বুধবার, মে 22, 2024
spot_img

পেপসির মোড়কে বিয়ারের ক্যানের ছবিটি কাতারের নয়

সম্প্রতি “Fans smuggling beer into Qatar” শীর্ষক শিরোনামের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রচারিত ছবিটি ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে দর্শকদের কোমল পানীয় এর ছদ্মবেশে বিয়ারের ক্যান পাচারের নয় বরং ২০১৫ সালে সৌদি আরবে পেপসি ক্যানের মোড়কের আড়ালে বিয়ারের ক্যান পাচারকালে পুলিশের হাতে জব্দ হওয়ার ছবি এটি।

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘BBC’ এর ওয়েবসাইটে ২০১৫ সালের ১২ নভেম্বর “Police in Saudi Arabia stop smugglers with cans of beer disguised as Pepsi” শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনের ফিচার ইমেজের সাথে আলোচিত ছবিটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, পেপসির মোড়কের (label) আড়ালে ৪৮ হাজার বিয়ারের ক্যান দেশে ঢোকার মুখে আটক করে সৌদি আরবের কাস্টমস দপ্তর। আল-বাথা সীমান্তের কাছে এই অবৈধ বিয়ারের ক্যানগুলো আটক করা হয়। বিয়ার নিয়ে যাওয়ার অপরাধে প্রত্যেকটি ট্রাক, তাদের চালক ও খালাসিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সৌদি আরবে মদ্যপান বা এ ধরনের কোনও পানীয় রাখা কঠোর অপরাধ বলে গণ্য করা হয়। চেকিংয়ের দায়িত্বে থাকা অফিসাররা সব ক’টি প্যাকেজিং পরীক্ষা করে দেখছিলেন। এদের মধ্যে এক অফিসারের সন্দেহ হয়, যে বাক্সের মধ্যে থাকা পেপসি নকল হতে পারে। সেই মতো একটি বক্স-কাটার দিয়ে বাক্স কাটতেই একটি ক্যানের ওপর থেকে খানিকটা লেবেল উঠে যায়। পরে সেই লেবেলটি টেনে ছিঁড়তেই পেপসির লেভেলের আড়াল থেকে বিয়ারের লেভেল বেরিয়ে আসে৷ 

পরবর্তীতে বিবিসির উক্ত প্রতিবেদনের ফিচার ইমেজের ছবির সূত্র হিসেবে উল্লিখিত সৌদি আরব ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ‘AL ARABIYA’ এর ওয়েবসাইটেও আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

মূলত, ২০১৫ সালে সৌদি আরবের পুলিশ দেশটির সীমান্ত এলাকা থেকে পেপসির মোড়কে ৪৮,০০০ হেইনকেন (Heineken) বিয়ারের ক্যান জব্দ করে। সেসময়ের ক্যান জব্দের একটি ছবিকে সম্প্রতি ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে দর্শকদের কোমল পানীয় এর ছদ্মবেশে বিয়ারের ক্যান পাচারের ছবি দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।  

উল্লেখ্য, চলমান কাতার বিশ্বকাপের সবগুলো স্টেডিয়ামে সাধারণ দর্শকদের কাছে বিয়ার বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে ‘স্টেডিয়ামের মধ্যে কিছু নির্বাচিত এলাকায়’ পাওয়া যাবে বিয়ার ফিফার ফ্যান জোন, কিছু প্রাইভেট ফ্যান জোন এবং ৩৫টি হোটেল ও রেস্টুরেন্টে পাওয়া যাবে বিয়ার সুবিধা। এছাড়া, স্টেডিয়ামের কর্পোরেট এলাকাতেও থাকবে বিয়ার কেনাবেচার সুযোগ।

প্রসঙ্গত, চলমান কাতার বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে একাধিকবার গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।  

সুতরাং, ২০১৫ সালে সৌদি আরবে পেপসি ক্যানের ছদ্মবেশে বিয়ারের ক্যান পাচারকালে পুলিশের হাতে জব্দ হওয়ার ছবিকে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে দর্শকদের কোমল পানীয় এর ছদ্মবেশে বিয়ারের ক্যান পাচারের ছবি দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img