ডিজিটাল প্রযুক্তিতে তৈরি সাপের ছবিকে বাস্তব দাবিতে প্রচার

সম্প্রতি, “আফ্রিকায় ধরা পড়ল অদ্ভুত ডানাওয়ালা সাপ! হতবাক বিজ্ঞানীরা” শীর্ষক ক্যাপশনে একটি ডানাসহ সাপের ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, আফ্রিকায় অদ্ভুত ডানাওয়ালা সাপ ধরা পড়ার দাবিতে প্রচারিত ছবিটি বাস্তব নয় বরং ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে তৈরি সাপের ছবিকে বাস্তব দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে অনলাইন গ্রাফিক্স ডিজাইন সম্পর্কিত ওয়েবসাইট ‘Deviantart’ এ ‘kuramay’ নামক অ্যাকাউন্টে ২০১০ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ‘Winged Snake’ শীর্ষক ক্যাপশনে প্রকাশিত ছবির সাথে আলোচিত ছবিটির মিল খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot collage: Rumor Scanner 

ছবিটির বিস্তারিত অংশ থেকে জানা যায়, ‘kuramay’ অ্যাকাউন্টের ব্যক্তি একটি ডানাওয়ালা সাপ বানাতে চেয়েছিলেন এবং এই ছবিটি কম্পিউটার গ্রাফিক প্রকল্পের জন্য করা হয়েছিল।

Screenshot from Deviantart website

উক্ত ছবির বিস্তারিত অংশে সাপ এবং পাখা সংগ্রহের সোর্স দেওয়া আছে।

Screenshot from Deviantart website

এছাড়া ডানাসহ সাপের ছবিটিতে ডানার ছবিটি উল্টোদিকে অবস্থান করছে এমন দাবিতে এক ব্যক্তিকে ছবির পোস্টে মন্তব্য করলে ‘kuramay’ নামক অ্যাকাউন্টধারী জানান, তিনি এই ছবিটি ক্লাস প্রজেক্টের জন্য বানিয়েছিলেন এবং স্টক ইমেজ সাইট থেকে সঠিক ছবি খুঁজে না পাওয়ায় এমন হয়েছে।

Screenshot from Deviantart website

অধিকতর অনুসন্ধানে আফ্রিকায় ডানাসহ সাপের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে শীর্ষক কোনো তথ্য ইন্টারনেটে নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্রে পাওয়া যায়নি।

মূলত, সম্প্রতি আফ্রিকায় অদ্ভুত ডানাওয়ালা একটি সাপ ধরা পড়েছে দাবিতে একটি ডানাসহ সাপের ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে অনুসন্ধানে জানা যায়, ছবিটি বাস্তব কোনো সাপের নয় এবং আফ্রিকায় এমন অদ্ভুত ডানাওয়ালা কোনো সাপও ধরা পড়েনি। ২০১০ সালে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে এক ব্যক্তি ডানাসহ সাপের উক্ত ছবিটি একটি অনলাইন সাইটে প্রকাশ করেন। সম্প্রতি সেই ছবিটিই আফ্রিকায় অদ্ভুত ডানাওয়ালা সাপ ধরা পড়ার দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, পূর্বেও ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার করে বিভিন্ন ছবি বাস্তব দাবিতে ছড়িয়ে পড়লে তা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার। এমন কিছু প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে।

সুতরাং, ডিজিটাল প্রযুক্তিতে তৈরি সাপের ছবিকে বাস্তব দাবিতে ইন্টারনেটে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img