শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

বিটিআরসি চেয়ারম্যান ও র‍্যাব মুখপাত্রকে জড়িয়ে ক্যাসিনোর ভুয়া প্রচারণা

সম্প্রতি, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) বর্তমান চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈনের বক্তব্যের আলাদা আলাদা ভিডিও ফুটেজ ব্যবহার করে তারা Crazy Time Winner নামে একটি ক্যাসিনোর অ্যাপ্লিকেশনের প্রচারণা চালাচ্ছেন দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে। 

ক্যাসিনোর

Bangladesh Games নামের ফেসবুক পেজটি থেকে প্রকাশিত এই ভিডিও বিজ্ঞাপন আকারে প্রচার করা হচ্ছে। মেটার এড লাইব্রেরি থেকে ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাব কর্মকর্তা খন্দকার আল মঈন ক্যাসিনোর প্রচারণায় অংশ নেননি বরং আরটিভিতে তাদের সাক্ষাৎকারের পুরোনো ভিডিও ব্যবহার করে উক্ত দাবিটি প্রচার করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে বিটিআরসি চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাব কর্মকর্তা খন্দকার আল মঈনের ভিডিও ক্লিপগুলোর মূল সূত্র খুঁজে বের করেছে রিউমর স্ক্যানার। গেল বছরের ০৯ নভেম্বর আরটিভিতে অনলাইন জুয়া সংক্রান্ত একটি ভিডিও প্রতিবেদনে ফুটেজগুলোর সন্ধান মিলেছে। 

Screenshot collage: Rumor Scanner

অনলাইন জুয়ার এজেন্টরা তাদের প্রচারণার কাজে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের ব্যবহার করছে এমন তথ্য সামনে রেখে এই প্রতিবেদনে অন্যান্যদের সাথে এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) সে সময়ের ভাইস চেয়ারম্যান (বর্তমানে চেয়ারম্যান) মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈনের সাক্ষাৎকার নেয় আরটিভি। তবে এই দুজনের সাক্ষাৎকার বিশ্লেষণ করে Crazy Time Winner নামে কোনো ক্যাসিনোর অ্যাপ্লিকেশনের প্রচারণার তথ্য মেলেনি। তাদের এ সংক্রান্ত মূল বক্তব্যের অডিওর স্থলে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় ভুয়া অডিও যুক্ত করে দাবিটিকে বাস্তর রূপ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। 

Bangladesh Games নামের পেজটি থেকে ৪৪ সেকেন্ডের এই ভিডিও বিজ্ঞাপন আকারে প্রচার শুরু হয় গত ১৪ এপ্রিল, যার মেটা লাইব্রেরি আইডি 308186202303481। ২০২০ সালের ২৬ আগস্ট চালু করা এই পেজের নাম শুরু থেকেই Bangladesh Games ই ছিল। মেটার এড লাইব্রেরি জানাচ্ছে, আলোচিত ভিডিওটি ছাড়াও একই ক্যাসিনো অ্যাপের আরও অন্তত আটটি ভিডিও এই মুহূর্তে বিজ্ঞাপন আকারে চালানো হচ্ছে পেজটি থেকে। এগুলোর লাইব্রেরি আইডি যথাক্রমে 427972953212963, 1460187154573791, 442621475105138, 901842465028606, 378800375124555, 450831390630229, 915803403627869, 1172210244139033। এর মধ্যে আলোচিত ভিডিওটিরই আরেকটি কপি প্রচার করা শুরু হয় গত ০৭ এপ্রিল। এই পেজটির এড্রেস হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে থাইল্যান্ডের পাহাট্টালাং (Phatthalung) নামে একটি স্থানের নাম। পেজটিতে থাইল্যান্ডেরই একটি ফোন নম্বর (+66 92 590 4832) দেওয়া রয়েছে যাতে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে রিউমর স্ক্যানার৷ এই পেজে মৌলিক কোনো পোস্ট নেই। বায়োতে থাই ভাষায় যা লেখা রয়েছে তার বাংলা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, “আমদানিকৃত ফ্যাশন ব্যাগ, ভালো মানের, সাশ্রয়ী মূল্যে বিক্রি করা হয়৷” কিন্তু আদতে ক্যাসিনোর বিজ্ঞাপন দিয়ে পেজটি একটিভ রাখা হচ্ছে। 

মূলত, অনলাইন জুয়ার এজেন্টরা তাদের প্রচারণার কাজে কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের ব্যবহার করছে এমন তথ্য জানিয়ে গত বছরের ০৯ নভেম্বর আরটিভিতে একটি ভিডিও প্রতিবেদন প্রচার করা হয় যাতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) বর্তমান চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈনেরও সাক্ষাৎকারও ছিল। সম্প্রতি এই দুই কর্মকর্তার বক্তব্যের ভিডিও ব্যবহার করে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় তাতে ভিন্ন ভয়েসওভার এবং জুয়ার অ্যাপের প্রচারণার ভিডিও যুক্ত করে দাবি করা হচ্ছে, তারা Crazy Time Winner ক্যাসিনোর অ্যাপের প্রচারণা করছেন। প্রকৃতপক্ষে, তারা এমন কোনো ক্যাসিনো বা জুয়ার অ্যাপের প্রচারণায় অংশ নেননি।

সুতরাং, বিটিআরসি চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ ও র‍্যাব কর্মকর্তা খন্দকার মঈন ক্যাসিনোর প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন শীর্ষক দাবিটি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং এটি একটি স্ক্যাম বা প্রতারণা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img