গত ১০ জানুয়ারি থেকে ভূমি আইন কার্যকরের তথ্যটি মিথ্যা

সম্প্রতি, ভূমি আইন পাস হয়েছে এবং গত ১০ই জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে দাবিতে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে।

ভূমি আইন

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ), এখানে (আর্কাইভ) এবং  এখানে (আর্কাইভ)।

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, নতুন ভূমি আইন পাস ও ১০ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে দাবিতে প্রচারিত তথ্যটি সঠিক নয় বরং ভূমি আইন নামে কোনো আইন গত ১০ জানুয়ারি বা তার আগে সংসদে প্রণয়ন করা হয়নি বলে নিশ্চিত করেছিল ভূমি মন্ত্রণালয়।

মূলত, ভূমি মন্ত্রণালয় ডিজিটাল সেবা প্রবর্তনের পাশাপাশি আইন ও বিধি-বিধান সংশোধন ও নতুন আইনের খসড়া তৈরি করছে৷ এরই ধারাবাহিকতায় আইন কমিশন ‘ভূমি আইন, ২০২২ (ধারনা পত্র, খসড়া আইন ও সুপারিশ)’ নামক একটি খসড়া সরকারের কাছে পাঠিয়েছে। যেটি এখনো প্রণয়ন না হলেও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘ভূমি আইন পাস হয়েছে, ১০ই জানুয়ারি থেকে কার্যকর  হয়েছে’ শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। তবে গত ২২ জানুয়ারি বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয় বিষয়টিকে গুজব হিসেবে উল্লেখ করে সেসময় তাদের ভ্যারিফাইড ফেসবুক পেইজে জানিয়েছিল, ‘ভূমি আইন’ নামে কোনো আইন জাতীয় সংসদে এখন পর্যন্ত প্রণয়ন করা হয়নি।’

প্রসঙ্গত, গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতির সম্মতিক্রমে ‘ভূমি অপরাধ প্রতিরোধ ও প্রতিকার আইন-২০২৩’ আইনে পরিণত হয়েছে। এর আগে, গত ১২ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে বিলটি পাস হয়। এটি গত ১৮ সেপ্টেম্বর গেজেটের মাধ্যমে সর্বসাধারণের অবগতির জন্য প্রকাশ করা হয়েছে। গতকাল (১৯ সেপ্টেম্বর) ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, পূর্বেও বিষয়টি একই দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হলে সেসময় এটিকে মিথ্যা শনাক্ত করে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img