শনিবার, মে 18, 2024
spot_img

রোজা নিয়ে নোবেল বিজয়ী বিজ্ঞানী ইয়োশিনোরি ওহশোমির গবেষণা করেননি

সম্প্রতি, “রোজা রাখলে মারা যায় ক্যান্সারের জীবাণু” শীর্ষক শিরোনামে জাপানি নোবেল বিজয়ী বিজ্ঞানী  ইয়োশিনোরি ওহশোমি’র গবেষণা দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

Screenshot from Facebook | ইসলামিক আর্তনাদ 

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, ইয়োশিনোরি ওহশোমির গবেষণা দাবিতে রোজার মাধ্যমে ক্যান্সার কোষ ধ্বংস হওয়ার তথ্যটি সঠিক নয় বরং অধ্যাপক ইয়োশিনোরি ওহশোমি এমন কোনো মন্তব্য বা গবেষণা করেননি। 

রোজা রাখা ক্যান্সার চিকিৎসায় উপকারী কিনা প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধানের মাধ্যমে ‘Cell Metabolism’ নামের সায়েন্টিফিক জার্নালে প্রকাশিত একটি রিসার্চ পেপার খুঁজে পাওয়া যায়। ২০১৪ সালে ইঁদুরের উপর করা একটি গবেষণায়, ৯-১২ ঘন্টার সময়কালের উপবাসে স্থূলতা এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিসের রোগের বিরুদ্ধে ইতিবাচক ভূমিকা রাখে বলে জানা যায়। স্থূলতা ক্যান্সারের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ প্রভাব ফেলে, তাই উপবাসের মাধ্যমে স্থূলতার বিরুদ্ধে ভূমিকা রাখলে সেটি ক্যান্সার চিকিৎসায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে। 

ইয়োশিনোরি ওহশোমি রোজা নিয়ে কোনো গবেষণা করেছেন কিনা এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে দেখা যায়, ইয়োশিনোরি অটোফেজি নিয়ে ১৯৯২ সাল থেকে অসংখ্য গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছেন। তবে কোনো গবেষণাতেই, রোজা বা উপবাস ক্যান্সার সারাবে এমন কিছু বলা হয়নি। একটানা কতক্ষণ না খেয়ে থাকা অটোফেজির জন্য বিজ্ঞান সম্মত, সে নির্দেশনাও ইয়োশিনোরির কোনো গবেষণায় নেই।

অটোফেজি কী?

অটোফেজি শব্দটি এসেছে গ্রিক শব্দ অটো ও ফাজেইন থেকে। বাংলায় এর অর্থ হচ্ছে, আত্ম ভক্ষণ বা নিজেকে খেয়ে ফেলা। 

এছাড়া, ইয়োশিনোরির বর্তমানে কর্মস্থল জাপানের টোকিও ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি’র ইন্সটিটিউট অফ ইনোভেশন রিসার্চ এ ‘রোজার মাধ্যমে ক্যান্সার কোষ ধ্বংস হওয়া, স্থূলতা দূর হওয়া এবং ডায়াবেটিস ভালো হওয়া বিষয়ক তথ্যগুলো ইয়োশিনোরি’র গবেষণায় এসেছে কি না কিংবা তিনি এ সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেছেন কি না’ তা জানতে চাওয়া হলে ইন্সটিটিউটটির জনসংযোগ শাখা থেকে রিউমর স্ক্যানারকে জানানো হয়, “অধ্যাপক ইয়োশিনোরি ওহশোমি এমন মন্তব্য কখনো করেননি।” 

মূলত, ২০১৬ সালে অটোফেজি নিয়ে গবেষণার জন্য নোবেল পুরস্কার প্রাপ্ত ইয়োশিনোরি ওহশোমি ১৯৯২ সাল থেকে অসংখ্য গবেষণা পত্র প্রকাশ করেছেন। তবে কোনো গবেষণাতেই, রোজা বা উপবাস ক্যান্সার সারাবে এমন কিছু বলা হয়নি। তাছাড়া, ইয়োশিনোরির বর্তমান কর্মস্থল টোকিও ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজিও ইয়োশিনোরির নামে প্রচারিত তথ্যগুলো মিথ্যা বলে রিউমর স্ক্যানারকে নিশ্চিত করেছে। তবে রোজা ক্যান্সার চিকিৎসায় ইতিবাচক ভূমিকা রাখে বলে বিভিন্ন গবেষণায় এসেছে। 

অর্থাৎ, রোজার মাধ্যমে ক্যান্সারের কোষ ধ্বংস হয় শীর্ষক শিরোনামে জাপানি নোবেল বিজয়ী বিজ্ঞানী উসেনরি ওসমি’র গবেষণা দাবিতে প্রচারিত তথ্যগুলো সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

পূর্বেও ‘রোজা রাখার উপকারিতা’ শীর্ষক শিরোনামে একই তথ্যটি দেশীয় গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছিলো। সে সময়ে বিষয়টিকে মিথ্যা হিসেবে শনাক্ত করে বিস্তারিত ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার টিম।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img