শনিবার, এপ্রিল 13, 2024
spot_img

তুরস্কের ২০ ফেব্রুয়ারির ভূমিকম্পের ছবি দাবিতে ভারতীয় গণমাধ্যমে পুরোনো ছবি প্রচার

তুরস্কে গত ২০ ফেব্রুয়ারির ভূমিকম্পের ঘটনায় ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ধ্বংসস্তূপের একটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। 

ভারতীয় গণমাধ্যমে উক্ত ছবি ব্যবহার করে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখুন; ABP LIVE।  

Screenshot source: ABP LIVE

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, তুরস্কে গত ২০ ফেব্রুয়ারির ভূমিকম্পে ধ্বংসস্তূপের ছবি দাবিতে প্রচারিত ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের নয় বরং এটি ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্কের ভূমিকম্পের সময়কার ছবি।

গত ৬ ফেব্রুয়ারির ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর গত ২০ ফেব্রুয়ারি সিরিয়া সীমান্তের কাছে দক্ষিণ তুরস্কে ফের একটি ভূমিকম্পের খবর আসে গণমাধ্যমে। তুরস্কের অতি সাম্প্রতিক এই ভূমিকম্পের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ধ্বংসস্তূপের একটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে অনুসন্ধানে রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে অনুসন্ধান করে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম ‘9 news’ এর ওয়েবসাইটে গত ১০ ফেব্রুয়ারি “In pictures: Turkey, Syria devastated by deadly earthquakes” শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক এবং সিরিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্পে তুরস্কের আদানা থেকে তোলা ধ্বংসস্তূপের ছবি এটি। 

Screenshot source: 9 news

‘নাইন নিউজ’ ছবিটির ক্যাপশনে মার্কিন সংবাদ সংস্থা ‘AP’ কে সূত্র হিসেবে উল্লেখ করেছে। 

পরবর্তীতে ‘AP’ এর ওয়েবসাইটে গত ৬ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot source: AP

এপি জানিয়েছে, গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে ছবিটি তোলা হয়।

অর্থাৎ, প্রচারিত ছবিটি অতি সাম্প্রতিক সময়ের ভূমিকম্পের নয়।

আলোচিত ছবিটি সাম্প্রতিক সময়ের প্রতিবেদনে ব্যবহার করে গণমাধ্যম ছবির ক্যাপশনে কিছুই লিখেনি। ফলে স্বাভাবিকভাবে ছবিটি সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয়। এতে করে নেটিজেনদের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হওয়া অমূলক নয়।

মূলত, গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক ও সিরিয়ায় আঘাত হানে শক্তিশালী এক ভূমিকম্প। এ ঘটনায় ধ্বংসস্তূপের একটি ছবিকে অতি সাম্প্রতিক সময়ে (২০ ফেব্রুয়ারি) তুরস্কের আরেকটি ভূমিকম্পের বিষয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে ব্যবহার করা হয়েছে। প্রতিবেদনে আলোচিত ছবির ক্যাপশনে ফাইল ফটো বা পুরনো ঘটনার ছবি শীর্ষক কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। এতে করে স্বাভাবিকভাবে ছবিটি সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের ঘটনার বলে প্রতীয়মান হয় যা বিভ্রান্তির জন্ম দিয়েছে। 

প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্ক-সিরিয়ার ভূমিকম্পকে কেন্দ্র করে একাধিক গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, গত ৬ ফেব্রুয়ারির তুরস্ক ও সিরিয়ার ভূমিকম্পের একটি ছবিকে গত ২০ ফেব্রুয়ারির তুরস্কের আরেকটি ভূমিকম্পের বিষয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে প্রকাশ করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img