৭ বছর পুরোনো এক রোগাক্রান্ত নারীর ছবি ব্যবহার করে আর্থিক প্রতারণা

সম্প্রতি “আমার নাম হাফেজা তানিয়া আক্তার তন্নী।আমরা দুই বোন। আমার ছোট বোনের হার্টের একটি ভাল্প নষ্ট হয়ে গেছে। ডাক্তার বলছেন জরুরী অপারেশন করাতে না পারলে ওকে বাঁচানো যাবে না।” শীর্ষক শিরোনামে কিছু ছবি সংযুক্ত করে ফাতেমা নামের এক মেয়ের জন্য মানবিক সাহায্যের আবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে ভাইরাল এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানেএখানেএখানেএখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আর্থিক সহায়তার চেয়ে প্রচারিত ছবিগুলো ফাতেমা নামের কোন নারীর নয় বরং ছবিগুলো ৭ বছর পূর্বে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত কেয়া খাতুন নামের এক নারীর।

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতির মাধ্যমে, দেশীয় গণমাধ্যম দৈনিক প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণে ২০১৫ সালের ২ জুলাইয়ে “শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগেই কেয়াকে যেতে হলো হাসপাতালে” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from Prothom Alo website

পরবর্তীতে, কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে বেসরকারি টেলিভিশন ‘Channel 24’ এর সংবাদ উপস্থাপক ফারাবি হাফিজের ফেসবুক আইডি হতে ২০১৫ সালের জুন ও জুলাই মাসে প্রচারিত পোস্টে একই নারীর আরো কয়েকটি ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

 

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকনের ফেসবুক পেজ হতে ২০১৫ সালের ২৯ জুনে প্রকাশিত পোস্টে ঐ নারীর ছবি খুঁজে পাওয়া যায়।

মূলত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী পারভেজ খান ও রাজবাড়ী সরকারি কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী কেয়া খাতুন ২০১৫ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কয়েকমাস পরেই কেয়া খাতুনের শরীরে ব্লাড ক্যান্সারে শনাক্ত হয়। পরবর্তীতে তাকে ২০১৫ সালের ৮ জুন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং ক্যান্সার আক্রান্ত কেয়ার চিকিৎসা জন্য প্রায় ৩০-৪০ লক্ষ টাকা প্রয়োজন ছিল যা সেসময় সদ্য মাস্টার্স সম্পন্ন করা স্বামী পারভেজ খানের পক্ষে এককভাবে জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছিলো না। পারভেজ খানের ঐ প্রতিকূল সময়ে তার বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রজ ও অনুজরা তার পাশে দাঁড়ান।

২০১৫ সালের ২৫ জুন ফারাবি হাফিজ তার ফেসবুক আইডি হতে কেয়া খাতুনের চিকিৎসার জন্য টাকা প্রয়োজন উল্লেখ করে মানবিক সাহায্যের আবেদন জানিয়ে কেয়ার স্বামী পারভেজের বিকাশ নাম্বারসহ একটি পোস্ট করেন। এরপরই কেয়া খাতুনের জন্য মানবিক সাহায্যের আবেদনের পোস্টটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে এবং সে-সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তৎকালীন উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকনও কেয়ার জন্য মানবিক সাহায্যের আবেদন চেয়ে তার ফেসবুক পেজ হতে একটি পোস্ট করেন।

সর্বশেষ, ঐ বছরের জুলাই মাসের ২২ তারিখে ফারাবি হাফিজের দেয়া এক ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায় কেয়া খাতুনের চিকিৎসার জন্য প্রায় ৩২ লক্ষ টাকা সংগ্রহ হয়েছিলো।

এছাড়া, কেয়ার চিকিৎসা সম্পর্কিত আপডেট তথ্য নিয়ে ২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বরে দৈনিক প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণে ‘কেয়ার মুখে হাসি, চোখে স্বপ্নের ঝিলিক‘ শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

ছবি
Screenshot from Prothom Alo website

তবে, সাম্প্রতিক সময়ে কেয়া খাতুনের ই একটি ছবি ব্যবহার করে জনৈক ফাতেমার চিকিৎসার জন্য মানবিক সাহায্যের প্রয়োজন দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

এছাড়া, আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদনকৃত ফেসবুক পোস্টটিতে উল্লিখিত রোগাক্রান্ত জনৈক ফাতেমার মামা মোঃ নুরুল আমিনের ব্যক্তিগত বিকাশ (0170834949, 01708349497 ) নাম্বারে একাধিক বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বিগত কিছুদিন যাবত শুধুমাত্র নাম ও ছবি পরিবর্তন করে ভিন্ন ভিন্ন শিরোনামে আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণা মূলক তথ্য প্রচার করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, রিউমর স্ক্যানার টিম পূর্বেও বিভিন্ন নাম ব্যবহার করে প্রতারণার উদ্দেশ্যে আর্থিক সাহায্য চেয়ে করা পোস্টগুলোকে শনাক্ত করে একাধিক ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

সুতরাং, আর্থিক সহায়তার নামে প্রতারণার উদ্দেশ্যে ৭ বছর পূর্বের রোগাক্রান্ত কেয়া খাতুনের ছবি জনৈক ফাতেমা দাবিতে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

[su_box title=”True or False” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review: আমার নাম হাফেজা তানিয়া আক্তার তন্নী।আমরা দুই বোন। আমার ছোট বোনের হার্টের একটি ভাল্প নষ্ট হয়ে গেছে
  • Claimed By: Facebook Posts
  • Fact Check: False

[/su_box]

তথ্যসূত্র

  1. Prothom Alo: https://www.prothomalo.com/bangladesh/%E0%A6%B6%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%B6%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A7%9C%E0%A6%BF-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%86%E0%A6%97%E0%A7%87%E0%A6%87-%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A7%87%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%BE-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A7%87
  2. Farabi Hafiz FB Posts: https://www.facebook.com/photo.php?fbid=10206699486913110&set=a.1042651073822&type=3 // https://www.facebook.com/1451944459/posts/10206742125059037 // https://www.facebook.com/1451944459/posts/10206763795200777 // https://www.facebook.com/1451944459/posts/10206894978960289
  3. Asraful Alam Khokon FB Post: https://www.facebook.com/798439853557899/posts/817118895023328/
  4. Prothom Alo: https://www.prothomalo.com/bangladesh/%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%96%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%BF-%E0%A6%9A%E0%A7%8B%E0%A6%96%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9D%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%95
RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img