বুধবার, জুলাই 24, 2024
spot_img

কুয়েতে ১২৩২ জন লোক নেওয়ার সংবাদটি ২০২৩ সালের

সম্প্রতি, আরটিভির একটি ফটোকার্ডের মাধ্যমে সরকারিভাবে কুয়েতে ১২৩২ জন যাওয়ার সুযোগ পাবে দাবিতে একটি তথ্য  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। 

কুয়েতে ১২৩২ জন

উক্ত দাবিতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, সম্প্রতি সরকারিভাবে কুয়েতে কোনো লোক যাওয়ার সুযোগের বিষয়ে জানায়নি সরকার বরং আরটিভির ২০২৩ সালের একটি ফটোকার্ড ব্যবহার করে উক্ত দাবিটি  প্রচার করা হয়েছে।  

এ বিষয়ে অনুসন্ধানের শুরুতে, রিভার্স ইমেজ সার্চ করে এ সংক্রান্ত মূল সংবাদটি আরটিভির ওয়েবসাইটফেসবুক পেজে খুঁজে পাওয়া যায়। ২০২৩ সালের ২৭ অক্টোবর প্রকাশিত এই সংবাদ থেকে জানা যায়, সে বছর কুয়েতে কর্মী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিল বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল)। উক্ত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে ২৩ থেকে ৩৯ বছর বয়সী, ইংরেজি ভাষায় পারদর্শী এবং সরকার স্বীকৃত ইনস্টিটিউট থেকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিএসসি ডিগ্রিধারীদের আবেদন করার সুযোগ ছিল। আবেদনের সময়সীমা ছিলো ২০২৩ সালের ২৬ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ঐ আবেদন ফর্মে একটি লিংক পাওয়া যায়, যা বর্তমানে আর কোনো প্রতিক্রিয়া গ্রহণ করছে না। সেই নিয়োগের সংবাদের ফটোকার্ডটিই সম্প্রতি করা পোস্টগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে।

Screenshot: Facebook 

এছাড়াও, বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে সম্প্রতি কুয়েতে লোক নিয়োগ সংক্রান্ত কোনো তথ্য বা নোটিশ খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

মূলত, সম্প্রতি কুয়েতে ১২৩২ জন লোক নেয়ার দাবিতে আরটিভির একটি ফটোকার্ড প্রচার করা হচ্ছে। পরবর্তীতে, রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে ২০২৩ সালের ফটোকার্ডটি খুঁজে পাওয়া যায়। এটি মূলত ২০২৩ সালের ২৭ অক্টোবরের কুয়েতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির সংবাদের একটি ফটোকার্ড। ঐ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে আবেদনের সময়সীমা ছিল ২০২৩ সালের ২৬ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। পরবর্তীতে সংবাদের লিংক থেকে বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে সার্চ করে এই সংক্রান্ত কোনো নোটিশ বা তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

সুতরাং, সম্প্রতি কুয়েতে ১২৩২ জন লোক নেয়ার দাবিতে ২০২৩ সালের আরটিভির পুরোনো ফটোকার্ড ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে; যা বিভ্রান্তিকর। 

তথ্যসূত্র

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img