ইমরান খানের ২০১৪ সালের ছবিকে সাম্প্রতিক গুলিবিদ্ধের ঘটনার দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি “পাকিস্তান ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ইমরান খান গু*লিবিদ্ধ” শীর্ষক শিরোনামের একটি ছবি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

গণমাধ্যমে উক্ত ছবি ব্যবহার করে প্রকাশিত কিছু প্রতিবেদন দেখুন – সময় নিউজ (আর্কাইভ), যমুনা টিভি (আর্কাইভ), এনটিভি (আর্কাইভ)।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সম্প্রতি ইমরান খানের গুলিবিদ্ধের ঘটনায় প্রচারিত ছবিটি একই ঘটনায় নয় বরং ছবিটি ২০১৪ সালের।

কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতির মাধ্যমে জাতীয় দৈনিক ‘প্রথম আলো’ পত্রিকায় ওয়েবসাইটে গত ০৩ নভেম্বর “স্ট্রেচারে ইমরান খানের যে ছবি ছড়িয়েছে, তা ২০১৪ সালের: ডন” শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, “পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। ওই ছবিতে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) দলের নেতা ইমরান খানকে স্ট্রেচারে শোয়া অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইমরান খানের ওই ছবি ২০১৪ সালের। ওই বছর ১৭ আগস্ট ইমরান খান নিজেই ছবিটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছিলেন।”

পরবর্তীতে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ‘DAWN’ এর ওয়েবসাইটে “Fact check: Imran Khan’s picture on stretcher is from 2014” শিরোনামে প্রতিবেদনটি খুঁজে পাওয়া যায়।

 ‘DAWN’ এর প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ইমরান খান ২০১৪ সালে আলোচিত ছবিটি শেয়ার করেছিলেন তার টুইটার অ্যাকাউন্টে

উক্ত তথ্যের সূত্র ধরে মাইক্রোব্লগিং সাইট ‘Twitter’ এ ২০১৪ সালের ১৭ আগস্ট প্রকাশিত মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। এই ছবির সাথে আলোচিত ছবিটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ছবির ইমরান খান লিখেছেন, “Night at the dharna.”।

মূলত, পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান গত ৩ নভেম্বর লংমার্চ কর্মসূচি চলাকালে পায়ে গুলিবিদ্ধ হন৷ এই ঘটনায় ২০১৪ সালে টুইটারে ইমরানের শেয়ার করা একটি ছবি উক্ত ঘটনার দাবিতে গণমাধ্যম ও ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান ২০১৮ থেকে ২০২২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি পাকিস্তানের রাজনৈতিক দল তেহরিক–ই–ইনসাফ (পিটিআই) এর প্রতিষ্ঠাতা।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দাবিতে করাচি থেকে রাজধানী ইসলামাবাদের উদ্দেশে গত ০৩ নভেম্বর লংমার্চ কর্মসূচি চলাকালে পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদ শহরের আল্লাহওয়ালা চক এলাকার কাছে ইমরান খানকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন এক ব্যক্তি। তার ডান পায়ে গুলি লেগেছে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন। ওই ঘটনায় পিটিআইয়ের আরও কয়েকজন নেতা আহত হন। ইমরান খান লাহোরের শওকত খানম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ০৪ নভেম্বর দল এবং পাঞ্জাব প্রাদেশিক সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ইমরানের অবস্থা ‘‘স্থিতিশীল এবং তিনি ভালো আছেন।”

সুতরাং, ইমরান খানের ২০১৪ সালের ছবিকে সাম্প্রতিক গুলিবিদ্ধের ঘটনার ছবি দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img