শনিবার, মে 18, 2024
spot_img

ভিডিওটি মেসির মাকে জড়িয়ে ধরার মুহূর্তের নয়

সম্প্রতি “বিশ্বকাপ জয়ের পর মেসির নিজ মাকে জড়িয়ে ধরার দৃশ্য” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

মেসির মা

একই দাবিতে দেশীয় মূলধারার গণমাধ্যম ঢাকাপোস্ট, সময় টিভি, জাগো নিউজ২৪, দৈনিক ইত্তেফাক, সমকাল, দেশ রুপান্তর এবং নিউজ২৪ সংবাদ প্রচার করেছে।

দেশীয় গণমাধ্যম ছাড়াও হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি, টাইমস নাও নিউজ, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সহ আরও অনেক ভারতীয় গণমাধ্যম উক্ত বিষয়ে সংবাদ প্রচার করেছে।

এমনকি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসির ক্রীড়া বিভাগ বিবিসি স্পোর্টও উক্ত বিষয় প্রচার করেছে। দেখুন এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ইউটিউবে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারী মেসির মা নন বরং তিনি আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের রাঁধুনি।

ভিডিওতে থাকা নারী যে মেসির মা নয় তা যেভাবে নিশ্চিত হলো

আলোচিত ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার পর রিউমর স্ক্যানারের ফেসবুক গ্রুপ এবং পেজে বিষয়টি যাচাইয়ের জন্য অসংখ্য ফ্যাক্ট-চেক রিকোয়েস্ট আসে। এর প্রেক্ষিতে অনুসন্ধান শুরু করে রিউমর স্ক্যানার টিম। প্রথম পর্যায়ে উক্ত ভিডিওর ভিন্ন কোণ থেকে ধারণ করা ভিন্ন কোনো ছবি বা ভিডিও খুঁজার প্রচেষ্টা চালায় রিউমর স্ক্যানার টিম। কিন্তু অনুসন্ধানে এমন কিছু খুঁজে না পাওয়া গেলে, ফিফা বিশ্বকাপ-২০২২ এর ফাইনালের দিন মেসির মা সেলিয়া মারিয়া কুচিত্তিনির বিভিন্ন ছবি খুঁজে সেগুলো বিশ্লেষণ করা হয়।

অনুসন্ধানের মাধ্যমে, ছবি শেয়ারিং এবং স্টোরেজ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান গেটি ইমেজেসের ওয়েবসাইটে ফিফা বিশ্বকাপ-২০২২ এর ফাইনলের দিন অর্থাৎ গত ১৮ ডিসেম্বর কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে বসে থাকা অবস্থায় মেসির মায়ের একটি ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot Source: Getty Images

ছবিটি লক্ষ্য করলে দেখা যায় তিনি আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের পার্পল কালারের Away জার্সি পরিধান করেছেন। কিন্তু আলোচিত ভিডিওটি লক্ষ্য করলে দেখা যায় ভিডিওটিতে থাকা নারী আর্জেন্টিনার আকাশী নীল-সাদা কালারের Home জার্সি পরিধান করেছেন।

স্টেডিয়ামের গ্যালারি ছাড়াও মাঠে নেমে নিজ পরিবারের সাথে শিরোপা জয় উদযাপনের সময়েও মেসির মা সেলিয়া মারিয়া কুচিত্তিনিকে পার্পল কালারের জার্সি পরিধান করে থাকতে দেখা যায়। এর প্রেক্ষিতে নিশ্চিত হওয়া যায় মেসির মা মাঠে নামার পূর্বে জার্সি পরিবর্তন করে আকাশী নীল-সাদা জার্সি পরেননি।

Image Source: Gulf Today

এছাড়া আলোচিত ভিডিওটি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করলে ভিডিওটিতে থাকা নারীর হাতে একটি ঘড়ি ও ট্যাটু লক্ষ্য করা যায়। তবে, বিশ্বকাপ ফাইনালের দিন মেসির মায়ের হাতে কোনো ঘড়ি দেখা যায়নি এবং মেসির মায়ের হাতে কোনো ট্যাটুও নেই।

অন্যদিকে গেটি ইমেজেসের ওয়েবসাইট থেকে প্রাপ্ত আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ নিয়ে উদযাপনের সময় ধারণকৃত একটি ছবিতে আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারীকে লক্ষ্য করা যায়। ছবিটি পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায় উক্ত নারী বিশ্বকাপ উদযাপনের সময়েও আর্জেন্টিনার আকাশী নীল-সাদা জার্সি পরিধান করে রয়েছেন।

Image Source: Getty Images

তাছাড়া অনুসন্ধানের মাধ্যমে বিশ্বকাপ ফাইনাকের দিন মেসির মা ও মেসির আলিঙ্গনের আসল ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

Image Source: ge globo
Image Source: The Sun

উপরোক্ত প্রমাণাদির ভিত্তিতে নিশ্চিত হওয়া যায় এটি মেসির মা সেলিয়া মারিয়া কুচিত্তিনি নন।

তবে ছবির নারী কে?

আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারী মেসির মা নয় নিশ্চিত হওয়ার পর উক্ত নারীর পরিচয় খুঁজে পেতে অনুসন্ধান শুরু করে রিউমর স্ক্যানার। অনুসন্ধানের শুরুতে ভারতীয় গণমাধ্যম Latestly এর একটি প্রতিবেদিন (আর্কাইভ ভার্সন) পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয় আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারী মেসির বন্ধু ও সাবেক আর্জেন্টাইন ফুটবলার সের্হিও কুন আগুয়েরোর মা। 

উক্ত সূত্র ধরে অনুসন্ধানের মাধ্যমে রিউমর স্ক্যানার টিম আগুয়েরোর টুইটারইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে তার মায়ের দুইটি ছবি খুঁজে পায়। ছবি দুইটিতে আগুয়েরোর মায়ের ডান ও বাম হাত স্পষ্টভাবেই দেখা যাচ্ছিলো কিন্তু হাত দুইটিতে আলোচিত নারীর হাতে থাকা উল্লিখিত ট্যাটুটি খুঁজে পাওয়া যায়না। এছাড়া বিশ্বকাপ ফাইনালের দিন লুসাইল স্টেডিয়ামে আগুয়েরোর মায়ের উপস্থিতির কোনো প্রমাণও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Images collected from Kun Agüero’s social media accounts.

ভিডিওতে থাকা নারী আগুয়েরোর মা নন নিশ্চিত হওয়ার পর পুনরায় বিভিন্ন উপায়ে অনুসন্ধান করে রিউমর স্ক্যানার। স্প্যানিশ ভাষায় কি-ওয়ার্ড সার্চ করে আর্জেন্টাইন অনলাইন গণমাধ্যম Infobae এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে নিশ্চিত করা হয় আলোচিত ভিডিওটিতে থাকা নারী আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস। প্রতিবেদন থেকে আরও জানা যায়, তিনি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সাথে প্রায় এক দশক ধরে কাজ করে যাচ্ছেন এবং তিনি দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। তিনি কোপা আমেরিকা-২০২১, লা ফিনালিসিমা এবং কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার প্রতিনিধি দলের অংশ ছিলেন। তিনি দলের দুই নারী প্রতিনিধির একজন। অন্যজন হলেন ভেরোনিকা মিলে, আর্জেন্টিনা দলের মার্কেটিং ম্যানেজার।

Screenshot of an automatically translated article published by Infobae

পরবর্তীতে একই বিষয় উল্লেখ করে আর্জেন্টিনার মূলধারার গণমধ্যম লা ন্যাসিয়ন, টিএন এবং ক্ল্যারিনের প্রকাশিত প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত সূত্র ধরে অনুসন্ধানের মাধ্যমে, Infobae এর ওয়েবসাইটে আরও একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা-২০২১ জয়ের পর ট্রফি সহ তোলা দলীয় ছবিতে রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস ছিলেন।

Screenshot of an automatically translated article published by Infobae

আরও অনুসন্ধান করে আর্জেন্টিনার গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্টিনেজের ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে গত ১৭ ডিসেম্বর প্রকাশিত একটি পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। পোস্টের ক্যাপশনে উল্লেখ করা হয় বিশ্বকাপ ফাইনালকে সামনে রেখে কাতারে শেষ ট্রেনিং সেশনের ছবি এটি। উক্ত ছবি ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় ছবিতে রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস আছেন। এবং তার হাতে একটি ঘড়িও লক্ষ্য করা যায়। ঘড়িটির সাথে আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারীর ঘড়ির সাদৃশ্যতা লক্ষ্য করা যায়। এছাড়া রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস এর সাথে আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারীর শারীরিক গঠনের মিলও লক্ষ্য করা যায়।

Image Comparison

অর্থাৎ, আর্জেন্টিনার একাধিক গণমাধ্যম এবং রিউমর স্ক্যানারের নিজিস্ব অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে নিশ্চিত হওয়া যায় আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারী আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস।

মূলত, আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের পর মাঠে মাকে মেসির জড়িয়ে ধরার দৃশ্য দাবিতে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। তবে প্রকৃতপক্ষে ভিডিওটিতে থাকা নারী মেসির মা নন। বিশ্বকাপ ফাইনালের পুরো দিন মেসির মা আর্জেন্টিনার পার্পল কালারের জার্সি পরে ছিলেন, কিন্তু ভিডিওটিতে থাকা নারী আকাশী নীল জার্সি পরে ছিলেন। তাছাড়া ওই নারীর হাতে একটি ট্যাটু থাকলেও মেসির মায়ের হাতে কোনো ট্যাটু নেই। এছাড়াও, আর্জেন্টিনার একাধিক মূলধারার গণমাধ্যম নিশ্চিত করেছে যে ভিডিওতে থাকা নারী আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল দলের রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস। এছাড়া রিউমর স্ক্যানার টিমের নিজিস্ব অনুসন্ধানেও নিশ্চিত হয় ভিডিওতে থাকা নারী অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস।

প্রসঙ্গত, কাতার ফুটবল বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে একাধিক গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জয়ের পর দলটির রাঁধুনি অ্যান্টোনিয়া ফারিয়াস কর্তৃক মেসিকে আলিঙ্গনের দৃশ্যকে মেসি ও মেসির মায়ের আলিঙ্গনে দৃশ্য দাবিতে ইন্টারনেট ছড়িয়ে পড়েছে; যা মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img