কাতারে সমকামিতা অবৈধের কারণে সুযোগ পেয়েও কাভাল্লোর বিশ্বকাপ না খেলার দাবিটি মিথ্যা

সম্প্রতি গত ১৫ অক্টোবর “কাতারে সমকামিতা অবৈধ বলে বিশ্বকাপ খেলবেন না কাভাল্লো” শীর্ষক শিরনামে মূলধারার গণমাধ্যম যমুনা টিভি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে যা বলা হয়েছে

প্রতিবেদনে সমকামীদের পাশে দাঁড়ানো সংস্থাগুলোর মধ্যে অন্যতম সংস্থা অ্যাটিট্যুডের সমকামী প্রভাবশালী ব্যক্তিদের বার্ষিক পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এ বছরের ম্যান অফ দ্য ইয়ারের অ্যাওয়ার্ড জয়ী জশ কাভাল্লোর উক্ত অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্য তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিবেদনটির শেষের দিকে কাতারে সমকামীতা নিষিদ্ধের কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, “বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে ডাক পেয়েছিলেন জশ কাভাল্লো। কিন্তু তিনি কাতারের মতো দেশে ফুটবল খেলতে চান না, এমন মন্তব্যে সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন।”

যমুনা টিভির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত উক্ত প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে
যমুনা টিভির পর একই বিষয়ে আমার সংবাদ,বিডি২৪রিপোর্ট, ডেইলি একাত্তর, ইন্ডিপেন্ডেন্ট নিউজ সহ বেশ কিছু পোর্টালে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

একই তথ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। 

কাভাল্লো

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

যমুনা টেলিভিশনের ইউটিউবে উক্ত বিষয় নিয়ে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে জানা যায়, কাতারে সমকামীতা অবৈধ থাকার কারণে সুযোগ পেয়েও জশ কাভাল্লোর বিশ্বকাপ না খেলার দাবিটি সত্য নয় বরং তিনি এখন অবদি অস্ট্রেলিয়ার সিনিয়র দলের হয়ে খেলার ডাক পায়নি। দেশের হয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ২০১৯ সালে এক ম্যাচে খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন। এছাড়া আসন্ন বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়া এখনো চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেনি।

কি বলেছেন জশ কাভাল্লো?

কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের ওয়েবসাইটে গত ১৩ অক্টোবর “LGBT safety should be considered in awarding hosting rights: Cavallo” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদনে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবলার জশ কাভাল্লোর বক্তব্যে খুঁজে পাওয়া যায়। বক্তব্যে তিনি কাতার বিশ্বকাপ ও সমকামীতা সম্পর্কে বলেন,

“আমি কাতারে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপে সমকামী অ্যাথলেট ও সমর্থকদের পাশে আছি, যারা খোলাখুলি ও প্রকৃতভাবে বাঁচতে পারেনা। কাতার, ফিফা বিশ্ব আপনাদের দেখছে, আপনারা কি আমাদের দেখেন?”

তিনি আরো বলেন, “আমি ক্রীড়া নেতাদের অনুরোধ করছি, বিশ্বকাপ এবং অন্যান্য প্রতিযোগিতার জন্য আয়োজক দেশ বেছে নেওয়ার সময় আমাদের (সমকামীদের) অধিকার এবং সুরক্ষার কথা বিবেচনা করার জন্য। আমাদের অবশ্যই আরো ভালো করতে হবে।”

রয়টার্সের উক্ত প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়েনের “Gay footballer Josh Cavallo would be ‘scared’ to play at World Cup in Qatar” শীর্ষক শিরোনামের একটি প্রতিবেদন সংযুক্ত করা হয়। ২০২১ সালের ০৭ নভেম্বর ‘Guardian’s daily news podcast’-এ জশ কাভাল্লোর বক্তব্যর বিষয়বস্তু নিয়ে প্রকাশিত উক্ত প্রতিবেদনে কাতারে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপে কাভাল্লোকে অংশগ্রহণ করতে বলা হলে সে অংশগ্রহণ করবে কি-না এমন প্রসঙ্গে কাভাল্লো বলেন, “আমি পড়েছি কাতারে সমকামীদের মৃত্যুদন্ড দেয়, এটি এমন কিছু যা আমি ভয় পাই এবং এজন্য আমি কাতার যেতে চাই না।”

পরবর্তীতে, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন এর ওয়েবসাইটে ২০২১ সালের ৩০ নভেম্বর, কাতার বিশ্বকাপকে ঘিরে বিভিন্ন মানবাধিকার উদ্বেগের বিষয়বস্তু নিয়ে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। উক্ত প্রতিবেদনে জোশ কাভাল্লোর উল্লিখিত উদ্বেগের প্রতিক্রিয়ায় কাতার বিশ্বকাপের প্রধান নির্বাহী নাসের আল খাতারের একটি বক্তব্য খুঁজে পাওয়া যায়। নাসের বলেন, আমরা কাতারে তাকে স্বাগত জানাই, এমনকি বিশ্বকাপের আগেও এসে দেখার জন্য। এখানে (কাতারে) কেউ হুমকি ও অনিরাপদ বোধ করে না।”

২০২১ সালে কাতার বিশ্বকাপের প্রধান নির্বাহী নাসের আল খাতারের উক্ত বক্তব্যের পরবর্তী সময় এববছরের (২০২২) ৩০ জুন স্পোর্টস বিষয়ক গণমধ্যম স্কাই স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিশ্বকাপে সুযোগ পেলে খেলবেন কি-না প্রসঙ্গে জশ কাভাল্লো জানান, তিনি অবশ্যই বিশ্বকাপ খেলতে চান। এটা তার জন্য সম্মানসূচক হবে এবং তিনি বিশ্বকাপে খেলার জন্য চেষ্টা করছেন। দেশের হয়ে বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন তিনি সব সময়ই দেখেছেন কিন্তু কাতারে সমকামীদের জন্য কঠোর আইনের কারণে তিনি নিজের জীবনের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। 

জশ কাভাল্লো কি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছেন?

জনপ্রিয় ফুটবল সংক্রান্ত ওয়েবসাইট ট্রান্সফারমার্কেটের তথ্য মতে, জশ কাভাল্লো নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়ার  হয়ে শুধুমাত্র অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ২০১৮ সালে একটি ম্যাচের ১৮ মিনিট খেলেছেন। ফুটবলের পরিসংখ্যান সংক্রান্ত অ্যাপ ফটমবের ওয়েবসাইটেও একই তথ্য পাওয়া গিয়েছে। 

তাকে নিয়ে প্রকাশিত বেশ কিছু প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে সে এখনো দেশের সিনিয়র দলে খেলার জন্য ডাক পায়নি। অন্যদিকে ফুটবল বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়া এখনো চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেনি। এছাড়া বিশ্বকাপকে সামনে রেখে প্রাক-বিশ্বকাপ ফ্রেন্ডলি ম্যাচগুলোতেও ডাক পায়নি জশ কাভাল্লো।

মূলত, অস্ট্রেলিয়ার সমকামী ফুটবলার জশ কাভাল্লো কাতার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেলে খেলবেন কি-না এমন প্রশ্নের বিভিন্ন সময়ে দেওয়া উত্তরে কাতারের সমকামিতার জন্য কঠোর আইনের ফলে সেখানে নিজের জীবন সংশয়ের উদ্বেগ ব্যক্ত করেছেন। তবে ২২ বছর বয়সী এই ফুটবলার নিজ দেশের হয়ে শুধুমাত্র অনূর্ধ্ব-১৯ দলে ২০১৮ সালে একটি ম্যাচের ১৮ মিনিট খেলেছেন এবং এখন অবদি সিনিয়র দলে ডাক পায়নি। তাছাড়া আসন্ন কাতার বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়া এখনো চূড়ান্ত দল ঘোষণা করেনি। কিন্তু “জশ কাভাল্লো অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে ডাক পেয়েও কাতারে সমকামীতা অবৈধ থাকার কারণে সেখানে বিশ্বকাপ খেলতে চান না” শীর্ষক একটি দাবি গণমাধ্যম ও ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

Also Read: হ্যাল‍্যান্ড মেসির চেয়ে ভালো হতে পারে শীর্ষক মন্তব্য করেননি সার্জিও আগুয়েরো

উল্লেখ্য, গতবছর জশ কাভাল্লো সমকামি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। তিনি অ্যাডিলেড ইউনাইটেডে নামে একটি অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল ক্লাবের হয়ে খেলেন।

সুতরাং, “জশ কাভাল্লো অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলে ডাক পেয়েও কাতারে সমকামীতা অবৈধ থাকার কারণে বিশ্বকাপ খেলতে চান না” শীর্ষক দাবিটি মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img