শেখ হাসিনাকে পদত্যাগের জন্য জো বাইডেনের ফোন এবং পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা সিইসি’র দাবিতে গুজব 

সম্প্রতি, ফোনে হাসিনাকে পদত্যাগের নির্দেশ দিলো বাইডেন, পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা দিলো কাজী হাবিবুর আউয়াল– শীর্ষক শিরোনামে এবং হাসিনাকে পদত্যাগে বাইডেনের ফোন, পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা সিএসসি– শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। 

শেখ হাসিনাকে পদত্যাগের

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফেসবুকে প্রচারিত পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন দিয়ে পদত্যাগ করতে বলার দাবিটি সঠিক নয় এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়ার দাবিটিও মিথ্যা বরং ভিন্ন কয়েকটি সংবাদ প্রতিবেদনের ভিডিও ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে চটকদার থাম্বনেইল এবং শিরোনামে আলোচিত ভিডিওটি প্রচার করা হচ্ছে। 

আলোচিত ভিডিওটিতে পাঁচটি সংবাদের খণ্ডাংশ প্রচার করতে দেখা। 

ভিডিও যাচাই-১

এই অংশে সংবাদ পাঠিকার পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল NTV এর ইউটিউব চ্যানেলে গত ১৯ জানুয়ারি “নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি, সব দল অংশ না নেয়ায় হতাশ যুক্তরাষ্ট্র” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ১৮ জানুয়ারি মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের নবনির্বাচিত সরকার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মুখপাত্র ম্যাথু মিলারের দেওয়া বক্তব্যের প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি। 

ভিডিও যাচাই-২

এই অংশে সংবাদ পাঠিকার পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে NTV এর ইউটিউব চ্যানেলে গত ১৮ জানুয়ারি “নির্বাচন-ব্যবস্থার ওপর জনগণের আস্থা কমে গেছে: সিইসি” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ১৮ জানুয়ারি নির্বাচন ভবনের অডিটোরিয়ামে আয়োজিত ‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও সফলভাবে সম্পন্ন করায়’ শীর্ষক ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ায় জাতি সংকট থেকে ওঠে এসেছে। তবে এটা স্থায়ী সমাধান নয়। তিনি বলেন, ‘নির্বাচন ব্যবস্থার ওপর জনগণের আস্থা অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক নেতৃত্বেরও প্রয়োজন হবে একটি পদ্ধতি অন্বেষণ করা।’

অর্থাৎ, এখানে শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ বা পুনরায় নির্বাচন ঘোষণা সংক্রান্ত কোনো কথা বলেননি। 

ভিডিও যাচাই-৩

এই অংশে একজন উপস্থাপককে সংবাদ পাঠ করতে দেখা যায়। পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে চ্যানেল২৪ এর ইউটিউব চ্যানেলে গত ৯ জানুয়ারি “নির্বাচনের দিন বিভিন্ন অনিয়মের দাবি নিয়ে উদ্বেগ যুক্তরাষ্ট্রের” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

গত ০৮ জানুয়ারি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি বলে মন্তব্য করে যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া বিবৃতি নিয়ে উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটিতে করা হয়েছে। তবে সেখানে আলোচিত দাবিগুলো নিয়ে কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি। 

ভিডিও যাচাই-৪ 

এই অংশে একজন উপস্থাপককে সংবাদ পাঠ করতে দেখা যায়। পঠিত সংবাদের সূত্র ধরে অনুসন্ধানে যমুনা টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলে গত ১৯ জানুয়ারি “বাংলাদেশের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি- ফের দাবি যুক্তরাষ্ট্রের” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner 

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, ১৮ জানুয়ারি মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের নবনির্বাচিত সরকার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মুখপাত্র ম্যাথু মিলারের দেওয়া বক্তব্যের প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি। 

ভিডিও যাচাই-৫ 

এখানেও একটি সংবাদ প্রতিবেদন প্রচার করা হয় এবং এখানে অনলাইন গণমাধ্যম বার্তা বাজারের লোগো দেখা যায়। লোগো’র সূত্র ধরে অনুসন্ধানে বার্তা বাজারের ইউটিউব চ্যানেলে গত ১৮ জানুয়ারি “নির্বাচন পদ্ধতির উপর জনগণের আস্থা নষ্ট হয়ে গিয়েছে” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

উক্ত প্রতিবেদনটির সাথে আলোচিত ভিডিওটির হুবহু মিল রয়েছে। 

Video Comparison: Rumor Scanner

উক্ত সংবাদ প্রতিবেদনটি পর্যবেক্ষণ করে জানা যায়, এটিও ১৮ জানুয়ারি সিইসি’র মন্তব্যের প্রেক্ষিতে করা সংবাদ প্রতিবেদন এটি। 

এছাড়া, আলোচিত দাবিগুলো নিয়ে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। 

পাশাপাশি, ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের ফেসবুক পেজে এবং ওয়েবসাইটেও এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। 

মূলত, গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে সর্বাধিক আসনে জয়লাভ করে সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে ফোনে হাসিনাকে পদত্যাগের নির্দেশ দিলো বাইডেন, পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা দিলো কাজী হাবিবুর আউয়াল– শীর্ষক শিরোনামে এবং হাসিনাকে পদত্যাগে বাইডেনের ফোন, পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা সিএসসি– শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওটিতে ভিন্ন ভিন্ন পাঁচটি সংবাদ প্রতিবেদন কেটে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় সম্পাদনা করে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে, আলোচিত দাবিগুলো সঠিক নয়। এছাড়া, গণমাধ্যমেও এ-সংক্রান্ত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। 

উল্লেখ্য, গত ০৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৮টি আসনের মধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যক ২২২টি আসনে জয়ী হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। এ ছাড়া জাতীয় পার্টি ১১টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ১টি, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি ১টি, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি ১টি এবং স্বতন্ত্র পদে মোট ৬২ টি আসনে জয়লাভ করেন প্রার্থীরা।

সুতরাং, শেখ হাসিনাকে পদত্যাগের জন্য জো বাইডেনের ফোন এবং পুনরায় নির্বাচনের ঘোষণা সিইসি’র দাবিগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img