প্রথম আলো নিয়ে হিরো আলমের নামে ফেসবুকে ভুয়া বক্তব্য প্রচার

সম্প্রতি, “প্রথম আলো আমার মত একজন হিরো আলমকে সৃষ্টি করেছে। মতি ভাই আমাকে গুরুত্ব দিয়ে সম্পাদকীয়-উপসম্পাদকীয় লিখছে। আর এই কারণে সরকার প্রথম আলোর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। ইন্দন যোগাচ্ছে মামুনুর রশীদ গংরা। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আপনাদের হিরো আলম” শীর্ষক একটি বক্তব্যকে  আলোচিত ইউটিউবার হিরো আলমের বক্তব্য দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেপ্রচারিত হয়েছে।

Screenshot from Facebook

ফেসবুকে প্রচারিত এরকম কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, অভিনেতা মামুনুর রশীদকে সমালোচনার পাশাপাশি মূলধারার জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো এবং  পত্রিকাটির সম্পাদক মতিউর রহমানকে

প্রশংসা করে ফেসবুকে প্রচারিত বক্তব্যটি আলোচিত ইউটিউবার হিরো আলম দেননি বরং কোনোপ্রকার তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই উক্ত মন্তব্যকে হিরো আলমের বক্তব্য দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

অনুসন্ধানের শুরুতে, কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে, গণমাধ্যম, অভিনেতা হিরো আলমের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ এবং তার ইউটিউব অ্যাকাউন্টে উক্ত দাবিতে সংশ্লিষ্ট কোনো তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি।

Screenshot from Facebook.

এছাড়া দেশীয় মূলধারার সংবাদমাধ্যমেও উল্লিখিত তথ্য সম্বলিত কোনো প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়নি।

উক্ত দাবিতে ইন্টারনেটে কোনো তথ্য না পাওয়ায় পরবর্তীতে বিষয়টির অধিকতর সত্যতা যাচাইয়ে অভিনেতা হিরো আলমের সাথে যোগাযোগ করে রিউমর স্ক্যানার টিম।

হিরো আলম রিউমর স্ক্যানারকে জানান, “ না, না, আমি এইসব বিষয়ে জানিই না। প্রথম আলো কি লিখেছে, অন্য কে কি গুজব ছড়াচ্ছে, আমি এসব নিয়ে থাকি না। আমার সিনেমা রিলিজ হচ্ছে, এসব নিয়ে আমি দৌড়ের উপর আছি। এই ধরণের কথা বলিইনি।”

অর্থাৎ, অভিনেতা মামুনুর রশরীদকে সমালোচনার পাশাপাশি প্রথম আলো এবং প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানকে প্রশংসা করে ফেসবুকে প্রচারিত  মন্তব্যটি হিরো আলম করেননি। 

মূলত, আলোচিত ইউটিউবার আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমকে উদ্ধৃত করে অভিনেতা মামুনুর রশীদকে সমালোচনার পাশাপাশি দৈনিক প্রথম আলো এবং পত্রিকাটির সম্পাদক মতিউর রহমানকে প্রশংসা করে সম্প্রতি ফেসবুক একটি মন্তব্য প্রচারিত হয়। তবে, রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে এরূপ বক্তব্যের কোনো তথ্যপ্রমাণ পাওয়া যায়নি। তাছাড়া, বিষয়টি নিয়ে হিরো আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি উক্ত মন্তব্যটি করেননি বলে রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ তৈরি ও পরিবেশনের অভিযোগে  দৈনিক প্রথম আলোর একজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়। পাশাপাশি নাট্যকার ও অভিনেতা মামুনুর রশীদ একটি অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেন, “এখন রুচির দুর্ভিক্ষ চলছে। এর মধ্য দিয়েই হিরো আলমের উত্থান হয়েছে।” 
উল্লেখ্য, পূর্বেও হিরো আলমের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া বক্তব্য ছড়িয়ে পড়লে তা যাচাই করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, অভিনেতা মামুনুর রশীদকে সমালোচনার পাশাপাশি প্রথম আলো ও পত্রিকাটির সম্পাদককে নিয়ে প্রশংসাসূচক একটি মন্তব্যকে কোনোপ্রকার তথ্যপ্রমাণ ছাড়াই হিরো আলমের বক্তব্য দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img