শুক্রবার, মে 31, 2024
spot_img

ব্যবসায়িক কাজে ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন দুবাইয়ে অবস্থান করেননি

সম্প্রতি, “আরব আমিরাতে বিনিয়োগ করতে দুবাই অবস্থান করছেন ডিবি প্রধান হারুন। উঠেছেন মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স হোটেলের ৪১৬ নাম্বার রুমে” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

Screenshot from Facebook 

যা দাবি করা হচ্ছে

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার প্রধান হারুন অর রশীদের একটি ছবি সংযুক্ত করে দাবি করা হচ্ছে যে, তিনি ব্যবসায়িক বিনিয়োগের জন্য দুবাই গিয়েছেন এবং দুবাইয়ের মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স হোটেলের ৪১৬ নাম্বার রুমে অবস্থান করছেন।

গুজবের সূত্রপাত

ফেসবুক মনিটরিং টুলস এবং এডভান্স সার্চের মাধ্যমে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টা ৪৯ মিনিটে ‘Abdur Rab Bhuttow’ নামের একটি ফেসবুক পেইজে এ সম্পর্কিত প্রথম পোস্টটি (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from Facebook

এছাড়া ১৬ ফেব্রুয়ারি তারিখে বিকেল ০৪.৪২ মিনিটে ‘London Bangla Channel’ নামের ফেসবুক পেইজ থেকেও একই তথ্য সম্বলিত পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। 

পোস্টটির কমেন্ট বক্স পর্যবেক্ষণ করে একটি টিকটক ভিডিও’র সন্ধান পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। ভিডিওটিতে থাকা ইউজারনেম এর সূত্র ধরে ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম টিকটকে কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ‘arifmiazee06’ নামের টিকটক একাউন্টে আলোচিত ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়।

একই দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

Screenshot from Facebook

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, ব্যবসায়িক কাজে ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদের দুবাইয়ে যাওয়া এবং মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স নামক হোটেলের ৪১৬ নাম্বার রুমে অবস্থান করার দাবিটি সত্য নয় বরং তিনি সরকারি সফরে বর্তমানে নেদারল্যান্ডসে অবস্থান করছেন এবং যাত্রা বিরতিতে ট্রান্সজিট হিসেবে দুবাইয়ের একটি হোটেলে কিছুসময় বিশ্রাম নিয়েছিলেন। 

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে ‘ডিএমপি নিউজ’ এর ওয়েবসাইটে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি তারিখে “নেদারল্যান্ডসে সরকারি সফরে ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশীদ” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot from dmpnews.org website 

প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখ থেকে সরকারি সফরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ নেদারল্যান্ডসে অবস্থান করছেন। 

পরবর্তীতে, প্রতিবেদন থেকে পাওয়া তথ্যমতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগে প্রকাশিত একটি আদেশ (No.44.00.0000.097.26.002.2021) খুঁজে পাওয়া যায়। 


Image collected from জননিরাপত্তা বিভাগ-স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় website 

গত ২২ জানুয়ারি ২০২৩ তারিখে জারিকৃত আদেশটি অনুবাদ করলে দেখা যায়,

“হারুন অর রশীদসহ চারজন সরকারি কর্মকর্তা ১৫ ফেব্রুয়ারি তারিখ থেকে পরবর্তী ৭ দিন নেদারল্যান্ডসে থাকবেন। আদেশের শর্তাবলী অংশ ‘C’ তে বলা হয়েছে, “The period of stay including the period to be spent on transit will be treated as on duty.” 

অর্থাৎ ট্রানজিটে ব্যয় হওয়া সময়সহ এসব কর্মকর্তার পুরো সফরকাল সরকারি কাজ বা দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে বিবেচিত হবে। তাই উক্ত আদেশ অনুযায়ী ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদসহ বাকি চারজন কর্মকর্তা যদি নেদারল্যান্ডস যাওয়ার পথে ট্রান্সজিট হিসেবে দুবাইয়ে অবস্থান করেও থাকেন তবে তা সরকারি সফর বা দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে গণ্য হবে।

পরবর্তীতে, পোস্টে উল্লেখিত দুবাইয়ের মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স হোটেল সম্পর্কে কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ইন্টারনেটে ‘মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স’ নামে কোনো হোটেলের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

এছাড়া, ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদ ব্যবসায়িক বিনিয়োগের জন্য দুবাই অবস্থান করছেন শীর্ষক দাবিতে প্রচারিত পোস্টগুলোতে ব্যবহৃত ছবিটির উৎস খুঁজে পেতে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ইন্টারনেটে এ সংক্রান্ত কোনো ছবি খুঁজে না পাওয়া গেলেও ট্র্যাভেল এজেন্সি ‘Agoda’ এর ওয়েবসাইটে দুবাইয়ের ‘Hyatt Place’ নামক একটি হোটেলের ফটো গ্যালারীতে আলোচিত ছবির স্থানের সঙ্গে মিল খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot collage | Rumor Scanner 

তাছাড়া, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে ‘ডিআইজি হারুন স্যার সমর্থক’ নামের একটি ফেসবুক একাউন্ট থেকে “Police Dogs Centre Holland এর আমন্ত্রণে পুলিশের উচ্চপর্যায়ের চার সদস্যের প্রতিনিধি দলের প্রধান হিসেবে হলন্ডে অবস্থান করছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের প্রধান ডিআইজি হারুন অর রশীদ বিপিএম(বার), পিপিএম(বার) মহোদয়” শীর্ষক শিরোনামে হল্যান্ডে অবস্থানরত অবস্থায় ডিবি প্রধান হারুনের ছবি দাবিতে বেশ কয়েকটি ছবি খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot from Facebook 

পরবর্তীতে, বিষয়টি অধিকতর নিশ্চিতে গুগল ম্যাপসে ‘Police Dogs Centre Holland’ নামক জায়গাটি খুঁজে পায় রিউমর স্ক্যানার টিম। ফটো গ্যালারিতে থাকা ছবিগুলোর সাথে ‘ডিআইজি হারুন স্যার সমর্থক’ নামের ফেসবুক একাউন্ট থেকে প্রচারিত ছবিগুলোর অবকাঠামোর মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Image Comparison | Rumor Scanner

যার ফলে নিশ্চিত হয়া যায় যে, এটি হল্যান্ডের Poilce Dogs Centre থেকে ধারন করা স্থিরচিত্র।

মূলত, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের আদেশে ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদসহ চারজন কর্মকর্তা সরকারি সফরে নেদারল্যান্ডসে যান। যাত্রা বিরতিতে ট্রান্সজিট হিসেবে দুবাইয়ের একটি হোটেলে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেন। প্রকৃতপক্ষে, দুবাইয়ের সেই হোটেলে যাত্রা বিরতিতে সাময়িক অপেক্ষা করার সময়ে ধারণকৃত একটি ছবিকে ‘ডিএমপির ডিবি প্রধান ব্যবসায় বিনিয়োগের জন্যে দুবাই গিয়েছেন এবং দুবাইয়ের মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স হোটেলের ৪১৬ নাম্বার রুমে অবস্থান করছেন’ শীর্ষক দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

উল্লেখ্য, ‘Abdur Rab Bhuttow’ এবং ‘London Bangla Channel’ নামক ফেসবুক পেজে ইতিপূর্বেও বেশ কয়েকটি মিথ্যা এবং গুজব পোস্টের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। যেগুলো নিয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম। 

প্রতিবেদনগুলো দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

সুতরাং, ব্যবসায়িক কাজে ডিএমপির ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদের দুবাইয়ে যাওয়া এবং মুটিনা গ্র্যান্ড ডিলাক্স নামক হোটেলের ৪১৬ নাম্বার রুমে অবস্থান করছেন শীর্ষক দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img