শনিবার, মে 18, 2024
spot_img

রুমিন ফারহানা কর্তৃক ১৪৪ ধারা ভেঙ্গে বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার ভিডিওটি পুরোনো

সম্প্রতি, “রুমিন ফারহানা ১৪৪ ধারা ভেঙ্গে বিএনপির সমাবেশে” শীর্ষক সহ বেশ কয়েকটি শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এবং ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

সামাজিক মাধ্যম ইউটিউবে প্রচারিত এমন একটি ভিডিও দেখুন এখানে। ভিডিওটির আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি প্রায় নয় মাস পূর্বের ধারণকৃত একটি ভিডিও।

ভিডিও’র বিষবস্তু থেকে কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গত ৮ জানুয়ারি ‘Selim Ahmed‘ নামের একজন ব্যবহারকারী কর্তৃক “রুমিন ফারহানা ১৪৪ ধারা ভেঙে বিএনপির সমাবেশে।যাওয়ার পথে পুলিশী বাধা” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত আলোচিত ভিডিওটি সংবলিত একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়।

পাশাপাশি, দেশীয় সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ডেইলি স্টার’ এর অনলাইন সংস্করণে (বাংলা) গত ৮ জানুয়ারি “১৪৪ ধারা আর কোথাও দিয়ে লাভ হবে না” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, শহরে ১৪৪ ধারা জারি থাকায় সদর উপজেলার নাটাই বটতলী বাজার এলাকায় বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামলের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

এছাড়াও, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গত ৮ জানুয়ারি ‘Meer Mosharraf Hossain’ নামের একজন ব্যবহারকারী কর্তৃক “দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৪৪ ধারা ভেঙে বিএনপি’র মহা সমাবেশে সাথে আছেন সংরক্ষিত আসনের এমপি ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানা” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত আরও একটি ভিডিও সংযুক্ত পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়।

মূলত, চলতি বছরের ৮ জানুয়ারিতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেওয়ার দাবিতে শহরের ফুলবাড়িয়া কনভেনশন সেন্টারের সামনে খোলা জায়গায় সমাবেশের আয়োজন করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপি। তবে একই স্থানে, একই সময়ে জেলা ছাত্রলীগও ছাত্র সমাবেশ আহ্বান করেছিল। এতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কায় পুরো ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকায় শনিবার (সমাবেশের দিন) সকাল ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছিল জেলা প্রশাসন। ১৪৪ ধারা জারি থাকায় সদর উপজেলার নাটাই বটতলী বাজার এলাকায় বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রসঙ্গত, রুমিন ফারহানা সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে ইতোপূর্বে আমাদের বেশ কয়েকটি ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন রয়েছে। প্রতিবেদনগুলো পাওয়া যাবে এই লিংকে। 

সুতরাং, প্রায় নয় মাস পূর্বের ধারণকৃত ভিডিওকে সাম্প্রতিক সময়ে রুমিন ফারহানা ১৪৪ ধারা ভেঙ্গে বিএনপির সমাবেশে যাওয়ার ভিডিও দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img