শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

পিরোজপুরে কালবৈশাখী ঝড়ে ১১ কিংবা ৫ জন নয়, ২ জনের মৃত্যু হয়েছে

গত ৭ এপ্রিল আকস্মিক কালবৈশাখী ঝড়ে পিরোজপুরে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে কয়েকশ ঘরবাড়ি। এই ঝড়ের কবলে পিরোজপুর জেলায় মৃত্যুর সংখ্যা ফেসবুকে ভিন্ন ভিন্ন দাবি লক্ষ্য করেছে রিউমর স্ক্যানার। ফেসবুকে ভিন্ন ভিন্ন পোস্টে পিরোজপুরে ঝড়ে ১১ জন কিংবা ৫ জন মারা যাওয়ার পৃথক দাবি করা হয়েছে।

১১ জন নিহতের দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

৫ জন নিহতের দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ০৭ এপ্রিলের কালবৈশাখী ঝড়ে পিরোজপুর জেলায় ১১ জন কিংবা ৫ জনের মৃত্যু হয়নি বরং ঝড়ে এই জেলায় ২ জন নিহত এবং ১৪ জন আহত হয়েছেন।

অনুসন্ধানের শুরুতে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে মূলধারার সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টার এর ওয়েবসাইটে গতকাল (৭ এপ্রিল) “৬ জেলায় কালবৈশাখীতে ১১ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ১” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কালবৈশাখী ঝড় ও বজ্রপাতে ছয় জেলায় অন্তত ১১ জন নিহত ও দুজন নিখোঁজ হয়েছেন। এর মধ্যে পটুয়াখালীর বাউফলে তিন জন, ঝালকাঠিতে তিন জন, বাগেরহাটে একজন, পিরোজপুরে দুইজন, নেত্রকোণায় একজন ও খুলনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

একই তারিখে মূলধারার আরেক সংবাদমাধ্যম আজকের পত্রিকা এর ওয়েবসাইটে “হঠাৎ ঝড়ে ১০ ঘণ্টা বিদ্যুৎহীন পিরোজপুর, নিহত বেড়ে ২” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ০৭ এপ্রিল (রবিবার) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঝড় শুরু হওয়া ঘূর্ণিঝড়ে পিরোজপুরে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে কয়েকশ বাড়িঘর। ঝড়ের কবলে গাছচাপায় এক নারী ও গ্রামের খালে পড়ে গিয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। 

নিহতরা হলেন- রুবী বেগম (২২) ও অনিল পাল (৮০)।

একই তথ্যে সংবাদ প্রকাশ করেছে বাংলানিউজ২৪। 

পরবর্তীতে বিষয়টি অধিকতর যাচাইয়ের জন্য পিরোজপুর জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জাহেদুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করে রিউমর স্ক্যানার। তিনি বলেন, ঝড়ে দুইজন নিহত হয়েছেন, তাদের বাড়িতে গিয়ে আমরা সহযোগিতা করে এসেছি। এছাড়া ১৪ জন আহত হয়েছেন। এরমধ্যে একটি শিশুর অবস্থা একটু বেশি খারাপ হওয়ায় তাকে খুলনা পাঠানো হয়েছে। 

মূলত, গতকাল (০৭ এপ্রিল) পিরোজপুরসহ দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় কালবৈশাখী ঝড় ও বজ্রপাতে অন্তত ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। উক্ত ঝড়ের কবলে পিরোজপুর জেলায় ১১ জন ও ৫ জন নিহতের ভিন্ন দুইটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ঝড়ে পিরোজপুরে ১১ জন কিংবা ৫ জন নিহতের তথ্যটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে, এপ্রিলের কালবৈশাখী ঝড়ে পিরোজপুরে ২ জন নিহত এবং ১৪ জন আহত হয়েছেন। পিরোজপুর জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান বিষয়টি রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন। 

সুতরাং, পিরোজপুরে গত ০৭ এপ্রিল কালবৈশাখী ঝড়ে ২ জন মৃত্যু হলেও উক্ত ঘটনায় ১১ জন কিংবা ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img