ভিডিওগুলো ঈদকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি ভারত থেকে বাংলাদেশে গরু আনার দৃশ্যের নয়

আগামী ১৭ জুন বাংলাদেশে পালিত হবে ঈদ উল আজহা। এরই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি দুইটি ভিডিও শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে। 

টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটিতে একটি দৃশ্য দেখিয়ে দাবি করা হচ্ছে, দৃশ্যটি ভারত থেকে বাংলাদেশে কোরবানির উদ্দেশ্যে আনা গরুর পালের দৃশ্য৷ 

টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশ হওয়া অবধি উক্ত ভিডিওটি ২১ লক্ষেরও অধিক বার দেখা হয়েছে এবং প্রায় ৭১ হাজারেরও অধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটিতে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে। 

অপরদিকে ফেসবুকে আরেকটি ভিডিও  একই দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফেসবুকে পোস্টকৃত উক্ত ভিডিওগুলো মোট ১৫ লক্ষেরও অধিক বার দেখা হয়েছে। তাছাড়া, ভিডিওগুলোতে প্রায় ৬ হাজারেরও অধিক পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে এবং ২১ হাজারেরও অধিক বার শেয়ার করা হয়েছে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি ভারত থেকে আসা গরুর দৃশ্যের নয় বরং দক্ষিণ আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ায় ধারণকৃত পুরোনো একটি ভিডিও। অপরদিকে ফেসবুক প্রচারিত ভিডিওটিও সাম্প্রতিক সময়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে গরু আনার দৃশ্যের নয়, বরং কয়েক বছর ধরেই উক্ত ভিডিওটি অনলাইনে বিদ্যমান আছে।

টিকটকে প্রচারিত ভিডিও যাচাই :

অনুসন্ধানের প্রাথমিক পর্যায়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ২০২৩ সালের ১৬ অক্টোবর ছবি ও ভিডিও শেয়ারিং সামাজিক নেটওয়ার্ক ইনস্টাগ্রামে Pajoy Tours নামের একটি ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে “Eastern plains, San Felipe. | Casanare, Colombia | Delve into the authenticity of the Eastern Llanos, where livestock is life. Discover the passion for the countryside and the legacy of tradition.” (স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভাষান্তরিত) শিরোনামে উক্ত ভিডিওটি পাওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওটিতে sabana_adentro নামের একটি অ্যাকাউন্টের ওয়াটার মার্ক পরিলক্ষিত হয়। পাশাপাশি ভিডিওটির ক্যাপশনেও উক্ত নামের একটি অ্যাকাউন্টকে ট্যাগ বা মেনশন করতে দেখা যায়। অতঃপর উক্ত ইউজার নামের অ্যাকাউন্টটি পর্যবেক্ষণ করলে ২০২৩ সালের ১২ সেপ্টেম্বর তারিখে “Winter flat work at the San Felipe yard” (স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভাষান্তরিত) শিরোনামে আলোচিত দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি পাওয়া যায়।

Comparison : Rumor Scanner

উক্ত ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টটি পর্যবেক্ষণ করে বেশকিছু গবাদিপশুর ছবি ও ভিডিও দেখতে পাওয়া যায়। তাছাড়া, উক্ত ভিডিওটিতে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ার Casanare নামক স্থানের উল্লেখ পাওয়া যায়৷ পাশাপাশি ক্যাপশনে San Felipe নামের একটি স্থানেরও উল্লেখ পাওয়া যায়। পরবর্তী অনুসন্ধানে জানা যায়, কলম্বিয়ায় ৩২টি ডিপার্টমেন্ট বা বিভাগ আছে যার মধ্যে প্রতিটিতে একজন গভর্নর এবং বিভাগীয় সমাবেশ বা অ্যাসেম্বলি আছে। উক্ত ৩২টি বিভাগের একটি বিভাগ হচ্ছে Casanare যার রাজধানী ইয়োপাল। তাছাড়া, উক্ত স্থানে স্যান ফিলিপি নামের একটি পল্লী বা স্থানেরও সন্ধান পাওয়া যায়। 

অর্থাৎ, ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের কিংবা বাংলাদেশে ধারণকৃত নয় বরং ভিডিওটি ২০২৩ সালে কলম্বিয়ার একটি স্থানে ধারণকৃত ভিডিও।

ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিও যাচাই:

ঈদ উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানির জন্য ভারত থেকে বন্যার মতো গরু ভেসে আসার দৃশ্য দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটির একাধিক কী-ফ্রেম নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চে উক্ত দাবিতে প্রচারিত বেশ কিছু ভিডিও ও ছবি পাওয়া যায়। ভিডিওটির সূত্রপাত জানা সম্ভব হয়নি তবে, ভিডিওটি কয়েক বছর ধরেই অনলাইনে বিদ্যমান আছে এবং ভিডিওটি সাম্প্রতিক সময়ের কিংবা আসন্ন ঈদ উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানির জন্য আনা গরুর দৃশ্যের নয়, উক্ত বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়। 

উক্ত ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র Voice of Assam নামের একটি এক্স (সাবেক টুইটার) অ্যাকাউন্টে গত ২০২৩ সালের ২৭ জুন তারিখে ব্রহ্মপুত্র নদী বেয়ে কোরবানির জন্য ভারত থেকে বাংলাদেশে গরু আনা হচ্ছে শীর্ষক দাবিতে পোস্ট হতে দেখা যায়। উক্ত এক্স পোস্টের তথ্যসূত্র হিসেবে বাংলাদেশি নানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অ্যাকাউন্ট দাবি করা হলেও পোস্টটির কমেন্টে উক্ত দাবিতে Manoj Goswami নামের একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ২০২৩ সালের ২৭ জুন পোস্টকৃত একটি পোস্ট পাওয়া যায়। উক্ত Manoj Goswami এর ফেসবুক অ্যাকাউন্ট পর্যবেক্ষণ করলে জানা যায় তিনি একজন ভারতীয় বাসিন্দা। 

তাছাড়া, একই দাবিতে ২০২২ সালের ৭ জুলাই ইউটিউবে “Mehedi Vlogs 420” নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিওটি পোস্ট হতে দেখা যায়। তবে, একাধিক উপায়ে অনুসন্ধান করেও ভিডিওটির মূল উৎস সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। মূল উৎস খুঁজে না পাওয়া যাওয়ায় আলোচিত ভিডিওটির প্রসঙ্গ সম্পর্কে জানা সম্ভব হয়নি। তবে, আলোচিত ভিডিওটি যে সাম্প্রতিক সময়ের কিংবা ২০২৩ সালেরও নয়, বরং তারও আগের এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়।

Comparison : Rumor Scanner

পরবর্তীতে বাংলাদেশে ভারত থেকে সাম্প্রতিক সময়ে গরু আসার বিষয়ে প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড সার্চ করে মূলধারার গণমাধ্যম চ্যানেল২৪ এর ইউটিউব চ্যানেলে  গত ১২ জুন প্রচারিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন পাওয়া যায়। যেখানে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারত থেকে গরু আসার ব্যাপারে সংবাদ প্রচার করা হয়। তবে, সংবাদটিতে ভিন্ন ফুটেজ ব্যবহার করা হয়। অর্থাৎ, সাম্প্রতিক সময়ে ভারত থেকে গরু আসার দাবিটির স্বপক্ষে প্রমাণ পাওয়া গেলেও আলোচিত দৃশ্যের ভিডিওটির স্বপক্ষে প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

মূলত, আলোচিত দাবিতে টিকটকে প্রচারিত ভিডিওটি আসন্ন ঈদ উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানি করার উদ্দেশ্যে ভারত থেকে বাংলাদেশে আনা গরুর দৃশ্য দাবিতে প্রচার করা হয়৷ কিন্তু, প্রকৃতপক্ষে আলোচিত ভিডিওটি ২০২৩ সালের এবং ভিডিওটি দক্ষিণ আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ায় ধারণকৃত। অপরদিকে একই দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত ভিডিওটির প্রসঙ্গ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া না গেলেও, উক্ত ভিডিওটিও আসন্ন ঈদ উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানি দেওয়ার উদ্দেশ্যে আনা সাম্প্রতিক সময়ে ধারণকৃত গরুর দৃশ্যের নয়, বরং ইন্টারনেটে অন্তত ২০২২ সাল থেকে ভিডিওটির অস্তিত্ব রয়েছে।

অর্থাৎ, পুরোনো ভিডিওকে আসন্ন ঈদ উল আজহা উপলক্ষ্যে কোরবানির উদ্দেশ্যে সাম্প্রতিক সময়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে গরু আনার দৃশ্য দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img