিমিয়ান সেতুর সঙ্গে আলোচিত ছবির সেতুর পুরোপুরি মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

সেতু
Screenshot from Google Maps

মূলত, ২০১৬ সালে ক্রিমিয়ান উপদ্বীপের সাথে রাশিয়ার সরাসরি সহজ যোগাযোগের লক্ষে সেতুর কাজ শুরু হয় এবং ২০১৮ সালে তা উদ্বোধন করেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ক্রিমিয়ান সেতুর একটি ছবি ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করে তা সম্প্রতি নির্মিত বাংলাদেশের পদ্মা সেতুর ছবি দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

প্রসঙ্গত, আজ ২৫ জুন বহুল আলোচিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হয়েছে। ইতোমধ্যে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে উদ্বোধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে বাংলাদেশ সরকার। 

সুতরাং, রাশিয়ার ক্রিমিয়ান সেতুর একটি ছবি ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করে তা বাংলাদেশের পদ্মা সেতুর ছবি দাবি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img