শনিবার, জুলাই 20, 2024
spot_img

খালেদা জিয়া বা মির্জা ফখরুল নয়, তালা ভেঙে বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকেছেন রিজভী  

সম্প্রতি, ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম ইউটিউবে “তালা ভেঙে  বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকলো রিজভী ফখরুল ও খালেদা জিয়া” শীর্ষক থাম্বনেইলে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে। 

বিএনপি কার্যালয়ে

ইউটিউবে প্রচারিত ভিডিওটি দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

এই প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়া অবধি ভিডিওটি প্রায় ১ লাখ ৫৯ হাজার বার দেখা হয়েছে। ভিডিওটিতে প্রায় ৬ হাজার ৯ শত পৃথক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, তালা ভেঙে  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকার দাবিটি সঠিক নয় বরং গত ১১ জানুয়ারি বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে নেতাকর্মীদের বিএনপির কার্যালয়ে ঢুকার ভিডিওকে অধিক ভিউ পাওয়ার আশায় চটকদার থাম্বনেইলে আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে আলোচিত ভিডিওটি পর্যবেক্ষণ করে রিউমর স্ক্যানার টিম। উক্ত ভিডিওটির শুরুতে কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ দেখানো হয়। পরবর্তীতে আলোচিত দাবিটি প্রসঙ্গে দেখানো ভিডিওতে রুহুল কবির রিজভীর তালা ভাঙার একটি দৃশ্য দেখা গেলেও খালেদা জিয়া এবং মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের তালা ভেঙে  বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকার দাবি সম্পর্কিত কোনো তথ্য কিংবা দৃশ্য পাওয়া যায়নি।

পরবর্তীতে ভিডিওটিতে প্রচারিত ভিডিও ক্লিপগুলো পৃথকভাবে যাচাই করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম।

ভিডিও যাচাই – ০১ ও ০২ 

অনুসন্ধানে দেখা যায় আলোচিত ভিডিওতে যুক্ত প্রথম দুটি ভিডিও ক্লিপই গত ১১ জানুয়ারি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে বিএনপি নেতাকর্মীদের তালা ভেঙে  বিএনপি কার্যালয়ের প্রবেশের বিষয়ে মূলধারার গণমাধ্যম যমুনা টেলিভিশন ও সময় টিভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত ভিডিও (,) থেকে নেওয়া। 

Video Comparison : Rumor Scanner 
Video Comparison : Rumor Scanner 

ভিডিও দুটিতে রুহুল কবির রিজভীকে বিএনপি কার্যালয়ে প্রবেশ করতে দেখা গেলেও ভিডিওর কোথাও খালেদা জিয়া কিংবা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কোনো দৃশ্য দেখা যায়নি।

ভিডিও যাচাই – ০৩ 

আলোচিত ভিডিওটির পরবর্তী ভিডিওটির অনুসন্ধানে বাংলা ভিশনের ইউটিউব চ্যানেলে গত ১১ জানুয়ারি “বাংলাদেশের জনগণের প্রত্যাশার জায়গা থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরেনি” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison : Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও প্রতিবেদনের সাথে আলোচিত ভিডিওটির ক্লিপটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

ভিডিও প্রতিবেদনে গত ১০ জানুয়ারি হোয়াইট হাউসে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সদ্য সমাপ্ত বাংলাদেশের নির্বাচন ও বিরোধীদলের ওপর সরকারি নিপীড়নের অভিযোগ নিয়ে প্রশ্নোত্তরের বিষয়ে বলা হয়। 

ভিডিও যাচাই – ০৪ 

সর্বশেষ ভিডিওটির অনুসন্ধানে এটিএন নিউজের ইউটিউব চ্যানেলে গত ১০ জানুয়ারি “৯ মামলায় জামিন তবুও মুক্তি পাচ্ছেন না ফখরুল। Mirza Fakhrul। BD Politics। ATN News” শীর্ষক শিরোনামে একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Video Comparison : Rumor Scanner

উক্ত ভিডিও প্রতিবেদনের সাথে আলোচিত ভিডিওটির ক্লিপটির হুবহু মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

উক্ত ভিডিও প্রতিবেদনে গত ১০ জানুয়ারি রাজধানীর পল্টন ও রমনার ৯ টি মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জামিন পাওয়ার বিষয়ে বলা হয়।

অর্থাৎ আলোচিত ভিডিওটিতে রুহুল কবির রিজভীর তালা ভেঙে  বিএনপি কার্যালয়ে প্রবেশ করার ভিডিওকেই আলোচিত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

তাছাড়া, গত বছরের ৯ আগস্ট থেকে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া রাজধানী ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গত ১১ জানুয়ারি তিনি গুলশান-২ নম্বরের ৭৯ নম্বর সড়কের তাঁর বাসা ফিরোজায় পৌঁছান। এছাড়া, ২০২৩ সালের ২৮ অক্টোবর বিএনপির সমাবেশে সংঘর্ষের পরদিন মির্জা ফখরুলকে তার গুলশানের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বর্তমানে তিনি কারাবন্দী আছেন। 

মূলত, গত ১১ জানুয়ারি আড়াই মাস পর বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে বিএনপির নেতা-কর্মীরা তালা ভেঙে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করেন। উক্ত ঘটনার ভিডিওকেই তালা ভেঙে বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকলো বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রুহুল কবির রিজভী শীর্ষক দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হয়েছে। বর্তমানে খালেদা জিয়া তার বাসা ফিরোজায় রয়েছেন এবং মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কারাগারে বন্দি রয়েছেন।

সুতরাং, রুহুল কবির রিজভী, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং খালেদা জিয়ার তালা ভেঙে বিএনপি কার্যালয়ে ঢুকার দাবিতে ইউটিউবে প্রচারিত তথ্যটি বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img