প্রথম আলো’র আদলে ডিজিটাল ব্যানার তৈরি করে মির্জা ফখরুলের নামে ভুয়া মন্তব্য প্রচার

সম্প্রতি, “যুক্তরাষ্ট্র চাইলে বিএনপি যে কোনো সময়েই ক্ষমতা গ্রহণে প্রস্তুত – বিএনপি মহাসচিব” শীর্ষক দাবিতে সাংবাদিকদের সাথে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কথোপকথনের একটি ছবি যুক্ত প্রথম আলোর লোগোসহ একটি ডিজিটাল পোস্টার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।  

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে (আর্কাইভ) এবং এখানে(আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমার স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ‘যুক্তরাষ্ট্র চাইলে বিএনপি যে কোনো সময়েই ক্ষমতা গ্রহণে প্রস্তুত’ শীর্ষক দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত এই বক্তব্যটি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেননি এবং প্রথম আলোও এ ধরনের কোনো সংবাদ প্রচার করেনি। বরং ভিত্তিহীনভাবে প্রথম আলোর আদলে একটি ডিজিটাল ব্যানার তৈরি করে উক্ত মন্তব্যটি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য দাবিতে ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে। 

অনুসন্ধানের শুরুতে, কি-ওয়ার্ড সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করে প্রথম আলোর ওয়েবসাইট , প্রথম আলোর ফেসবুক পেজ এবং প্রথম আলোর ইউটিউব চ্যানেলে উক্ত দাবিতে প্রচারিত কোনো সংবাদ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

প্রথম আলো বাইরে অন্য কোনো সংবাদমাধ্যমেও আলোচিত মন্তব্যটি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর করেছেন এমন কেনো তথ্য নেই। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন কোনো মন্তব্য করার কোনো প্রমাণ কোনো মাধ্যমেই পায়নি রিউমর স্ক্যানার টিম।

Screenshot from Google

মির্জা ফখরুল সংক্রান্ত বক্তব্য অনুসন্ধানে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভিসা নীতি ঘোষণা ও এর পূর্ববর্তী সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দেওয়া কিছু বক্তব্য পাওয়া গেলেও উল্লেখিত দাবির বক্তব্যটি পাওয়া যায়নি।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রচারিত কিছু সংবাদ নিম্নরূপ:

দ্য ডেইলি স্টার: ‘সরকারের সুর নিচে নেমে এসেছে: মির্জা ফখরুল’(২৯ মে)
বাংলা ট্রিবিউন: ‘যুক্তরাষ্ট্রের ভিসানীতি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবির প্রতিধ্বনি: মির্জা ফখরুল’(২৬ মে) 
ঢাকা ট্রিবিউন: কোন জাদুতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে রেমিট্যান্স বেড়েছে, প্রশ্ন ফখরুলের (২৯ মে)
প্রথম আলো: ‘যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী সম্ভবত বিরক্ত: মির্জা ফখরুল’(১৫ মে) 

ইন্টারনেটে ওপেন সোর্স অনুসন্ধানে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আলোচিত বক্তব্যটি দিয়েছেন এমন কোনো তথ্য-প্রমাণ না পাওয়ায় পরবর্তীতে বিষয়টির অধিকতর সত্যতা যাচাইয়ের লক্ষ্যে প্রথম আলো’র নির্বাহী সম্পাদক সাজ্জদ শরীফের সাথে কথা হয় রিউমর স্ক্যানার টিমের।

তিনি রিউমর স্ক্যানারকে জানান, ‘এটা শতভাগ ভুল। আমরা ভালো করে চেক করেছি। এরকম কোনো খবর আমরা দেইনি। আমাদের কার্ড (পোস্টার) যারা ব্যবহার করেছে তারা অসৎ উদ্দেশ্যে ব্যবহার করেছে।’

এছাড়া, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এমন কোনো মন্তব্য করেছেন কিনা তা যাচাইয়ের জন্য বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবিরের সাথে কথা হয় রিউমর স্ক্যানার টিমের। শায়রুল কবির জানান, ‘এটা ধান্ধাবাজদের এক ধরণের ধান্ধা। মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আজেবাজে পোস্ট করছে। এগুলো থেকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করছি।’

তাছাড়া, আলোচিত বিষয়টিকে মিথ্যা উল্লেখ করে আজ ৩১ মে নিজেদের ভেরিফাইড ফেসবুক থেকে প্রচারিত এক পোস্টে প্রথম আলো জানায়,

Screenshot: Prothom Alo Facebook  Page

“সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সম্প্রতি প্রথম আলোর নিউজ কার্ডের মতো হুবহু নকল এই ছবিটি ছড়িয়ে পড়েছে। এটি প্রথম আলোর তৈরি করা নয়। আমাদের পাঠকদের জানাতে চাই, এর আগেও বিভিন্ন সময়ে প্রথম আলোর নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভূয়া খবর, ছবি ও কার্ড ছড়িয়েছে। বিভ্রান্তি এড়ানোর জন্য আমাদের অনলাইন ও ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে গিয়ে যাচাই করে নিন যেকোনো খবর।”

অর্থাৎ, উপরোক্ত তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে এটা নিশ্চিত যে, যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়ে আলোচিত মন্তব্যটি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর করেননি।

মূলত, সম্প্রতি ‘যুক্তরাষ্ট্র চাইলে বিএনপি যে কোন সময়েই ক্ষমতা গ্রহণে প্রস্তুত’ শীর্ষক একটি মন্তব্যকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য দাবি করে দৈনিক প্রথম আলো’র আদলে তৈরি একটি ব্যানার ফেসবুক প্রচারিত হয়। তবে এমন কোনো সংবাদ প্রথম আলো প্রচার করেনি বলে পত্রিকাটির নির্বাহী সম্পাদক সাজ্জাদ শরিফ রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া অনুসন্ধানে বিএনপি মহাসচিবের এমন কোনো বক্তব্যও খুঁজে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, এর আগে ‘মির্জা ফখরুল বিএনপির মেয়াদোত্তীর্ণ মহাসচিব। তার এখনই অবসরে যাওয়া উচিত। -হিরো আলম” শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডিজিটাল পোস্টার প্রচার হলে তা মিথ্যা হিসেবে শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, ‘যুক্তরাষ্ট্র চাইলে বিএনপি যে কোনো সময়েই ক্ষমতা গ্রহণে প্রস্তুত’ শীর্ষক বক্তব্য বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দিয়েছেন দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img