বুধবার, ফেব্রুয়ারি 28, 2024
spot_img

দাফনের পূর্বে কেঁদে ওঠা শিশু দাবিতে ভুল ছবি প্রচার

সম্প্রতি, “জন্মের পর কান্না না করায় মৃত ঘোষণা করেন ডাক্তার। অল্পের জন্য বেচে গেল কবর দেওয়া থেকে” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে

বিগত বছরগুলোতে ফেসবুকে প্রচারিত কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানেএখানে
পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানারের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচ্য ছবিটি ঢাকা মেডিকেল থেকে মৃত ঘোষণা করা নবজাতকের নয় বরং এটি সুস্থ ও স্বাভাবিক একটি নবজাতকের ছবি।

রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতিতে, ২১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে, Ashish Biswas নামে একটি ফেসবুক আইডিতে “সদ্যোজাত এক মেয়ে শীশূর ঘুমন্ত হাসিমুখ পৃথিবীকে সুখীময় করে তোলে” শীর্ষক ক্যাপশনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়।

পরবর্তীতে ভাইরাল হওয়া ছবির শিশুটির পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে শিশুটি সুস্থ আছে বলে নিশ্চিত হয়েছে রিউমর স্ক্যানার। শিশুর পরিবার আরও জানায়, তাদের শিশুর ছবি ব্যবহার করে ভুল তথ্য প্রচারিত হওয়ায় তারা বিব্রত।

মূলত, গত ১৬ অক্টোবর ২০২০ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত ঘোষণা করা এক নবজাতক দাফনের সময় কেঁদে ওঠে। পরবর্তীতে খবরটিকে কেন্দ্র করে অন্য একটি শিশুর ছবিসহ বিভিন্ন পোস্ট ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে।

উল্লেখ্য, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মৃত ঘোষণার পর কবরস্থানে দাফন করতে গিয়ে নড়েচড়ে ওঠা শিশুটি ২০২০ সালের ২১ অক্টোবরে ঢামেকে মৃত্যুবরণ করে।

প্রসঙ্গত, পূর্বেও এই শিশুটির ছবি ব্যবহার করে আলোচিত ঘটনাটি প্রচার করা হলে তা শনাক্ত করে একাধিকবার ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

অর্থাৎ, ২০২০ সালে ঢামেকে মৃত ঘোষণার পর দাফনের সময় কেঁদে ওঠা শিশুর ঘটনায় ভিন্ন একটি শিশুর ছবি যুক্ত করে নতুন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে যা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর।

RS Team
RS Team
Rumor Scanner Fact-Check Team
- Advertisment -spot_img
spot_img
spot_img