শনিবার, জুলাই 13, 2024
spot_img

লেজ নিয়ে জন্মানো বাংলাদেশি শিশুর পুরোনো ছবি নেপালি বজরংবলি দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি, “জয় বজরংবলী , নেপালে জন্মানো বজরংবলী। এরকম দৃশ্য খুব কমই দেখা যায়। প্রণাম করে আশীর্বাদ নিন। এটি দেখার সৌভাগ্য সবার হয় না। এটি দেখার পর দয়া করে অবহেলা করে ফিরিয়ে দিবেন না ।” শীর্ষক তথ্য সম্বলিত একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

নেপাল

ফেসবুকে ভাইরাল এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানেএখানেএখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত ছবিগুলো নেপালের কোনো শিশুর নয় বরং এটি বাংলাদেশে লেজ সহ জন্ম নেয়া এক শিশুর পুরোনো ছবি এবং জন্মের পরে সেসময়ে অপারেশনের মাধ্যমে শিশুটির লেজ অপসারণ করা হয়েছিলো।

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, অনলাইন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম Bangladesh Times এ ২০১৯ সালের ১৪ জুনে ‘নোয়াখালীতে ১৬ সেন্টিমিটার লেজ নিয়ে শিশুর জন্ম!‘ শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায় যেখানে আলোচিত শিশুটির ছবি এবং একজন ডাক্তারের সাক্ষাৎকার সম্বলিত ভিডিও প্রতিবেদন সংযুক্ত রয়েছে।

Screenshot from Bangladesh Times website

পাশাপাশি, অনলাইন ভিত্তিক ইংরেজি সংবাদমাধ্যম ঢাকা ট্রিবিউন-এ একই ঘটনা নিয়ে প্রকাশিত একটি ইংরেজি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

জন্মানো
Screenshot from Dhaka Tribune website

মূলত, নোয়াখালীর সোনাইমুরিতে ১৬ সেন্টিমিটার লম্বা লেজ নিয়ে ২০১৯ সালের ৩০ মে একটি কন্যা শিশু জন্মগ্রহণ করে। পরবর্তীতে চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং ১১ জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পেডিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগের কন্সালটেন্ট ডা. নজরুল ইসলাম আকাশ অস্ত্রোপচার করে শিশুটির শরীর থেকে লেজটি সফলভাবে অপসারণ করেন।

সেসময়ে ডাক্তার নজরুল ইসলাম আকাশ অপারেশন সম্পন্ন করার পর লেজ যুক্ত শিশুটির কিছু ছবি ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট Akash Nazrul-এ প্রকাশ করেছিলেন। মূলত, ডা. নজরুল আকাশের সেই পোস্ট থেকে সংগৃহীত ছবি গুলোই বিভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার হয়ে আসছে এবং বর্তমানে নেপালে জন্মানো বজরংবলী দাবিতে পুনরায় প্রচার করা হচ্ছে।

তৎকালীন সময়ে সংবাদমাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে ডা. নজরুল ইসলাম আকাশ জানান, ‘কয়েকদিন আগে শিশুটির বিরল এই রোগের কথা জানতে পারি। আমার জানা মতে বাংলাদেশে এ রকম ঘটনার কোনো রিপোর্টিং করা হয়নি। এটা হচ্ছে হিউম্যান টেইল বা মানুষের লেজ। আর লেজটা সাইজে একটু বড়। প্রায় ১৫ বা ১৬ সেন্টিমিটার। এটাকে রিউনাল কল বা স্পাইডাল বাইফিডা অকাল্ডও বলা হয়। এটা ত্বকের সাথে সংযুক্ত। সেই ক্ষেত্রে এর চিকিৎসা খুব একটা জটিলতা সৃষ্টি করে না। আমরা সফলতার সঙ্গে এটির অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করেছি। বর্তমানে শিশুটি ভালো আছে। শিশুটিকে আমরা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখেছি। তার অন্য কোনো সমস্যা নেই। তাই শিশুটিকে ছুটি দিয়ে দিয়েছি।’

তিনি আরো জানান, ‘এ ধরনের রোগ মিলিয়ন বিলিয়নের মধ্যেও একজনের হলেও হতে পারে। সারা পৃথিবীতে তা হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০টা। আর পৃথিবীতে তো ছয়শত কোটি লোক আছে। এরমধ্যে রিপোর্টিং হচ্ছে ৫০ টির মতো, তাও ১৯৫০ সালের মাঝামাঝিতে। ভারতে কিছু আছে যারা অপারেশন করে না। সেখানে রিপোর্টিং করা আছে। তারা এটাকে দেবতার সঙ্গে মিলিয়ে ফেলেন।’

এছাড়া, সাম্প্রতিক সময়ে নেপালে লেজসহ শিশু জন্মগ্রহণ সংক্রান্ত কোন তথ্য ইন্টারনেটে খুঁজে পাওয়া যায় নি।

প্রসঙ্গত, মেডিক্যাল সাইন্সের পরিভাষায় এই ধরণের লেজকে ভেস্টিজিয়াল টেইল বলে। গর্ভাবস্থায় সকল মানব শিশুর ভ্রুনেই লেজ তৈরি হয়। ৩১-৩৫ দিন বয়সে এই লেজ সবচেয়ে বেশি বড় থাকে। পরে এই লেজ মিলিয়ে যায় এবং কক্কিকস নামক শক্ত হাড়ের তৈরি হয়।আমাদের মেরুদন্ডের একেবারে শেষ প্রান্তে অবস্থিত শক্ত ত্রিকোনাকার হাড়টাই হল কক্কিকস। জন্মগত ত্রুটির কারনে কখনো কখনো ভেস্টিজিয়াল টেইল বিলুপ্ত না হয়ে লেজ সহ শিশুর জন্ম হয়ে থাকে। তবে এমন হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

অর্থাৎ, লেজ নিয়ে জন্মানো এক বাংলাদেশি কন্যা শিশুর অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে লেজ অপসারণের সময়ে তোলা কিছু ছবি সাম্প্রতিক সময়ে নেপালে জন্ম নেয়া বজরংবলী বা হনুমান অবতার দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: নেপালে জন্মানো বজরংবলী
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Bangladesh Times: https://bangladeshtimes.com/details/6412/%E0%A6%A8%E0%A7%8B%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%96%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%80%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A7%A7%E0%A7%AC-%E0%A6%B8%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E2%80%98%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C%E2%80%99-%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A7%87-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%B6%E0%A7%81%E0%A6%B0-%E0%A6%9C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AE!#:~:text=%E0%A6%A8%E0%A7%8B%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE%E0%A6%96%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%80%E0%A6%B0%20%E0%A6%B8%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87%20%E0%A7%A7%E0%A7%AC%20%E0%A6%B8%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0%20%E0%A6%B2%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BE,’%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C%E0%A6%9F%E0%A6%BF’%20%E0%A6%85%E0%A6%AA%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A3%20%E0%A6%95%E0%A6%B0%E0%A6%BE%20%E0%A6%B9%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A7%87%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A5%A4&text=%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%82%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B6%E0%A7%87%20%E0%A6%8F%E0%A6%87%20%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A5%E0%A6%AE%20%E0%A6%8F%E0%A6%A4%20%E0%A6%AC%E0%A6%A1%E0%A6%BC%20’%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C%E0%A6%93%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE’%20%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%B6%E0%A7%81%E0%A6%B0%20%E0%A6%9C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%AE%20%E0%A6%B9%E0%A6%B2%E0%A7%8B%E0%A5%A4
  2. Dhaka Tribune: https://archive.dhakatribune.com/bangladesh/dhaka/2019/06/13/country-s-first-baby-born-with-a-tail
  3. Dr. Nazrul Akash FB post: https://www.facebook.com/100000262635471/posts/2500190673332996/
  4. YouTube: https://www.youtube.com/watch?v=1hiwze2bTY0
  5. Health Line: https://www.healthline.com/health/vestigial-tail#causes
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img