বৃহস্পতিবার, আগস্ট 18, 2022
spot_img

না, পাকিস্তানে ৫ টাকায় বাসমতি চাল বিক্রি হচ্ছেনা

“রমজান মাস উপলক্ষে পাকিস্তানে প্রতি কেজি বাসমতি চাল ৫ টাকায় ও সাড়ে ১২ টাকায় দেড় লিটার তেল পাওয়া যাবে” এই মর্মে একটি সংবাদ বাংলাদেশের মূলধারার কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয় এবং সূত্র হিসেবে জিও নিউজকে উল্লেখ করা হয়। ভাইরাল কিছু ফেসবুক পোস্টের আর্কাইভ সংস্করণ দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্ট চেক

জিও নিউজের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আসন্ন রমজান উপলক্ষ্যে পাকিস্তান সরকার নিয়ন্ত্রিত ইউটিলিটি স্টোরের মাধ্যমে বিক্রির জন্য একটি ভর্তুকি প্যাকেজ ঘোষণা করেছে যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩৫০ কোটি টাকার মতো।

জিও নিউজের প্রদত্ত তথ্য অনুযায়ী, ভর্তুকি দেওয়ার পর নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম হবে চিনি প্রতি কেজি – ৬৮ রুপি, ২০ কেজির আটার বস্তা – ৮০০ রুপি এবং ঘি এর দাম হবে ২০০ রুপি। বাংলাদেশি টাকায় যার মূল্য চিনি – ৩৮ টাকা, ২০ কেজি আটার বস্তা – ৪৩০ টাকা এবং ঘি – ১১০ টাকা প্রায়।

জিও নিউজের প্রতিবেদনে কিছু পণ্যের দাম উল্লেখ না করে শুধু কোন পণ্যে কত টাকা করে ভর্তুকি দেয়া হবে সেটা উল্লেখ রয়েছে। যেমনঃ প্রতি কেজি ভোজ্য তেলে ২০ রুপি (১১ টাকা), প্রতি কেজি ময়দায় ২০ রুপি (১১ টাকা) এবং প্রতি কেজি বাসমতি চালে ১০ রুপি (৬ টাকা)

উল্লেখ্য, এই মূল্যমান গুলো পণ্যের মূল্য নয় বরং এসকল পণ্যে সরকার কত পরিমাণ অর্থ ভর্তুকি দিবে তা উল্লেখ করা হয়েছে। অর্থাৎ, পাকিস্তানে বাসমতি চালের কেজি ৫ টাকা, তেল সাড়ে ১২ টাকা দাবী করে প্রচারিত সংবাদটি সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর এবং গুজব।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: পাকিস্তানে বাসমতি চালের কেজি ৫ টাকা, তেল সাড়ে ১২
  • Claimed By: Web Portal
  • Fact Check: Misleading

[/su_box]

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img