নিউজিল্যান্ডে সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের খবরে গণমাধ্যমে ভাঙা রাস্তার পুরোনো ছবি প্রচার

নিউজিল্যান্ডে গত ১৬ মার্চের ভূমিকম্পের ঘটনায় বাংলাদেশ ও ভারতের কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে একটি ভাঙা রাস্তার দুইটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। 

১ম ছবি –

বাংলাদেশের গণমাধ্যমে উক্ত ছবি ব্যবহার করে প্রতিবেদন দেখুন জনকণ্ঠ, নয়া দিগন্ত, একাত্তর টিভি, বিজয় টিভি (ফেসবুক), মানবকণ্ঠ, প্রতিদিনের সংবাদ (ফেসবুক)

একই ছবি ব্যবহার করে প্রকাশিত কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

২য় ছবি –

বাংলাদেশের গণমাধ্যমে উক্ত ছবি ব্যবহার করে প্রতিবেদন দেখুন জাগো নিউজ, শেয়ারবিজ, বৈশাখী টিভি, দৈনিক আজাদী, দেশ রূপান্তর, অর্থ সংবাদ, দৈনিক তৃতীয় মাত্রা, সংবাদ, অর্থসূচক

ভারতের গণমাধ্যমে উক্ত ছবি ব্যবহার করে প্রতিবেদন দেখুন পূর্বাঞ্চল প্রতিদিন। 

একই ছবি ব্যবহার করে প্রকাশিত কিছু ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ),  এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, নিউজিল্যান্ডের সাম্প্রতিক সময়ের ভূমিকম্পে ভাঙা রাস্তার দৃশ্য দাবিতে গণমাধ্যমে প্রচারিত দুইটি ছবি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর দেশটির অন্য এক ভূমিকম্পের ঘটনার ছবি।

১ম ছবির সূত্রের খোঁজ

রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে, ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম BBC এর ওয়েবসাইটে ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আলোচিত প্রথম ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, সেদিন (২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর) নিউজিল্যান্ডে ৭.৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। সাউথ আইল্যান্ড এর একটি হাইওয়ের রাস্তা এই ভূমিকম্পের ফলে ভেঙে যায়। 

Source: BBC

ছবিটির সূত্র হিসেবে বিবিসি রয়টার্সের নাম উল্লেখ করেছে। 

পরবর্তীতে একই ঘটনার বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স এর ২০১৬ সালের ১৬ নভেম্বর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। ছবিটি তুলেছেন অ্যান্থনি ফেলেপস।

Screenshot source: Reuters

২য় ছবির সূত্রের খোঁজ

গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ২য় ছবিটি রয়টার্সের একই প্রতিবেদনেই খুঁজে পেয়েছি আমরা। এটিও তুলেছেন অ্যান্থনি ফেলেপস। 

Screenshot source: Reuters

অর্থাৎ, আলোচিত দুইটি ছবিই ২০১৬ সালে নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্পের ছবি।

মূলত, ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর নিউজিল্যান্ডে আঘাত হানে শক্তিশালী এক ভূমিকম্প। এ ঘটনায় ভাঙা রাস্তার দুইটি ছবিকে সাম্প্রতিক সময়ে (১৬ মার্চ) দেশটির ভূমিকম্পের ছবি দাবি করে গণমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে। 

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া একাধিক ভূমিকম্পকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, ২০১৬ সালে নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্পের দুইটি ছবিকে সাম্প্রতিক সময়ে দেশটির ভূমিকম্পে ছবি দাবি করে গণমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img