কাতার বিশ্বকাপের মাঠে আগুনের দৃশ্য দাবিতে ৪ বছর পুরোনো ভিডিও প্রচার

সম্প্রতি, “বিশ্বকাপ খেলার মাঠে ভয়াবহ আগুন!! আগুনের ভয়াবহতা বেড়ে ভয়ংকর আকার ধারণ, কাতার জুড়ে রেট এলার্ট।” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এবং ইউটিউবে প্রচার করা হয়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ইউটিউবে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে
ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ‘বিশ্বকাপ খেলার মাঠে আগুনের দৃশ্য, কাতার জুড়ে রেড এলার্ট’ শীর্ষক দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি ফিফা বিশ্বকাপ-২০২২ এর আসরে কাতারের স্টেডিয়ামে আগুনের দৃশ্য নয় বরং এটি ২০১৮ সালে বুন্দেসলিগার দল হামবুর্গের বুন্দেসলিগা থেকে রেলিগেশন নিশ্চিত হলে তাদের সমর্থক কর্তৃক উগ্রতা এবং রাগ প্রদর্শন সূচক মাঠে আগুনের শিখা নিক্ষেপের ঘটনায় ধারণকৃত ভিডিও।

ভিডিওটির কিছু স্থিরচিত্র রিভার্স সার্চের মাধ্যমে, ‘4S-TV’ নামক একটি ভেরিফাইড ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৮ সালের ১৩ মে “Hamburger SV – Borussia Mönchengladbach | Pyro-Riot & Game Interruption | 12.05.2018” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত অনুরূপ একই ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়।

ভিডিও থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে, ‘ESPN’ এর ওয়েবসাইটে একই তারিখে অর্থাৎ ২০১৮ সালের ১৩ মে “Hamburg’s historic first relegation sees fans throw flares on pitch to protest” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১২ মে প্রথমবারের মতো বুন্দেসলিগা থেকে বহিষ্কৃত (রেলিগেশন) হওয়ায় হামবুর্গের সমর্থকরা ক্রোধে জ্বলে উঠেছেন এবং তারা রাগ প্রদর্শন সূচক মাঠে আগুনের শিখা ছুড়ে মেরেছে।

একই তথ্য সম্বলিত প্রতিবেদন, ২০১৮ সালের ১২ মে তারিখে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম USA Today, Daily Mail, The Telegraph, Sky Sports প্রকাশ করেছে।

মূলত, ২০১৮ সালের মে মাসে হামবুর্গের এসভি বুন্দেসলিগা থেকে বহিষ্কৃত (রেলিগেশন) হয়েছিলো। সে সময়ে হামবুর্গের সমর্থকরা ব্যাপক ক্রোধে জ্বলে উঠেছিলেন এবং তারা ক্ষোভের প্রতিক্রিয়া স্বরূপ মাঠে আগুনের শিখা ছুড়ে মেরেছিলেন। ৪ বছরের বেশি সময় পূর্বে হামবুর্গের সমর্থকদের কর্তৃক মাঠে অগ্নি শিখা নিক্ষেপের সময়ে ধারণ করা একটি ভিডিও সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ এ ‘কাতারের মাঠে আগুনের দৃশ্য, কাতার জুড়ে রেড এলার্ট’ শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, কাতারে অনুষ্ঠিত ‘বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২’ এর আসরে মাঠে আগুন বা বিশৃঙ্খলা এবং কাতারে রেড এলার্ট সংবাদ শীর্ষক কোনো তথ্য নির্ভরযোগ্য দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, কাতারে অনুষ্ঠিত ফিফা বিশ্বকাপ-২০২২ কে ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন ভূয়া তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে, বেশ কয়েকটি ভুয়া তথ্য নিয়ে বিস্তারিত ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম।

সুতরাং, ৪ বছরের বেশি সময় পূর্বে অর্থাৎ, ২০১৮ সালের মে মাসে হামবুর্গের এসভি বুন্দেসলিগা থেকে বহিষ্কৃত (রেলিগেশন) হওয়ার পর হামবুর্গের সমর্থকদের ক্ষোভের প্রতিক্রিয়া স্বরূপ মাঠে আগুনের শিখা নিক্ষেপের ঘটনায় ধারণ করা একটি ভিডিওকে সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ এ ‘কাতারের মাঠে আগুনের দৃশ্য, কাতার জুড়ে রেড এলার্ট’ শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এবং ইউটিউবে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img