ওআইসির বরাতে বিশ্বে গড়ে প্রতিদিন ৮৫০০ জনের ইসলাম গ্রহণের দাবিটি মিথ্যা

বিগত কয়েক বছর ধরে “oic রিপোর্ট অনুযায়ী প্রতিদিন বিশ্বে গড়ে ৮৫০০ জন কালিমা পড়ে মুসলিম হচ্ছে” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার হয়ে আসছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, oic রিপোর্ট অনুযায়ী প্রতিদিন বিশ্বে গড়ে ৮৫০০ জন কালিমা পড়ে মুসলিম হওয়ার দাবিটি সত্য নয় বরং সংস্থাটি এ ধরনের কোনো রিপোর্ট প্রকাশ করে নি।

গুজবের সূত্রপাত

অনুসন্ধানে ফেসবুকে ২০১৯ সালের ২১ মার্চ ধূসর নামক একটি অ্যাকাউন্ট থেকে উক্ত দাবির একটি পোস্ট (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে, প্রচারিত পোস্টগুলোতে সূত্র হিসেবে দাবি করা ইসলামী সহযোগিতা সংস্থা’র (ওআইসি) ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে এ ধরণের কোনো তথ্য পাওয়া যায় নি।

তাছাড়া, ‘ওআইসি বা অন্য কোনো সংস্থা বিশ্বে ধর্মান্তারিত হয়ে প্রতিদিন মুসলিম গ্রহণের সংখ্যা নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে’ এমন কোনো তথ্য ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

অন্যদিকে, দেশীয় বা আন্তর্জাতিক কোনো সংবাদমাধ্যমেও ওআইসি এর উক্ত রিপোর্ট সংক্রান্ত কোনো সংবাদ প্রকাশের তথ্য খুঁজে পাওয়া যায় নি।

অধিকতর অনুসন্ধানে দেখা যায়, একই বছরের (২০১৯) ২৬ সেপ্টেম্বর প্রবাসী বাংলাদেশী নামক একটি গ্রুপে Durer Akash নামক অ্যাকাউন্ট একই দাবিসহ একটি ছবিযুক্ত পোস্ট (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

পোস্টে সংযুক্ত ছবিটি ২০১৮ সালের ৮ অক্টোবর জাতীয় দৈনিক ইনকিলাব এর প্রিন্ট সংস্করণে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের (ওয়েবসাইট নিউজ লিংক) ছবি। প্রতিবেদনটি মূলত যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গবেষণা সংস্থা পিউ রিসার্চ সেন্টার – পিআরসি (Pew Research Center – PRC) এর ইসলাম ধর্মের জনপ্রিয়তা বিষয়ে প্রকাশিত জরিপের ফলাফল নিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

Image source Daily Inqilab e-paper

প্রতিবেদনটির কোথাও ‘প্রতিদিন ৮৫০০ জনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ’ বিষয়ক কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায় নি। এই প্রতিবেদনের বরাতে যুক্তরাষ্ট্রের দুই সংবাদমাধ্যম সিএনএন এবং নিউজউইক‘কে সূত্র হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়, “১৯৯টি দেশের মধ্যে ২০১৫ সালের তথ্য বিশ্লেষণ করে গত মঙ্গলবার (অর্থাৎ ২ অক্টোবর ২০১৮) প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘পিউ রিসার্চ সেন্টার’- এর ধর্মীয় রূপরেখা বিষয়ক এক গবেষনায় এ কথা বলা হয়েছে।”

তবে ঐ সময়ে উক্ত দুই সংবাদমাধ্যমের কোনোটিতেই এ সংক্রান্ত কোনো প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় নি।

অনুসন্ধানে দেখা যায়, ২০১৭ সালের ৪ অক্টোবর নিউজউইক এ “Islam Is the Most Popular Official Religion, But Even More Countries Give Christianity Preferential Treatment” শীর্ষক শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এই প্রতিবেদনের সাথে ইনকিলাবের প্রতিবেদনটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from newsweek website

নিউজউইকের প্রতিবেদনটির সূত্র ধরে পিউ রিসার্চ সেন্টারের সে বছরের ৩ অক্টোবর (মঙ্গলবার) প্রকাশিত মূল প্রতিবেদনটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from pewresearch website

পিউ রিসার্চের প্রতিবেদনেও ‘প্রতিদিন ৮৫০০ জনের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ’ বিষয়ক কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায় নি।

সার্বিক বিষয়ে জানতে পিউ রিসার্চ সেন্টারের সাথে যোগাযোগ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। সংস্থাটির যোগাযোগ সহযোগী তালিয়া প্রাইস (Talia Price) রিউমর স্ক্যানারকে জানান, তারা ধর্মান্তরিত হয়ে বৈশ্বিকভাবে ইসলাম গ্রহণের কোনো তথ্য প্রকাশ করেন নি।

এছাড়া, এ বিষয়ে জানতে ওআইসি’র সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে রিউমর স্ক্যানার টিম। কিন্তু এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া পর্যন্ত সাড়া পাওয়া যায় নি।

মূলত, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীনভাবেই বিগত কয়েকবছর ধরে OIC এর বরাতে প্রতিদিন বিশ্বে গড়ে ৮৫০০ জন কালিমা পড়ে মুসলিম হওয়ার দাবিটি সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে যেখানে ওআইসি এ ধরণের কোনো রিপোর্ট-ই প্রকাশ করে নি।

সুতরাং, “oic রিপোর্ট অনুযায়ী প্রতিদিন বিশ্বে গড়ে ৮৫০০ জন কালিমা পড়ে মুসলিম হচ্ছে” শীর্ষক তথ্যটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img