সোমবার, সেপ্টেম্বর 26, 2022
spot_img

ফেসবুক লাইভে পণ্য বিক্রি বন্ধ হচ্ছে?

সম্প্রতি “বন্ধ হচ্ছে ফেসবুক লাইভে পণ্য বিক্রি” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। 

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে পণ্য বিক্রি বন্ধ হয়ে যাওয়ার তথ্যটি পুরোপুরি সঠিক নয় বরং ফেসবুক লাইভ শপিং নামক একটি ফিচার বন্ধ করতে যাচ্ছে।

কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ফেসবুকের Meta Business Help Center ওয়েবপেইজে “Facebook Live Shopping will be going away on October 1, 2022” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি বিজ্ঞপ্তি খুঁজে পাওয়া যায়।

বিজ্ঞপ্তিটি থেকে জানা যায়, ২০২২ সালের পহেলা অক্টোবর থেকে ফেসবুকে নতুন করে আর লাইভ শপিং ইভেন্ট করা যাবে না। তবে ফেসবুক লাইভ ও ইভেন্টগুলোতে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করা যাবে, কিন্তু লাইভ ভিডিওর প্লেলিস্টে কোনো পণ্যের ট্যাগ দেয়া যাবে না।

বিজ্ঞপ্তিটিতে আরও জানানো হয়, গ্রাহকদের কাছে পণ্যকে পৌঁছাতে ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে রিলস ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন উদ্যোক্তারা। রিলসে পণ্য ট্যাগ দেওয়ারও ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া ইন্সটাগ্রামে লাইভ শপিং ফিচার চালু থাকবে।

লাইভ শপিং ফিচারটি সম্পর্কে অনুসন্ধান করে ফেসবুকের Meta Business Help Center ওয়েবপেইজে “Live shopping on Facebook” শীর্ষক একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, ফেসবুকের লাইভ শপিং ফিচারটি হল সরাসরি সম্প্রচারের মাধ্যমে শপিং ইভেন্ট তৈরি করার মাধ্যম। এখানে বাস্তব জগতের মতোই বিক্রেতা তার পণ্যগুলো প্রদর্শন করতে পারেন।

পাশাপাশি পণ্যের বিশদ বিবরণ এবং ক্রেতা যাতে পছন্দ মতো পণ্য বেছে নিতে পারেন সে অনুযায়ী বিক্রেতা লাইভে পণ্যের বিন্যাস এবং সরাসরি লাইভ সম্প্রচার থেকে দর্শকদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

বিপরীতে অনুসন্ধানে দেখা যায়, বাংলাদেশে যেভাবে লাইভে পণ্য বিক্রয় করা হয় তার সঙ্গে এই লাইভ শপিং ফিচারটির কোনো মিল নেই।

বাংলাদেশের একাধিক অনলাইন শপিং পেজের লাইভে পণ্য বিক্রয়ের ভিডিও পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, এই পেইজগুলোতে সাধারণত একজন বিক্রেতা তার ফেসবুক পেজ থেকে লাইভে এসে মুখে মুখে পণ্যের বিবরণ দিয়ে থাকেন। যার সঙ্গে এই লাইভ শপিং ফিচারটির কোনো মিল নেই।

পরবর্তীতে বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক ইত্তেফাকের ফেসবুক পেজ Click Ittefaq এ ১৪ আগস্ট “বন্ধ হচ্ছে না ফেইসবুক লাইভে পণ্য বিক্রি” শীর্ষক শিরোনামে প্রচারিত একটি ভিডিও প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

এই প্রতিবেদনটিতে বাংলাদেশের একজন ব্র‍্যান্ড প্রমোটার ও নারী উদ্যোক্তা রুবায়েত ফাতিমা তনী বলেন, ফেসবুকের লাইভ শপিং নামের একটি ফিচার আছে, ঐটা তারা বন্ধ করে দিচ্ছে।

আর আমরা যারা বাংলাদেশ থেকে ফেসবুক ব্যবহার করি, আমরা এমন একটা ফিচার যে আছে সেটা জানতামই না। অনেকে এটা নিয়ে হাসিঠাট্টা করছে। আসলে ফেসবুকের লাইভ শপিং ফিচার নামের যে ফিচারটি আছে সেটা বন্ধ হচ্ছে। আমরা যারা নরমাল লাইভ করি, সেটা আগের মতোই থাকছে।

মূলত, ফেসবুক ২০১৮ সালে লাইভ শপিং ফিচার নামে একটি ফিচার চালু করে। এই ফিচারের মাধ্যমে লাইভে বিক্রেতারা বাস্তব জগতের মতোই তার পণ্যগুলো প্রদর্শন করতে পারেন। পাশাপাশি পণ্যের বিশদ বিবরণ এবং ক্রেতা যাতে পছন্দ মতো পণ্য বেছে নিতে পারেন সে অনুযায়ী বিক্রেতা লাইভে পণ্যের বিন্যাস এবং সরাসরি  লাইভ সম্প্রচার থেকে দর্শকদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। তবে টিকটকের মতো ছোটো ভিডিও বা রিল ভিডিওতে জোর দিতে এই ফিচারটি পহেলা অক্টোবর থেকে বন্ধ করতে যাচ্ছে ফেসবুক। কিন্তু এই ফিচারের সঙ্গে বাংলাদেশে যেভাবে লাইভে পণ্য বিক্রয় করা হয় তার সঙ্গে এর কোনো মিল নেই। এছাড়া লাইভ শপিং ফিচারটি বন্ধ হলেও ফেসবুক লাইভ ও ইভেন্টগুলোতে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করা যাবে।

সুতরাং, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে পন্য বিক্রি বন্ধ হয়ে যাওয়ার তথ্যটি বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img