মঙ্গলবার, জুলাই 23, 2024
spot_img

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ আবারও চুরি হওয়ার দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি, ‘আবারও বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি, থানায় থানায় হামলার আশঙ্কা প্রকাশ’ শীর্ষক শিরোনাম থাম্বনেইলে উল্লেখপূর্বক একটি ভিডিও ইউটিউবে প্রচার করা হয়েছে। 

Smart Bangla Viral নামে একটি চ্যানেল থেকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি দেখা হয়েছে ২০ হাজারেরও অধিক বার।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ আবারও চুরি হওয়ার দাবিটি সঠিক নয়। বরং, অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় চটকদার থাম্বনেইল ব্যবহার করে আলোচিত ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে ভিডিওটিতে কোথাও ‘আবারও বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি’ এর দাবি সম্পর্কিত সংবাদ ও সোর্স উপস্থাপন করা হয়নি। এমনকি ভিডিওটিতে আলোচিত দাবির সাথে প্রাসঙ্গিক কোনো তথ্যেরও উল্লেখ পাওয়া যায়নি। অর্থাৎ ভিডিওটি’র থাম্বনেইলে প্রচারিত দাবিটির সাথে বিস্তারিত অংশের অসামঞ্জস্যতা রয়েছে।

১৫ মিনিট ৫৫ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে একজন উপস্থাপককে সাম্প্রতিক বাংলাদেশ ব্যাংক নিয়ে শেয়ার বিজ, প্রথম আলো, সমকাল সহ বেশ কয়েকটি শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমের করা সংবাদের শিরোনাম পড়তে দেখা যায়। উপস্থাপক বারবার শেয়ার বিজের সংবাদ উল্লেখ করে তার নিজস্ব মত দিতে দেখা যায়। শিরোনামের পাশাপাশি উপস্থাপক আবারও বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি ও থানায় থানায় হামলার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। কিন্তু তিনি ভিডিওতে এই সংক্রান্ত কোনো সোর্স দেননি।

Screenshot: YouTube 

এছাড়াও, ভিডিওজুড়ে ব্যবহৃত ছবিগুলো উপস্থাপকের বক্তব্য ও দাবির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। 

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়।

মূলত, সাম্প্রতিক সময়ে Smart Bangla Viral নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রকাশিত এক ভিডিওতে আবারও বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি হয়েছে বলে দাবি করা হয়। কিন্তু রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সাম্প্রতিক সময়ে  বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

সুতরাং, আবারও বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি হয়েছে দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img