জাতীয় সংসদের স্পিকার ও ওবায়দুল কাদেরের তত্ত্বাবধায়ক সরকার দেওয়ার দাবিটি মিথ্যা 

সম্প্রতি ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছে স্পীকার ও ওবায়দুল কাদের’ শীর্ষক দাবিতে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও প্রচার করা হচ্ছে। 

ফেসবুকে প্রচারিত এমন একটি  ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ)। 

ইউটিউবে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

টিকটকে প্রচারিত এমন কিছু ভিডিও এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছেন শীর্ষক দাবিটি সঠিক নয়। প্রকৃতপক্ষে তাদের দুইটি ভিন্ন সময়ের বক্তব্যের ভিডিও থেকে খণ্ডিত অংশ যুক্ত করে উক্ত দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

দাবিটির সত্যতা অনুসন্ধানে রিউমর স্ক্যানার টিম স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যগুলো যাচাই করে। 

ওবায়দুল কাদেরের খণ্ডিত বক্তব্য

অনুসন্ধানে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গত ৬ এপ্রিল ঢাকার আজিমপুর সরকারি কলোনি মাঠে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে লালবাগ থানা আওয়ামী লীগের ইফতার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন। 

এই সময় তিনি বিএনপির প্রতি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘সুষ্ঠু ভোটে যাওয়ার জন্য একজন নিরপেক্ষ লোক দরকার। তত্ত্বাবধায়ক সরকার, আমি মির্জা ফখরুলকে চ্যালেঞ্জ করে বলছি, ‘আপনাদের সেই নিরপেক্ষ ব্যক্তি কে? আমরা জানতে চাই। নিরপেক্ষ লোক তাদের দরকার নাই। তাদের লোক, তাদের পক্ষের লোক তারা চায়। যে এখানে তত্ত্বাবধায়কের নামে ২০০১ সালের মতো নির্বাচন করবে, ২০০৬ সালের মতো অস্বাভাবিক জরুরি সরকার ক্ষমতায় আনবে। ঐ তত্ত্বাবধায়ক সরকার তারা চায়।’

Screenshot: News Pencil

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যটি শুনুন এখানে (আর্কাইভ)। 

একই বক্তব্য নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন পড়ুন এখানে। 

Screenshot: Bangla Tribune

তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, ওবায়দুল কাদেরের এই বক্তব্য থেকে কেবল ‘সুষ্ঠু ভোটে যাওয়ার জন্য একজন নিরপেক্ষ লোক দরকার। তত্ত্বাবধায়ক সরকার’ অংশটুকু কেটে ওবায়দুল কাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছেন দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

 স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর খণ্ডিত বক্তব্য

অপরদিকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছেন দাবিতে তার বক্তব্যের অংশটুকু যাচাই করে দেখা যায়, জাতীয় সংসদে সংসদের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে গত ৩ এপ্রিল একটি সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

Screenshot: Channel24

সেখানে তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থার সমালোচনা করে বলেন, ‘এই মডেলটি ব্যর্থ হয়েছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা কার্যকর করতে গিয়ে বিভিন্ন অসামঞ্জস্য যেমন, কে এই সরকারের প্রধান হবেন, প্রক্রিয়া কি হবে ইত্যাদি দেখা দেয়৷ তখন আর মডেলটি কার্যকর থাকলো না।’

অর্থাৎ, স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী দেওয়ার ব্যাপারে কিছু বলেননি। বরং তিনি এই ব্যবস্থার সমালোচনা করেছেন।

তার এই সমালোচনা থেকেই খণ্ডিত অংশ কেটে সেটি ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যের সঙ্গে জুড়ে দিয়ে দুইজনের নামে ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছে স্পীকার ও ওবায়দুল কাদের’ শীর্ষক দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে। 

মূলত, গত ৩ ও ৭ এপ্রিল ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিরোধিতা বা সমালোচনা করে দুইটি আলাদা অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। তাদের এই আলাদা আলাদা বক্তব্য থেকেই কিছু অংশ কেটে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছে স্পীকার ও ওবায়দুল কাদের’ শীর্ষক দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে।

সুতরাং, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিচ্ছে স্পীকার ও ওবায়দুল কাদের’ শীর্ষক দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেগুলোতে প্রচারিত তথ্যটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img