ইসির এনআইডি উইংয়ের ওয়েবসাইটে টাকার পরিবর্তে রুপিতে ফি প্রদর্শনের গুজব

সম্প্রতি আলোচিত ব্লগার ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাক্টিভিস্ট পিনাকী ভট্টাচার্য বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের এনআইডি উইং ওয়েবসাইটের একটি স্ক্রিনশট ফেসবুকে পোস্ট (আর্কাইভ) করেছেন। উক্ত পোস্টের ক্যাপশনে তিনি দাবি করেন, “বাংলাদেশের জাতীয় পরিচয়পত্র নিতে গেলে ভারতীয় রুপিতে হিসাব দেখায়। তার মানে এই সাইট মেনটেইন করে ভারতীয় কোম্পানী। নাগরিকদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের এক্সেস ভারতের হাতে। আর এই কোম্পানী এতোই আনপ্রফেশনাল যে তারা জানেনা বাংলাদেশের কারেন্সি রুপি নয়।”

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ অবধি পোস্টটিতে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার প্রতিক্রিয়া পড়েছে এবং পাঁচশত এরও অধিক বার পোস্টটি শেয়ার হয়েছে।

পিনাকী ভট্টাচার্যের পোস্ট কপি-পেস্ট হয়েও বিষয়টি ফেসবুকে ছড়িয়েছে। এমন কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের এনআইডি উইংয়ের ওয়েবসাইট থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র নিতে গেলে কিংবা সংশোধন করতে গেলে ফি এর হিসাব ভারতীয় রুপিতে দেখানোর বিষয়টি সঠিক নয়, বরং বাংলাদেশি মুদ্রা টাকাতেই হিসাবের পরিমাণটি প্রদর্শিত হয়। উক্ত ওয়েবসাইটের বাংলা ও ইংরেজি উভয় সংস্করণেই ফি এর পরিমাণ টাকাতে দেখানো হয়।

নির্বাচন কমিশনের এনআইডি উইং এর ওয়েবসাইটের জাতীয় পরিচয়পত্র সেকশনের ‘ফিস’ নামক ট্যাবে গিয়ে পেজটি পর্যবেক্ষণ এবং বাংলা ও ইংরেজি উভয় সংস্করণে ফি কোন মুদ্রায় প্রদর্শিত হয় সেটি পরীক্ষা করে রিউমর স্ক্যানার টিম।

বাংলা ভাষা সংস্করণে আলোচিত পোস্টে সংযুক্ত স্ক্রিনশটের মতো অনুরূপভাবে তথ্য পূরণ করার পর হিসাব বাটনে চাপ দিলে ফি এর পরিমাণটি টাকাতেই দেখতে পাওয়া যায়। এসময় “জাতীয় পরিচয়পত্র ও অন্যান্য তথ্য সংশোধন এর জন্য সাধারণ স্মার্ট কার্ড ডেলিভারী ফি 345 টাকা” লেখা প্রদর্শিত হয়। অর্থাৎ, এখানে মুদ্রা হিসেবে বাংলাদেশের মুদ্রা টাকাতেই ফি এর পরিমাণ প্রদর্শিত হয়েছে। 

Screenshot : Rumor Scanner

যেহেতু আলোচিত পোস্টে সংযুক্ত স্ক্রিনশটটি ইংরেজি ভাষায়, তাই এবার ওয়েবসাইটের অফিশিয়াল ইংরেজি সংস্করণে ক্লিক করে ওয়েবসাইট ইংরেজি করে নিয়ে আগেরবারের মতো অনুরূপভাবে তথ্য পূরণ করে “Calculate” বাটনে ক্লিক করলে মুদ্রা হিসেবে ‘Taka’ ই দেখা যায়। এ সময় “Fee of Both NID and Other Info Correction application with Regular Smart Card delivery type is 345 BDT” লেখা প্রদর্শিত হয়। অর্থাৎ, এক্ষেত্রেও ফি এর পরিমাণ বাংলাদেশি মুদ্রা টাকাতেই প্রদর্শিত হয়েছে। 

এনআইডি পরিষেবার এ ওয়েবসাইটে রিউমর স্ক্যানারের একাধিক সদস্য ভিন্ন ভিন্ন ডিভাইস থেকে পরীক্ষাটি করে উভয় সংস্করণেই ফি এর হিসাব টাকাতেই পেয়েছে।

Screenshot : Rumor Scanner 

উক্ত পোস্টের পর মুদ্রা সংশোধন করা হয়েছে কিনা সেটি নিশ্চিত হওয়ার জন্য ওই ওয়েবসাইটে আগে থেকেই হিসাব টাকাতেই দেখানো হয় সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে রিউমর স্ক্যানার। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য ওপেন সোর্সে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার। অনুসন্ধানে ‘এনআইডি সংশোধন ফি’ এর ওপর বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলের বিভিন্ন সময়ে আপলোডকৃত বিভিন্ন ভিডিও পর্যবেক্ষণ করে ফি এর হিসাব টাকাতেই দেখতে পাওয়া গেছে। 

Collage : Rumor Scanner 

অর্থাৎ, উক্ত ওয়েবসাইটে আগে থেকেই সবসময় ফি এর হিসাব টাকাতেই দেখায়, রুপিতে নয়।

রিউমর স্ক্যানারের পরীক্ষায় উক্ত ওয়েবসাইটের বাংলা এবং ইংরেজি উভয় সংস্করণেই ফি টাকায় দেখালেও আলোচিত পোস্টে সংযুক্ত ছবিতে কেন রুপি দেখা যাচ্ছে– সে বিষয়টি নিয়েও জানার চেষ্টা করে রিউমর স্ক্যানার টিম। এ পর্যায়ে আলোচিত স্ক্রিনশটটি  ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে পেজের URL এর ডান পাশে গুগল ট্রান্সলেশন এর আইকন দেখতে পাওয়া যায়। এর ফলে উক্ত ওয়েবসাইটের বাংলা সংস্করণে ফি দেখতে গিয়ে গুগল ট্রান্সলেশনের সাহায্যে ইংরেজি করে উক্ত স্ক্রিনশটটি নেয়া হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হয়৷ (উল্লেখ্য, গুগল ট্রান্সলেটর টাকাকে ইংরেজি ভাষান্তরের ক্ষেত্রে রুপিতে ট্রান্সলেট করে থাকে।) তাই বিষয়টি আসলেই এমন ঘটেছে কিনা সে বিষয়টি পরীক্ষার জন্য বাংলা সংস্করণে উক্ত ওয়েবসাইটে পূর্বের মতো ফি বের করার পর ওয়েবপেজটি গুগল ট্রান্সলেটরের সাহায্যে ইংরেজিতে ট্রান্সলেট করা হয়। এ সময় দেখা যায় বাংলা সংস্করণে টাকা থাকার বিষয়টি গুগল ট্রান্সলেটর রুপিতে ট্রান্সলেট করেছে এবং এই লেখার সাথে পিনাকী ভট্টাচার্যের পোস্টকৃত স্ক্রিনশটের লেখার হুবহু মিল রয়েছে।

Comparison : Rumor Scanner

অপরদিকে গুগল ট্রান্সলেটরের সাহায্যে ট্রান্সলেট করে যে ইংরেজি পাওয়া যায় তার সাথে ওয়েবসাইটের অফিশিয়াল ইংরেজি ভাষার বাক্যের গঠনগত পার্থক্যও লক্ষ্য করা যায়। যেমন, গুগল ট্রান্সলেশন ব্যবহার করে ওই ওয়েবপেজকে ট্রান্সলেট করলে পাওয়া যায়–  “Normal smart card delivery fee for correction of national identity card and other information is Rs.345”

অপরদিকে ওয়েবসাইটের অফিশিয়াল ইংরেজি সংস্করণে ওই লেখা ইংরেজি “Fee of Both NID and Other Info Correction application with Regular Smart Card delivery type is 345 BDT” প্রদর্শিত হয়।

এছাড়াও, ওয়েবসাইটের অফিশিয়াল ইংরেজি সংস্করণে তথ্য পূরণের বক্সে Type of Application এ “Both NID and Other Info Correc…” এবং Type of Delivery এর স্থানে “Regular Smart Card” দেখালেও গুগলের মাধ্যমে ট্রান্সলেট করলে এক্ষেত্রে উক্ত বক্সদ্বয়ে যথাক্রমে “Correction of National Identi…” এবং “সাধারণ স্মাট কার্ড বা Common Smart Card” প্রদর্শিত হয়, যার সাথে অফিশিয়াল ইংরেজি সংস্করণের বাক্যের গঠনগত পার্থক্য রয়েছে। 

Comparison : Rumor Scanner

অর্থাৎ, এর মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যায় পিনাকী ভট্টাচার্যের পোস্টে সংযুক্ত স্ক্রিনশটটি মূলত উক্ত ওয়েবসাইটের বাংলা সংস্করণে ফি হিসাব বের করার পর ব্রাউজারের গুগল ট্রান্সলেটর ব্যবহার করে ইংরেজি করে তারপর নেওয়া একটি স্ক্রিনশট। এটি ওয়েবসাইটের অফিশিয়াল কোনো সংস্করণের রুপি দেখানোর স্ক্রিনশট নয়। 

বাংলা সংস্করণ ব্যবহার করে ফি বের করার পর গুগল ট্রান্সলেশনের মাধ্যমে ইংরেজিতে ট্রান্সলেট করায় গুগল ‘টাকা’ কে ‘রুপি’ হিসেবে অনুবাদ করেছে, ওই স্ক্রিনশটে রুপি ঠিক এ কারণেই দেখা যাচ্ছে। গুগল কেবল ‘টাকা’ কে (যেমন: ১০০ টাকা) সাধারণত রুপিতে ট্রান্সলেট করে থাকে। গুগলের টাকাকে ইংরেজিতে রুপি’তে ট্রান্সলেট করার বিষয়টিও পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া গেছে। “১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে মিষ্টি জান্নাতকে আইনি নোটিশ পাঠালেন তমা মির্জা” শিরোনামের আজকের পত্রিকার একটি প্রতিবেদনকে ব্রাউজারের গুগল ট্রান্সলেটর দ্বারা ট্রান্সলেট করলে এটি টাকাকে রুপি হিসেবে দেখায়।

Collage: Rumor Scanner

এছাড়াও, ১০০ টাকা লিখে গুগল ট্রান্সলেট করলে কিংবা পরিচয়পত্র সংশোধনের খরচ প্রদর্শনের ওই বাংলা লেখাটি কপি করে গুগল ট্রান্সলেটে দিলে সেখানেও টাকাকে রুপিতে ট্রান্সলেট করে গুগল।

Screenshot : Google Translator

তবে, কেবল টাকার পরিবর্তে বাংলাদেশি টাকা– অর্থাৎ নির্দিষ্টভাবে বাংলাদেশের মুদ্রার কথা উল্লেখ করলে সেক্ষেত্রে গুগল বাংলা ‘টাকা’ শব্দকে ‘Taka’ হিসেবেই অনুবাদ করে।  

Collage: Rumor Scanner

বিষয়টি নিয়ে নির্বাচন কমিশনের একজন পরিচালকের সাথেও কথা বলেছে রিউমর স্ক্যানার। উক্ত সাইটটি কারা বা কোথা থেকে নিয়ন্ত্রণ করা হয় সে বিষয়ে জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা রিউমর স্ক্যানারকে জানান– “সাইটটির নিয়ন্ত্রণ বাংলাদেশের ইলেকশন কমিশনের হাতেই৷ তবে, ইলেকশন কমিশনের আলাদা উইং আছে যারা NID এর বিষয় দেখাশোনা করে। বাংলাদেশ ইলেকশন কমিশনের অধীনে তারাই মূলত সাইটটা চালায়৷ মূলত নিয়ন্ত্রণ বাংলাদেশের কাছেই আছে।”

মূলত, জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য পরিবর্তন, সংশোধন, বা কার্ড রিইস্যুর সুবিধা প্রদানকারী নির্বাচন কমিশনের এনআইডি উইং ওয়েবসাইটের বাংলা ও ইংরেজি উভয় সংস্করণে ফি সবসময় টাকায় প্রদর্শিত হয়। তবে, ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া স্ক্রিনশটটিতে রুপিতে ফি দেখার কারণ মূলত গুগল ট্রান্সলেটরের ব্যবহার। গুগল ট্রান্সলেটর প্রায়শই ‘টাকা’ শব্দটি ‘রুপি’ হিসেবে অনুবাদ করে। যার ফলেই এই বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে।

সুতরাং, নির্বাচন কমিশনের জাতীয় পরিচয়পত্র উইং ওয়েবসাইটে ভারতীয় মুদ্রা রুপির অংকে ফি প্রদর্শিত হয় মর্মে প্রচারিত দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img